আজ শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ ইং

৫ একর জমিতে মসজিদ চান না সালমান খানের বাবা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-১১ ২০:৩৬:৫৬

সিলেটভিউ ডেস্ক :: কয়েক দশকের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ভারতের অযোধ্যায় মোগল আমলে তৈরি বাবরি মসজিদ মামলার ঐতিহাসিক রায় দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। রায়ে অযোধ্যার বিতর্কিত ওই জায়গা রাম মন্দিরের জন্য বরাদ্দের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলমানদের অন্যত্র পাঁচ একরের জমি বরাদ্দ দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

গত শনিবার (৯ নভেম্বর) দেশটির প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ সর্বসম্মতিক্রমে এই রায় দেন। রায় ঘোষণার পর অনেকেই এর পক্ষে-বিপক্ষে মত দিচ্ছেন।

তবে সুপ্রিমকোর্টের এ রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বাবা চিত্রনাট্যকার সেলিম খান। পাশাপাশি মসজিদ নির্মাণে অন্যত্র পাঁচ একর জমি বরাদ্দ দেওয়ার বিরোধীতাও করেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে সেলিম খান বলেন, আমি মুসলমানদের জন্য দেওয়া ৫ একর জমিতে মসজিদ নির্মাণ চাই না । সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হোক। আমাদের ভালো স্কুল ও হাসপাতালের প্রয়োজন।

তা হলে মসজিদ কোথায় নির্মাণ করা হবে? এ প্রশ্নে কোনো জবাব দেননি তিনি।

সালমান খানের বাবা বলেন, বরাদ্দকৃত ওই জমিতে মসজিদের প্রয়োজন নেই মুসলমানদের। তার বদলে ওই জমিতে স্কুল অথবা কলেজ তৈরি হোক। এতে অনেক সমস্যা মিটবে। ইসলামে ভালোবাসা ও ক্ষমার কথা বলা হয়েছে। ভারতের মুসলমানদের সেদিকটি ভেবেই এগোতে হবে।

সুপ্রিমকোর্টের রায়কে সাধুবাদ জানিয়ে সেলিম খান বলেন, এ রায় ঘোষণার পর এতদিনে অযোধ্যা বিতর্কে ইতি পড়ল। এবার ওই দুই নীতি মেনেই চলতে হবে। অতীত আঁকড়ে পড়ে থেকে লাভ নেই। বরং পুরনো সব কিছু ভুলে এগিয়ে যেতে হবে। আমি মনে করি অযোধ্যা বিতর্ক নিয়ে আর কোনো আলোচনার দরকার নেই। তার চেয়ে দৈনন্দিন জীবনের সমস্যাগুলোর সমাধানের চেষ্টা করা উচিত।

সৌজন্যে :: পূর্বপশ্চিম
সিলেটভিউ২৪ডটকম/১১ নভেম্বর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন