আজ বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ইং

সালমানের মৃত্যুর খবরে চিৎকার করে কেঁদেছিলেন ফরীদি

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২১-০১-২৫ ১১:৫৩:১৬

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ঢাকাই চলচ্চিত্রের অমর নায়ক সালমান শাহ মারা গেছেন ২৭ বছর আগে। এখনো তার স্মরণে অশ্রুসজল হন বহু মানুষ। তার মৃত্যুর খবরে আত্মহত্যার মতো ঘটনাও ঘটেছিল। কেঁদেছিলেন অভিনেতার লাখো ভক্ত ও সহকর্মীরা। তাদেরই একজন প্রয়াত আরেক কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি। তিনি নাকি সালমান শাহর মৃত্যুর খবর পেয়ে চিৎকার করে কেঁদেছিলেন।

সম্প্রতি জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত সুরকার ও উপস্থাপক তানভীর তারেকের সঙ্গে এক লাইভ আড্ডায় এমন তথ্যই দিলেন অভিনেত্রী শমী কায়সার। যিনি সালমান শাহর সঙ্গে বেশ কয়েকটি নাটকে জুটি বেধে অভিনয় করেন। এছাড়া তারা ভালো বন্ধুও ছিলেন।

শমী কায়সার বলেন, ‘ফরীদি ভাই ও সুবর্ণা আপার সঙ্গে আমি ভিয়েনাতে একটা শো করতে গিয়েছিলাম। আমরা জানতাম না যে সালমান শাহ মারা গেছেন। সে সময় শুধু টেলিফোন বুথ ছিল। আমরা রিহার্সাল করছিলাম। ফরীদি ভাই বললেন, আমি বাংলাদেশে ফোন করে আসি। কিছুক্ষণ পর দেখলাম, ফরীদি ভাই বুথের ভেতরে বসে পড়েছেন। আমরা দৌঁড়ে গেলাম। তখনই ফরীদি ভাই চিৎকার করে কেঁদে উঠলেন। বললেন, সালমান মারা গেছে।’

শমী জানান, ‘আমরা কেউই খবরটা বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। সেদিন আমরা আর রিহার্সাল করিনি। সারাদিন চুপচাপ বসে শুধু কাঁদছিলাম। কারোই কিছু ভালো লাগছে না। আমি বারবার মাকে ফোন করছি। ওই দিনটির কথা কোনোদিন ভুলব না।’

অমর নায়ক সালমানের ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল টিভি নাটকের মাধ্যমে। কিছু খণ্ড ও ধারাবাহিক নাটকে তিনি অভিনয় করেছিলেন। বেশিরভাগ নাটকে তার সহশিল্পী ছিলেন শমী কায়সার। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়েই তাদের মধ্যে গাঢ় বন্ধুত্বও তৈরি হয়েছিল। তাইতো এত বছর পরও প্রিয় বন্ধুকে হারানোর শোক বয়ে বেড়াচ্ছেন শমী।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৫ জানুয়ারি ২০২১/ঢাকাটাইমস/মিআচৌ-৫

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন