আজ বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইং

যেভাবে অভিনয়ে এসেছেন তারা!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৯-১১ ০০:২৪:৩৭

সিনেমা জগতে আসার পথটা বেশ কঠিন। কখনোই তা মসৃণ হয় না। অনেক কাঠ-খড় পুরোতে হয় তারকাদের। চলুন জেনে নিই বলিউডে কীভাবে অভিনয় এসেছেন আপনার প্রিয় তারকা।

মাধুরী দীক্ষিত:
নাচ থেকে অভিনয়- সবটাতেই তিনি সেরা। পঞ্চাশ বছরেও তিনিই বলিউড মাতিয়ে চলেছে। নাচেই এক প্রযোজকের নজর কেড়েছিলেন মাধুরী। কিন্তু প্রথমে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নামার বিষয়ে তীব্র আপত্তি ছিল নায়িকার বাবা-মায়ের। পরে অবশ্য এক বন্ধুর জোরাজুরিতে নিমরাজি হয়েছিলেন তারা।

অক্ষয় কুমার:
এক ছাত্রের কথায় মডেলিংয়ে উৎসাহিত হয়েছিলেন অক্ষয় কুমার। মার্শাল আর্টের পাশাপাশি এরপর থেকেই অভিনয় শুরু করেন তিনি। বি-টাউনে এসেই একের পর এক হিট। জনপ্রিয়তার পারদও চড়েছে পাল্লা দিয়ে। ফোর্বসের তালিকায় বিশ্বের প্রথম দশ সর্বোচ্চ আয়ের অভিনেতার মধ্যেও একবার নাম উঠেছিল তার। সেরা অভিনেতার জন্য পেয়েছেন জাতীয় পুরস্কারও।

প্রীতি জিনতা:
বলিউডের অন্যতম শিক্ষিত তারকাদের মধ্যে অন্যতম প্রীতি জিনতা। ইংরেজি এবং ক্রিমিনাল সাইকোলজিতে স্নাতক তিনি। ‘ক্যায়া কেহনা’ আর ‘কাল হো না হো’-র জন্য পেয়েছিলেন সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কারও। তবে ১৯৯৬’র আগে কিন্তু ক্যামেরা সম্বন্ধে কোনও ধারণাই ছিল না প্রীতির। এক বন্ধুর বার্থডে পার্টিতে গিয়ে হঠাৎই চোখে পড়ে যান পরিচালকের। তিনি একটি বিজ্ঞাপনের জন্য প্রীতির অডিশন নেন। সেখান থেকেই শেখর কাপুরের নজরে পড়েন ডিম্পল গার্ল। বাকিটা ইতিহাস।

বিপাশা বসু:
অর্জুন রামপালের স্ত্রীর সৌজন্যে বলিউডে পা রাখার সুযোগ পান বিপাশা বসু। তারপর জিতে নিয়েছেন ২০০৫ এবং ২০০৭ সালে 'সেক্সিয়েস্ট ওম্যান ইন এশিয়ার' মুকুটও। বহু ছবিতে নজরও কেড়েছিল তার অভিনয়। বলা চলে বলিউডে তার পা রাখাটা ছিল খুবই আকস্মিক। একদিন কলকাতার এক হোটেলে অর্জুন রামপালের স্ত্রী মেহর জেসিয়ার চোখে পড়েছিলেন বিপাশা বসু। মেহর তাকে মডেলিংয়ে নামার জন্য উৎসাহ দেন। এরপরেই বিনোদন দুনিয়ায় আসেন বিপস।

পরিণীতি চোপড়া:
যশ রাজ ফিল্মস-এ জনসংযোগ বিভাগে কাজ করতেন পরিণীতি চোপড়া। সেখান থেকেই নজরে পড়েছিলেন ‘লেডিস ভার্সেস রিকি বহেল’র পরিচালক মনীশ শর্মার। এখন চুটিয়ে অভিনয় করছেন তিনি। পকেটে রয়েছে বিশেষ বিভাগে জাতীয় পুরস্কার এবং ফিল্মফেয়ার বেস্ট ডেবিউর মতো অ্যাওয়ার্ডও।

আনুশকা শর্মা:
ডিজাইনার থেকে অভিনেত্রী। বেঙ্গালুরুর একটি ফ্যাশন ইভেন্টে জিন্সের দোকানে ডিজাইনার ওয়েনডেল রডড্রিক্সের সাথে মোলাকাত হয়েছিল আনুশকার। তার কথাতেই মুম্বাই পাড়ি দিয়েছিলেন নায়িকা। এভাবেই বলিউডে আসা। বি-টাউনের অন্যতম সফল অভিনেত্রীদের তালিকায় এখন প্রথম দিকেই থাকবে তার নাম।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   আলোকচিত্রী ইউসুফ আলীর উপর হামলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের আল্টিমেটাম
  •   অল্প সময়ের মধ্যে ন্যায় বিচার করা হবে: মৌলভীবাজারে আইন মন্ত্রী
  •   মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির বিজনেস এ্যালমোনাইর পূনর্মিলনীর রেজিস্ট্রেশন শুরু
  •   কেন ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরে গেলেন সৌদি যুবরাজ?
  •   যেভাবে দেওয়া হয় অস্কার
  •   রাজ্জাকের জামায়াত ছাড়াকে স্বাগত জানালেন ড. কামাল
  •   কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে হাঙ্গরের ভাস্কর্য কেন?
  •   ভারতে দুই জেট বিমানের মুখোমুখি সংঘর্ষ
  •   ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক কী স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?
  •   বয়স অনুপাতে কার কত ঘণ্টা ঘুমানো জরুরি
  •   প্রমোদতরীর ‘নোংরা বিলাসিতা’
  •   হোটেল আর মোটেলের মধ্যে মৌলিক পার্থক্যগুলো কী?
  •   ১০ টাকায় শাড়ি! শপিংমলে উপচেপড়া ভিড়
  •   রোগী ফেলে ওটি’তেই নীরবতা পালন!
  •   কোমা থেকে জেগে দেখে সে নিজেই মেয়ের মা!