যেসব কারণে অজু ভেঙে যায়

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০২-০৩ ০১:২৩:০৪

আহমাদ রায়েদ :: মৌলিকভাবে অজু ভঙ্গের কারণ ৭টি। যথা- এক. পায়খানা ও পেশাবের রাস্তা দিয়ে কোনো কিছু বের হওয়া। যেমন বায়ু, পেশাব-পায়খানা, পোকা ইত্যাদি। [হেদায়া-১/৭]

ইরশাদ হয়েছে, ‌'তোমাদের কেউ প্রসাব-পায়খানা সেরে আসলে (নামাজ পড়তে পবিত্রতা অর্জন করে নাও) (সুরা মায়িদা-৬)
হজরত আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত। নিশ্চয় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, শরীর থেকে যা কিছু বের হয়, তার কারণে অজু ভেঙে যায়...।' (সুনানে কুবরা লিলবায়হাকি, হাদিস নং-৫৬৮)

দুই. রক্ত, পূঁজ, বা পানি বের হয়ে গড়িয়ে পড়া। [হেদায়া-১/১০]

হজরত আব্দুল্লাহ বিন উমর (রা.)-এর যখন নাক দিয়ে রক্ত ঝড়তো, তখন তিনি ফিরে গিয়ে অজু করে নিতেন। [মুয়াত্তা মালিক-১১০]

তিন. মুখ ভরে বমি করা।

হজরত আয়শা (রা.) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তির বমি হয়, অথবা নাক দিয়ে রক্ত ঝরে, বা মজি (সহবারের আগে বের হওয়া সাদা পানি) বের হয়, তাহলে ফিরে গিয়ে অজু করে নিবে। [সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদিস নং-১২২১]

চার. থুথুর সঙ্গে রক্তের ভাগ সমান বা বেশি হওয়া।

হাসান বসরি রহ. বলেন, যে ব্যক্তি তার থুথুতে রক্ত দেখে তাহলে থুথুতে রক্ত প্রবল না হলে তার ওপর অজু করা আবশ্যক হয় না।  [মুসান্নাফ ইবনে আবি শাইবা, হাদিস নং-১৩৩০]

পাঁচ. চিৎ বা কাত হয়ে হেলান দিয়ে ঘুম যাওয়া।

হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, সিজদা অবস্থায় ঘুমালে অজু ভঙ্গ হয় না, তবে চিৎ হয়ে শুয়ে পড়লে ভেঙ্গে যাবে, কেননা চিৎ বা কাৎ হয়ে শুয়ে পড়লে শরীর ঢিলে হয়ে যায়। [ফলে বাতকর্ম হয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে] (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং-২৩১৫, সুনানে আবু দাউদ, হাদিস নং-২০২)

ছয়. পাগল, মাতাল বা অচেতন হলে।

হজরত হাম্মাদ (রহ.) বলেন, যখন পাগল ব্যক্তি সুস্থ্ হয়, তখন নামাজের জন্য তার অজু করতে হবে। [মুসান্নাফ আব্দুর রাজ্জাক, হাদিস নং-৪৯৩]

সাত. নামাজে উচ্চস্বরে হাসি দিলে।

হজরত ইমরান বিন হুসাইন (রা.) থেকে বর্ণিত। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি নামাজে উচ্চস্বরে হাসে, সে ব্যক্তি অজু ও নামাজ পুনরায় আদায় করবে। হজরত হাসান বিন কুতাইবা (রহ.) বলেন, যখন কোনো ব্যক্তি উচ্চস্বরে হাসি দেয়, সে ব্যক্তি অজু ও নামাজ পুনরায় আদায় করবে। [সুনানে দারা কুতনি, হাদিস নং-৬১২]

লেখক : ইসলামী গবেষক

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেটে ফুলেল শ্রদ্ধায় কবি নজরুলের জন্মবার্ষিকী পালন
  •   জৈন্তাপুর জাতীয়তাবাদী প্রবাসী অনলাইন পরিষদের ইফতার মাহফিল
  •   জকিগঞ্জে মাদকসহ গ্রেপ্তার ১
  •   সাড়ে ৮ হাজার সৌদি রিয়াল নিতে পারবেন বাংলাদেশী হজযাত্রীরা
  •   রাজধানীতে কাজী নজরুলের সমাধিতে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা
  •   ভারত সফরে গেলেন প্রধানমন্ত্রী
  •   নেত্রকোনায় 'বন্দুকযুদ্ধে' ২ নিহত, আহত ৩
  •   সিলেটে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৮৮
  •   ওসমানী মেডিকেলের সাবেক উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
  •   মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট: সিলেটে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল
  •   অন্ধকারে হাকালুকি জিরো পয়েন্ট!
  •   জর্জিয়া রাজ্য সিনেটে শেখ রহমানের জয়
  •   সহসা মুক্তি মিলছে না খালেদা জিয়ার
  •   শেখ হাসিনা কি মনের মতো ছাত্রলীগ পাবেন?
  •   রমজানে কী খাব, কী খাব না
  • সাম্প্রতিক ফিচার খবর

  •   বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট, টাকার অংকে মুনাফা কত?
  •   আসুন! যুগ যুগ ধরে চলে আসা একটি কুসংস্কারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করি
  •   নবীজি যেভাবে রোজা রাখতেন
  •   সমস্যায় জর্জরিত জকিগঞ্জ হাসপাতাল
  •   রোযা কোনো উৎসব নয়, আত্মশুদ্ধির মাস
  •   রোজার নিয়ত, সাহরি ও ইফতারের মাসায়েল
  •   ঋতুস্রাবের শাস্তি
  •   'এই বজ্জাত পুলিশগুলো খালি খায় আর ঘুমায়'
  •   তারাবির নামাজে রাকাত সংখ্যা কত- বিশ, নাকি তারও কম
  •   দর্শক কথা: ‘আগুন পাখি জ্বলছে হৃদয়ে’
  •   আমি রাজাকার : একটি আলোকচিত্র
  •   অনুকরণীয় সংগঠন ‘দে-ছুট’ এর রজতজয়ন্তী
  •   পশ্চিমের প্রযুক্তি গ্রহণ করি, কিন্তু প্রতিবাদ গ্রহণ করি না কেন?
  •   এক নিরব আলোকবর্তিকার নাম সরওয়ার হোসেন
  •   ২৫শে বৈশাখের ভাবনা: রবীন্দ্রনাথ ও আমার শৈশব