আজ মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ ইং

বর্ষাকাল না আসতেই বৃষ্টির আগমন

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৪-০৭ ১৭:৩৮:৫৪

রুবাইয়াত-ই-জান্নাত :: বাংলাদেশে ছয়টি ঋতু থাকলেও বর্ষাকালের বৈশিষ্ট্য সবচেয়ে আলাদা। কিন্তু বর্ষাকালের আগেই যখন বৃষ্টির আগমনি বার্তা আসে তখন তা আনন্দের সাথে বেশ কিছু দুর্ভোগ বয়ে আনে।

এবার সারা দেশেই বর্ষাকাল আসার আগেই মেঘলা আকাশ আর বৃষ্টির উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। তবে সিলেটে যেন এদের উপস্থিতি সবচেয়ে বেশি।

সিলেটে দিনের শুরু রোদেলা আকাশ দিয়ে হলেও মূহুর্তের মধ্যে মেঘের ভয়ংকর গর্জন আর কালো আকাশ সম্পুর্ণ পরিবেশকে অন্যরকম করে তোলে। আর তার কিছুক্ষণ পর যখন বৃষ্টি পড়া শুরু হয় ঘরের বাইরে থাকা মানুষগুলো ছুটাছুটি শুরু করে বৃষ্টি থেকে নিজেকে একটু বাঁচার জন্য। এ সময় যাদের কাছে ছাতা থাকে তারা নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করে।

এই হঠাৎ বৃষ্টি দুষ্টু ছেলেমেয়েদের জন্য অনেক মিষ্টি সময় বয়ে নিয়ে আসে। কারণ তারা বৃষ্টিতে ভিজে, কাদাতে খেলে অনেক মজা পায়। একই সময় আবার অনেকে ঘরে বসে থাকে মেঘের গর্জনের শব্দ শুনে।

সিলেটে এই অসময়ের বৃষ্টিতে ভাঙ্গা রাস্তাগুলো পানিতে ভরে যায়। রাস্তায় যানবাহন চলাচলে অসুবিধা সহ মানুষের চলাচলও বেশ দুর্বিষহ হয়ে যায়। আবার দিনমজুরদের জন্যেও এই ধরণের দিন কাম্য নয়। দোকানিদের বিক্রি এসময় কমে যায় বলে তারাও বেশ চিন্তিত থাকে। বিদ্যুৎ বিভ্রাটও এই সময়ের নিত্য ঘটনা হয়ে যায়।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের ছাত্রী আশানূর আলতাফ জেরিন বলেন, সিলেটের এমন আবহাওয়া আর বিদ্যুৎ বিভ্রাট এর বেপারে আগে জানতাম না। তাই মোমবাতি আর চার্জার সাথে রাখি নি। এই কারণে কারেন্ট চলে গেলে পড়তে অনেক সমস্যা হয়। আর পরীক্ষার আগের দিনের রাতে অবস্থা আরো খারাপ হয়ে যায়।

তবে এই দিন এ সিলেটের ছাতা, মোমবাতি, চার্জার এসব জিনিসের বিক্রি বেড়ে যায়। আর আবহাওয়া একটু ভালো হলে ঝালমুড়ি এর ভ্যানের সামনে মানুষের ভিড় দেখা যায়। হোটেলগুলোতে খিচুড়ির ক্রেতার সংখ্যাও বাড়ে সমান হারে। বর্ষার সিক্ততা এসব খাবারের প্রতি যেন মানুষের আকর্ষণকে বাড়িয়ে দেয়।

সিলেটের বালুচর এলাকার এক অধিবাসী ফরিদ মিয়া সাথে কথা বলে জানতে পারি- সিলেটে এই সময় বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে না বের হলেও ছাতা নিয়ে বের হতে হয়। ছাতা ছাড়া এই দিনে চলা যায় না।

সারা দেশের মধ্যে সিলেটে তুলনামুলক বৃষ্টি বেশি হয়। সিলেটে বসবাসকারী মানুষের ধারণা সিলেটে বৃষ্টিপাতের হার দিন দিন আরো বাড়বে।


লেখক- রুবাইয়াত-ই-জান্নাত, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   অন্ধ হাফিজ সিরাজুল ইসলাম রঘুপুরী কিডনীর জটিলতায় শয্যাশায়ী
  •   বালাগঞ্জের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সিকন্দর আলীর চেহলাম সম্পন্ন
  •   মদন মোহন কলেজ ছাত্রলীগের শোক
  •   বড়লেখায় ডেঙ্গু আক্রান্তদের দেখতে হাসপাতালে সোয়েব
  •   অবশেষে হচ্ছে সিলেট চেম্বারের নির্বাচন
  •   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে ‘স্পিড গান’
  •   সুনামগঞ্জে ২০ হাজার মানুষের ভরসা এক হাত সড়ক!
  •   স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রশীদের উপর হামলার ১ বছর, এখনো মিলেনি কোন ‘ক্লু’
  •   কাশ্মীরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে যুবকদের তুলে নেয়া হচ্ছে
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ১২ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
  •   কাশ্মীর নিয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে মোদির ফোনালাপ
  •   বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ইসলামী ফাউন্ডেশনের কর্মসূচি
  •   ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসছেন ড. মোমেন
  •   তুরস্কে তিন মেয়রকে বরখাস্ত, কী বলছে এরদোগানের দল?
  •   কুলাউড়ায় একই দিনে আরেক তরুণীর আত্মহত্যা
  • সাম্প্রতিক ফিচার খবর

  •   বিনম্র শ্রদ্ধা হে জাতির পিতা
  •   ভাটির মানুষের আশির্বাদ ' দিরাই ছাত্রকল্যাণ পরিষদ '
  •   -----------কলিজা সিনার লোভ
  •   মাতুব্বরের মাংস খাওয়া
  •   আজ পবিত্র হজ :লাব্বাইক ধ্বনিতে আরাফামুখী লাখো ধর্মপ্রাণ মুসলমান
  •   সংখ্যালঘুর চো‌খে কাশ্মীর
  •   সাংবাদিক-সাংবাদিকতা, দস্যুতা ও বাস্তবতা
  •   বাঙ্গালী ভাইয়ের ছবি আজীবন কথা বলবে
  •   দেশবাসীর কাছে ডেঙ্গু মশার খোলা চিঠি...!
  •   রাজনৈতিক কৌশলে গুল, গুঞ্জন ও গুজবের মতো বদঅভ্যাসে লিপ্ত মানুষ
  •   মাধবকুণ্ডের কথা
  •   বি দা য় পৌ র পি তা
  •   বাংলাদেশে যেভাবে এলো রিক্সা
  •   ইয়াহুর ত্রুটি ধরে জিতলেন ১৫ লাখ ডলার!
  •   এ বছরের জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০, সর্বোচ্চ ১৯৮০ টাকা