আজ বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং

নিউজিল্যান্ডে মুসলমানদের পাশে দাঁড়াতে সংহতি সমাবেশ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৩-২৫ ১৮:১০:৪৭

 নিউজিল্যান্ডের সংখ্যালঘু মুসলিমদের পাশে দাঁড়াতে এক সংহতি সমাবেশে যোগ দিয়েছে হাজার হাজার মানুষ।

সমাবেশে বর্ণবাদ, বৈষ্যম, উগ্রবাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে সমবেতরা বলেছে, ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলারকারী ব্যর্থ হয়েছে বিভেদ ছড়িয়ে দিতে, আমরা ঐক্যবদ্ধ আছি।
অকল্যান্ডে এক সমাবেশে বক্তরা বর্ণবাদবিরোধী বিখ্যাত মার্কিন নেতা মার্টিন লুথার কিং ও ম্যালকম এক্সের বাণী উদ্বৃত করে ঐক্যবদ্ধ থাকার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

অকল্যান্ডে আয়োজিত এই সমাবেশের উদ্যোক্তাদের একজন ডেনি উইলকিনসন তার বক্তৃতায় বলেন, ‘(সন্ত্রাসীদের) ঘৃণাবাদ থেকে আমরা শক্তি অর্জন করেছি। সেই শক্তি এখন আমরা কাজে লাগাবে শান্তি, ভালোবাসা,সহিংসতার মতো ইতিবাচক জিনিসের পক্ষে এবং বর্ণবাদ, ফ্যাসিবাদ, ধর্মান্ধতার মতো নেতিবাচক জিনিসগুলোকে দূর করতে।

শনিবার সন্ধ্যায় ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের কাছে আয়োজন করা হয় আরেকটি সমাবেশের। যেখান যোগ দিয়েছে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ। হামলার শিকার লিনউড মসজিদের ইমামের আলাবি লতিফ জিরুল্লাহ’র পরিচালনায় দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে সমাবেশ শুরু হয়। এসময় তিনি বলেন, যাই ঘটুক-তার কোন কিছুই আমাদের মধ্যে বিভেদ ছড়াতে পারবে না। এটি আমাদের নিউজিল্যান্ড, এখানে আমারা পারস্পারিক ভালোবাসার বন্ধনে বাস করবো।

সমাবেশে নিহত পঞ্চাশ মুসুল্লির নাম পাঠ করেন কেন্টারবুরি ইউনিভার্সিটির মুসলিম অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট বারিজ শাহ। তিনি এসময় নিউজিল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট জাসিন্ডা আরডার্নের দায়িত্বশীল ভূমিকা ও দৃষ্টান্তমূলক নেতৃত্বের জন্য তাকে ধন্যবাদ জানান।

জাসিন্ডা বলেন, আমরা ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে চিরকাল ঐক্যবদ্ধ থাকবো। হামলায় নিহতদের মধ্যে দুজন ছিলেন কাশমেরে হাইস্কুলের ছাত্র।

স্কুলটির প্রধান ওকিরানো তাইলাইয়া বিখ্যাত মার্কিন রাজনীতিক ও বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের নেতা মার্টিন লুথার কিংয়ের বাণী উদ্বৃত করে বলেন, ‘অন্ধকার দিয়ে কখনো অন্ধকার দূর করা যায় না, আলো দিয়ে অন্ধকার দূর করতে হয়।’

তিনি বলেন, আমাদের ভালোবাসার বন্ধনে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
সিলেটভিউ ২৪ডটকম/২৫ মার্চ ২০১৯/এমএইচআর

সৌজন্যেঃ বিডি নিউজ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   'কোথায় গেল আমার মেয়ে', উত্তাল দিল্লিতে খুঁজছেন বাবা
  •   তাহিরপুরে প্রতিপক্ষের ভয়ে গ্রাম ছাড়া ৩০ পরিবার
  •   সিলেটে মধ্যরাতে বৃষ্টি, বোরো ধান ও রবিশস্যের লাভ
  •   দিল্লির সহিংস ঘটনার ৪ দিন পর হুঁশ ফিরল, মোদির টুইট
  •   বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ
  •   ‘নিয়ন্ত্রণে রাখবেন, না হলে মশা আপনার ভোট খেয়ে ফেলবে’
  •   সিলেটে পৌছেছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল
  •   সৌম্যর বিয়েতে মারামারি, আটক ২
  •   শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় বিদ্যুৎ থাকবে না
  •   আমেরিকায় ইনফ্লুয়েঞ্জায় ১৬ হাজার মানুষের মৃত্যু
  •   আমরা এখন মানুষ নই : মিমি
  •   বিশ্বনাথে সরকারি কলেজে বার্ষিক মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
  •   বিশ্বনাথে প্রতিবন্ধী স্কুলের উদ্বোধন
  •   খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি শেষ, আদেশ বেলা ২টায়
  •   যুক্তরাজ্যে চেশিয়ার এন্ড নর্থওয়েলস আ.লীগের মাতৃভাষা দিবস পালন
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   'কোথায় গেল আমার মেয়ে', উত্তাল দিল্লিতে খুঁজছেন বাবা
  •   দিল্লির সহিংস ঘটনার ৪ দিন পর হুঁশ ফিরল, মোদির টুইট
  •   আমেরিকায় ইনফ্লুয়েঞ্জায় ১৬ হাজার মানুষের মৃত্যু
  •   আমরা এখন মানুষ নই : মিমি
  •   যুক্তরাষ্ট্রে বিয়ার কোম্পানির কারখানায় বন্দুকধারীর গুলি, নিহত ৬
  •   দিল্লির তাণ্ডব নিয়ে প্রশ্ন তোলা সেই বিচারপতিকে বদলি
  •   করোনাভাইরাস : ওমরাহ যাত্রীদের প্রবেশ স্থগিত করল সৌদি
  •   উত্তাল দিল্লিতে মৃত্যুর মিছিল, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪
  •   দিল্লিতে ৮৫ বছরের আকবরিকেও পুড়িয়ে মারল হিন্দুত্ববাদীরা
  •   'হিন্দু, মুসলমান ও পুলিশ মরল, লাভ হলো কার?'
  •   রক্তাক্ত দিল্লিতে নিহত বেড়ে ২৭, আনাচে কানাচে দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ছে
  •   ধর্মীয় সহিংসতায় দিল্লিতে পুড়লো মাজার
  •   দিল্লি সহিংসতার নাটের গুরু কে এই বিজেপি নেতা?
  •   দিল্লি জ্বলছেই, সেনা নামানোর আবেদন কেজরিওয়ালের
  •   দিল্লিতে গুজরাট মডেল : টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া