আজ রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং

মোদীর নিরাপত্তায় প্রতি মিনিটে খরচ হয় ১১ হাজার

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০২-১২ ১৮:৫৬:২১

সিলেটভিউ ডেস্ক :: বাজেটেই বেড়ে গেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিরাপত্তার খরচ। অনেকটাই বেড়ে গেছে সেই খরচ। কারণ আপাতত ভারতে একমাত্র মোদীই পান এসপিজি নিরাপত্তা। আর সেই এসপিজি খাতে একধাক্কায় বাজেট বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে অনেকটাই।

সম্প্রতি ভারতের লোকসভায় প্রধানমন্ত্রীকে এই সংক্রান্ত প্রশ্ন করেছেন ডিএমকে সাংসদ দয়ানিধি মারান। তিনি জানতে চেয়েছেন যে দেশে এই মুহূর্তে কারা কারা এসপিজি ও কারা সিআরপিএফ নিরাপত্তা পান। উত্তরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জি কৃষ্ণন জানিয়েছেন, বর্তমানে দেশে একজনই এসপিজি নিরাপত্তা পান। নাম বলেননি তিনি। সিআরপিএফ কারা পান, সেই হিসেবও দেননি তিনি। তবে জানিয়েছেন বর্তমানে দেশে ৫৬ জন ব্যক্তিকে সিআরপিএফ নিরাপত্তা দেওয়া হয়।

এবার বাজেটে এসপিজি-তে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে ১০ শতাংশ। ৫৯২.৫৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। হিসেব বলছে, ২০১৫-১৬ থেকে বাজেট বেড়ে হয়েছে দ্বিগুণ। হিসেব করে দেখা গিয়েছে, প্রত্যেকদিন মোদীর এসপিজি নিরাপত্তার জন্য খরচ হচ্ছে ১.৬২ কোটি টাকা, অর্থাৎ প্রতি ঘণ্টায় ৬.৭৫ লক্ষ টাকা এবং মিনিটে ১১,২৬৩ টাকা খরচ হয়।

উল্লেখ্য, আগে এসপিজি নিরাপত্তা পেতেন চার জন। গত বছরের নভেম্বরে সোনিয়া গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর এসপিজি নিরাপত্তা তুলে নেওয়া হয়। গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে একাধিক প্রোটোকল ভাঙার অভিযোগ আনা হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয়।

গত আগস্টে তুলে নেওয়া হয় সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-এর নিরাপত্তাও। আরও দুই সাবেক প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবেগৌড়া ও ভিপি সিং-কেও এই নিরাপত্তা দেওয়া হয় না। ইন্দিরা গান্ধীকে হত্যার পর ১৯৮৫ সালে এই এসপিজি গঠন করা হয়। প্রধানমন্ত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়াই ছিল এই বাহিনীর মূল দায়িত্ব। ১৯৯১-তে রাজীব গান্ধীকে হত্যা করার পর পুরো পরিবারকেই এসপিজি প্রোটেকশন দেওয়া হয়।

সৌজন্যে : বিডি প্রতিদিন
সিলেটভিউ২৪ডটকম/১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন