আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ ইং

করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দি মানুষ, কেনাকাটা করে দিচ্ছে কুকুর

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৩-২৫ ২১:২৩:৩৬

সিলেটভিউ ডেস্ক :: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ব্যাপক মৃত্যুর হুমকি নিয়ে ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বব্যাপী। এর প্রকোপে মৃত আর আক্রান্তের মাত্রা দিন দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে। চীনে তাণ্ডব চালিয়ে এখন ইতালি, ইরান ও স্পেনসহ কিছু কিছু দেশ ও অঞ্চলে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। কিন্তু এখনও সেভাবে এই ভাইরাসের প্রতিষেধক নেই। তাই এই ভাইরাস প্রতিরোধে জনসমাগম এড়িয়ে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। তাই বিশ্বের কয়েক কোটি মানুষ এখন ঘরে বসে দিন কাটাচ্ছেন। কেউ-কেউ মুদি বা ওষুধের মতো প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে বাইরে যাওয়ার অনুমতি পেয়েছেন।

তবে, যাদের কোভিড -১৯ উপসর্গ রয়েছে বা যারা কারও সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকে বাইরে বহির্বিশ্ব থেকে আলাদা হয়ে বাড়িতেই থাকতে হবে। কিন্তু মেক্সিকোয় এক ব্যক্তি ঘর না ছেড়ে নিজের প্রয়োজন মেটাতে একটি ব্যতিক্রমী উপায় তৈরি করেছেন।
ওই ব্যক্তির নাম আন্তোনিও মুনোজ। তিনি কয়েকদিন ধরে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

তিনি করোনা সংক্রমণের এ সময় দোকানে যাওয়ার পরিবর্তে তার বিশ্বস্ত পোষা কুকুরটির সহায়তা নিচ্ছেন। তার এই কুকুরটির নাম চিহুহুয়া।

কুকুরটির পেছনে একটি নোট সংযুক্ত ছিল যার মধ্যে লেখা ছিল : হ্যালো মিস্টার 'শপার'। দয়া করে আমার কুকুরটির কাছে কিছু চিটো (এক ধরনের খাবার) বিক্রি করুন, কমলা রঙের, লাল রঙের নয়। তার (কুকুর) কলারের সাথে ২০ ডলার সংযুক্ত রয়েছে।

কুকুরটি এরপর সেই চিটো নিয়ে আসে। ছোট মুখের মধ্যে করে কমলা রঙের চিটো গডম্যামন প্যাকেট নিয়ে মনিবের ঘরে ফিরে আসে সে।

এদিকে চিহুহুয়ার স্থানীয় দোকান থেকে ফিরে আসার মুহুর্তটি ধারণ করেছিলেন অ্যান্টোনিও। দৃশ্যটি ছিল অবিশ্বাস্য।

কুকুরটি এর আগে দোকানে গিয়েছিল কিনা কিংবা খুবই বুদ্ধিমান এবং তার চারপাশ সম্পর্কে সচেতন কিনা তা পরিষ্কার নয়। তবে যে বিষয়টি পরিষ্কার তা হলো এই কুকুরটি এই অন্ধকার সময়ে কিংবদন্তি এবং ত্রাণকর্তা হিসেবে বিবেচিত হবে।

এদিকে, মেক্সিকোয় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮৭ জন। দেশটিতে লোকজনের বিশাল জমায়েত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

সৌজন্যে :বিডি প্রতিদিন
সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৫ মার্চ ২০২০/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন