আজ শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ ইং

এলো পহেলা বৈশাখ, অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৪-১৪ ০১:৩০:৫৭

আল-আমিন :: "নাচেরে বাউল নাচে হেলেদুলে,খুশিরই রং লেগেছে রমনা বটমূলে। সানাই বাজে, মাদল বাজে, বাজে ঢোল আর ঢাক বাজে। এলোরে এলো আবার পহেলা বৈশাখ।" বাংলাদেশ এক রূপময় দেশ। ফুল-ফলে শোভিত দৃষ্টিনন্দন এর প্রকৃতি। এখানে দোয়েল কোকিল মুখরিত করে রাখে সারাবেলা। আছে টলটলে জলের পদ্মপুকুর আর অবিরাম ঝর্ণাধারা। প্রকৃতি সেজেছে নতুন সাজে। দুয়ারে বইছে বৈশাখী হাওয়া। বৈশাখী ঝড় বৃষ্টিতে আকাশ এখন স্বচ্চ। গ্রীষ্মের আগমনে পাখি গাইছে গান। গাছে গাছে সবুজ পাতা আর ফুলের মেলা। আজ পহেলা বৈশাখ। এ বৈশাখের হাওয়া লেগেছে গ্রামে, নগরে, কলেজে, বিশ্ববিদ্যালয়ের তনুমনে। ফুলে ফুলে আনন্দ উৎসব বাজ্ঞালির সব জায়গায়। কিশোরী তরুনীর চুলের খোপায়।

"বাজেরে বাজে ঢোল আর ঢাক, এলো রে পহেলা বৈশাখ। আজ কৃষ্ণচুড়ার ডালে, লেগেছে ডালে ডালে, সেই রঙ হৃদয়ে ছড়াক। বাতাসে ছড়াল সুগন্ধ, এ মনে এনে দিল ছন্দ, সেই ছন্দে ছন্দে সুখে আনন্দে, সব ব্যথা ধুয়ে মুছে যাক। জেগেছে আজ সারা দেশটা, প্রাণেরই মেলাতে সে রেশটা, আজ বলছে মন তো মনে আনন্দ, এই আশা ভালবাসা থাক।"প্রকৃতিতে বৈশাখ আছে বলেই কবির কবিতা লেখা হয়, প্রেমিকের প্রিয়তমার নাম হয় কবিতা। ভালোবাসার নাম হয় কবিতা। পহেলা বৈশাখের এই আগমনে প্রকৃতির সাথে তরুণ হৃদয়েও লাগে দোলা, জেগে ওঠে প্রেম। উৎসবের এই দিনে ভালোবাসার মানুষের খোঁপায় গেথে দিবে নিজ হাতে ভালোবাসার ফুল। খুব কাছ থেকে দেখবে লাল পাইরের সাদা শাড়ী পড়া লাল চুড়ি আর নীল টিপে প্রিয়তমাকে। প্রিয়তমা অনুভব করবে প্রিয়তমের ভালোবাসা।

প্রতি বছর আসে বৈশাখ। নতুন বছর। নতুন সূর্যের আভায় বিচ্ছুরিত আলোকণা দুলে ওঠে হৃদয়ে। গাছে নতুন পাতা যোগ করার মতোই আমাদের মনকে নতুন করে তুলে। নির্লিপ্ত আকাশ চুইয়ে গ্রীষ্মের দাবদাহ যখন জীবন মরুময় করে, চৈতালি রোদে যখন কাঁদামাটি ঠনঠনে, মাঠে-ঘাঠে কৃষক-কৃষাণীর যখন নাভিশ্বাস, তখনই বৈশাখ আনে ঝড়। সাথে নির্মল পানির আগমন ঘটে । আনে প্রশান্তির শীতল বাতাস। ঘরময় তৈরি হয় এক নীরব আবহ। প্রকৃতি হয় প্রেমের আহ্লাদী। পিছনের সব বিভেদ ভুলে, নতুন কিছুর প্রত্যয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা বাংলা নববর্ষের প্রথম মাস বৈশাখ। পহেলা বৈশাখ আগামীর প্রানের দোলা, পিছনের যাতনা, দুঃখ-ব্যথা, জরা, চিত্র সব ভুলে এক আনন্দ এক কাতারে সাঁতার কাটে, হাত নেড়ে সুখের আহ্বান জানায়। এ যেন মন ভাজ্ঞা মানুষকে সামনে ঠেলে দেয়ার ভালোবাসার গহীন সুর। প্রকৃতির চয়নে অসাধারণ সুর বজায় রেখে সৌন্দর্যরূপ ঋতু গ্রীষ্মের আহবান। কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ গেয়েছেন- "এসো হে বৈশাখ, এসো এসো, তাপসনিশ্বাসবায়ে মুমূর্ষুরে দাও উড়ায়ে, বৎসরের আবর্জনা দূর হয়ে যাক। যাক পুরাতন স্মৃতি, যাক ভুলে যাওয়া গীতি, অশ্রুবাষ্প সুদূরে মিলাক।

মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা,
অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা।"

"দোলেরে দোলে, অঙ্গ দোলে বাংলা ঢুলির ঢোলের তালে,নাগরদোলা আর বাঁশের বাঁশি, কিশোর-কিশোরীর চোখের হাসি, ভালোবাসিরে ভালোবাসি, বৈশাখী মেলা ভালোবাসি।" নগরে গ্রামে বৈশাখী মেলা হয়, পুতুল নাচ হয়, সাপের খেলা দেখানো হয়, হাডুডু, দাড়িয়াবান্ধা, বৌচি গোল্লাছুট, কানামাছি খেলার আয়োজন থাকে।

এই দিন বাজ্ঞালির মনে উৎসব জাগে। প্রাণে প্রাণে দোলা দেয় প্রেম। এই প্রেম এক নীরব নিবিড় দোলা। প্রেমিকার মন বুঝার কবিদের খেলা। উৎসবের সাথে তরুন তরুনীদের মহামিলন। ভালোবাসা,গন্ধরাজ ফুল, দখিনা হাওয়া, রৌদ্র ছায়া বৃষ্টির খেলা। ভোরের মিষ্টি পাখির গান ভালোবাসার নিবিড় সম্পর্ক, স্বচ্চ সাজানো ভালোবাসায় প্রেমময় হয়ে ওঠে। কবিতায় মগ্ন হয় প্রকৃতি। পহেলা বৈশাখ আছে বলেই নিসর্গে নির্মেঘ রোদ্দুর জেগে ওঠে, পরম বাতাসের পরশে সকাল সন্ধ্যায় দেহে লাগে মিষ্টি দোলা। আনন্দে জেগে ওঠে প্রেমময় প্রাণ গুলো।

বৈশাখকে নিয়ে কবি কাজী নজরুল ইসলাম ব্যতিক্রম লিখেছেন- "আমি ধূর্জটি, আমি এলোকেশে ঝড় অকালবৈশাখীর। আমি বিদ্রোহী, আমি বিদ্রোহী সূত-বিশ্ব বিধাত্রির।"
"ঐ নূতনের কেতন ওড়ে কালবৈশাখীর ঝড়, তোরা সব জয়ধ্বনি কর, তোরা সব জয়ধ্বনি কর।"
"নাচে ঐ কালবৈশাখী,কাটাবি কাল বসে কি?
দে রে দেখি, ভীম কারার ঐ ভিত্তি নাড়ি।"

তিনি পুরনোকে পিছনে ফেলে নতুনের ডাক দিয়ে বলেছেন- "এল এলরে বৈশাখি ঝড়, ঐ বৈশাখি ঝড় এল এল মহীয়ান সুন্দর।"

"ঝড় এসেছে ঝড় এসেছে কারা যেন ডাকে
বেরিয়ে এলো তরুণ পাতা পল্লবহীন শাখে।
কচি পাতার লাগল নাচন ভীষণ ঘূর্ণিপাকে।
মন মেতেছে আজ নূতনের ঝড়ের মহোৎসবে।"

পহেলা বৈশাখ গীত বিরাজ করে বাঙালির হৃদয়ে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অসংখ্য কবিতা ও গানে উঠে এসেছে বৈশাখের কথা। পহেলা বৈশাখ কেবল রূপের গুনে মুগ্ধ করেই ক্ষান্ত হয়না ভালোবাসার রং রাজ্ঞিয়ে দিয়ে প্রাণে প্রাণে রঙ ছড়িয়ে হারিয়ে যায়। কোকিল দোয়েল আর মৌমাছির প্রাণে প্রেমের ঢেউ শোভিত হয়ে ফুটে উঠে ফুল। কোকিলের কুহু কুহু সুর প্রেমিকার ভালোবাসা স্পর্শতায় আহ্বান করে প্রিয়তমাকে কাছে আসার। তরুন-তরুনী আর কিশোর-কিশোরীর মনে শিহরণ তোলে। রূপ লাবণ্যে জেগে উঠে প্রকৃতি। গাছের পাতা আর ফুলে আলোর নাচন ফুটে কোকিলের কুহুতানে। সবখানে জানিয়ে দেয় আজি নতুন বছর জাগ্রত দ্বারে। বাঙালি উৎসবকে জড়িয়ে রাখেন হৃদয়ের খুব কাছে। এই উৎসবে দেশের প্রতি ভালোবাসা জেগে ওঠে। "আমি তাকডুম তাকডুম বাজাই,

বাংলাদেশের ঢোল, সব ভুলে যাই। তাও ভুলি না বাংলা মায়ের কোল। মা তোমার মাটির সুরে সুরেতে। আমার জীবন জুড়াইলা মাগো বাউল ভাটিয়ালিতে। বাজে ঢোল নরম গরম তালেতে, বিসর্জনের ব্যাথা ভোলায়, আগমনের সুরেতে।

সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা।

লেখক : কথাসাহিত্যিক ও প্রাবন্ধিক।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবে উদ্বোধনী দিনে ‘অন্দরকাহিনী’
  •   প্রথমবারের মতো একসঙ্গে বসছে ইরান ও সৌদি আরব
  •   রাবিতে দুই দিনব্যাপী সংগীত বিষয়ক কর্মশালা শুরু
  •   দিরাইয়ে সিফাত উল্যার ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন
  •   'বঙ্গবন্ধুর খুনীদের পুনর্বাসন করেন জিয়া'
  •   আলো রক্তদান সমাজ কল্যাণ সংস্থা সিলেট জেলার পূর্নাঙ্গ কমিটি
  •   সুনামগঞ্জে মিজান হত্যাকান্ড: আসামি ২৪ জন, আটক ৮
  •   সুবীর নন্দীর চিকিৎসার সার্বক্ষণিক খোঁজ নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
  •   সংস্কৃতি মানুষের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ: মেয়র আরিফ
  •   সুনামগঞ্জে যুবক খুনে মামলা, আসামি ২৪, গ্রেফতার ৮
  •   যুবককে ৭৭ হাজার বার ফোন করে গ্রেফতার তরুণী!
  •   জগন্নাথপুরে কৃষকদের মধ্যে আউশ ধানের বীজ ও সার বিতরণ
  •   ওসমানীনগরে ভাগ্নে বৌকে ধর্ষণ, ভিডিও ধারণ, মামা শ্বশুর গ্রেফতার
  •   জগন্নাথপুরে পাঁচদিন ধরে অন্ধকারে পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকরা
  •   খালেদা প্যারোলে মুক্তি চাইলে সরকার বিবেচনা করবে: তথ্যমন্ত্রী
  • সাম্প্রতিক সাহিত্য খবর

  •   অব্যক্ত মিরা
  •   নুসরাতের অবলা ইচ্ছেগুলো
  •   বিন্দুহীন বৃত্ত
  •   বাংলার ফল
  •   স্বাধীনতা মানুষের মনের একটি খোলা জানলা
  •   জুয়েল সাদতের কবিতার সিডি ‘অনুভবে আলিঙ্গন’র মোড়ক উন্মোচন
  •   নারী
  •   সাতই মার্চের ভাষণ: লুৎফর রহমান রিটন-এর ছড়া
  •   বইমেলায় জাভেদ হাকিমের বই ‘ছুটে যাই প্রকৃতির রাজ্যে’
  •   প্রাচ্য থেকে পাশ্চাত্যঃ স্মৃতি বিস্মৃতির আত্মকথন
  •   বই মেলায় মুস্তফা মনওয়ার সুজনের ‘বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক মতবাদ’
  •   বইমেলায় এফ এম শাহীনের "ছোটদের শেখ হাসিনা"
  •   সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মা’র মোড়ক উন্মোচন
  •   ফারুক মেহেদীর সম্পাদনায় প্রকাশ হচ্ছে ‘গ্লোবাল লিডার শেখ হাসিনা‘
  •   নির্মলাঃ এক করুণ আর্তনাদ