আজ বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ ইং

আবরার-এর আসা-যাওয়া

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১০-০৮ ১৯:২০:৩২

|| ড মোঃ নিজাম উদ্দিন || ৮.১০.১৯

চেহারাটা মলিন কেন? কষ্টে, ঘৃণায় নাকি অভিমানে!
হাতে লালচে দাগ কিসের? মেহেদির!
পিঠে আঁচড় লেগেছে, তাতে কি? ঠিক হয়ে যাবে!
দেখো তোমার বন্ধুরা (!) তোমাকে রাঙ্গাচ্ছে
একটু তো লাগবেই, ভালোবাসা যে অনেক বেশি-
রাতে বন্ধুদের সাথে আড্ডার ঝাঁজ একটু তো কড়া হবেই-
মদের গন্ধ একটু তো তেতো হবেই-
সহ্য করো, ওরা তোমার শুভাকাঙ্ক্ষী!
সকালেই-তো এক সাথে চা খেলে,
দুপুরে মোরগ মাংসের ঝোল-
দেখলে,  তোমার টাকায় ওরা সিগারেট কিনে নিলো-
ওরা বন্ধু-তো ! এ আর কি! রাতের আসর একটু জমজমাট তো হবেই-
তোমার চিৎকারের ঝংকার না হলে চলবে কি করে?
তোমার রক্ত না পেলে আসর রাঙবে কি করে?
একটু সহ্য করো, তুমি তো একাই মেধাবী না!
ওরাও অনেক, না বুঝে তো কিছু করছে না!
তোমার সরলতার প্রায়শ্চিত্ত একটু না হয় বেশিই হচ্ছে-
সহ্য করে যাও। ওরা অনেক রিদমিক,
বুয়েট তো ক্রিয়েটিভ জায়গা, সব কিছুতেই তার ছাপ- 
দেখছো না সারা শরীরে তোমার রঙের ছোপ দিচ্ছে চুপচাপ-
ছন্দের তালে তালে, মদের নেশায় মাতাল ভুলভাল-এ-
প্লেয়ারে মিউজিক বাজছে, এটা তো ভালো-
অন্যেরা তোমার আনন্দ চিৎকারে ডিস্টার্বড যেন না হয়-
সবাই (!) জানে তোমাকে সাজাচ্ছে বিয়ের আসরে-
তুমি না আবরার, জ্ঞান হারাচ্ছো কেনো বারবার?
অপেক্ষা করো, দেখো ওরা বদ্ধপরিকর তোমাকে পাঠাতে পরপার-
ওরা সহপাঠী-তো তোমার! সুখদুঃখের সাথী-ও তোমার!
শরীরের এদিক সেদিক একটু লাল রঙের বিরহ নহর-
তোমার কাছ হতেই বের করে নিচ্ছে-
তুমি একটু বেশি জালাতন করছো,
তাইতো এবার ওরা তোমার মুখে লাজুক রুমাল চেপে ধরছে-
বর হয়েছো একটু তো ফরমালিটি মানতে হবে, কি বলো!
অপেক্ষা করো! দেখো তোমাকে ওরা পাঁচকোলে করে নেবে হলুদ সন্ধায়-
হয়তো সেটা একটু বেশি রাতেই, তোমারা তো একটু বেশিই মেধাবী, তাইনা!
সে দৃশ্য কিন্তু চিত্রায়িত হচ্ছে, ভবিষ্যতের মেধাবীদের ডেমো হিসাবে-
ওরা তোমার বিয়েতে তোমার মা-বাবা সবাইকে দাওয়াত দিয়েছে -
বাবা-মা তো তাই আসতে একটু দেরি হচ্ছে-
ছেলেমেয়েরা একটু আধটু মজা তো করবেই, কি বলো !
তোমার বিদায়ে, নতুন অবয়বে, নতুন ঠিকানায়-
মা চেয়েছিলো ডাক্তার বানাতে, তুমি চাইলে হতে ইঞ্জিনিয়ার-
আজ ইঞ্জিনিয়ার বন্ধুরা তোমাকে সাজিয়ে ডাক্তার এর কাছে পাঠিয়ে দিলো মায়ের ইচ্ছে পুরন করতে-
ডাক্তার সার্টিফিকেট দিলো তোমাকে বিয়ের সাজে অনন্ত-কালের চুরান্ত-বন্ধনের-
ওরাতো একটু কাঁদবেই, ইচ্ছে পুরন হয়েছে যে তাই  আনন্দের কান্না-
পালকিতে করে নিচ্ছে তোমায়, তোমার বাড়ির কাছেই-
যেখানে তোমার পূর্বপুরুষরাও তোমার বিয়েতে সঙ্গী হবে-
তুমি অনেক ভাগ্যবান, তাই না! 
ভেবো না কিছু, তুমি অনেক মেধাবী-
যেখানেই থাকো ভালোই থাকবে, সর্বশ্রেষ্ট  আঁকিয়ে তোমাকে
বেস্ট স্লেট-পেন্সিল-ই দেবেন, 
তখন না হয় নিজেকে-ই সাজিও নতুন করে-
আবরার, তুমি আমাদের মাঝে এসো বারবার-
একটু নেড়ে দিতে এই তথাকথিত সমাজ-সংস্কার-
ঝাঝড়া অভিমানী বুকে, লিখে যেয়ো এক রক্তাক্ত ইতিহাস -
শুদ্ধ করতে এই আবর্জনাময়  দুর্গন্ধে ভরা বাতাস ।।
সিলেটভিউ২৪ডটকম/০৮ অক্টোবর ২০১৯/পিডি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেট জেলা কৃষক লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
  •   বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবে এএসপি রফিকুল হোসেনকে সম্মাননা
  •   ছাত্রলীগ না করে চাকরি করো: ছাতকের ইউএনও
  •   বিশ্বনাথে পপির আত্মহত্যা: র‌্যাব-পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ২
  •   ‘নতুন মিশনে’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন
  •   নিজের নিরাপত্তা চেয়ে যুবলীগ নেতা শামিমের জিডি
  •   বানিয়াচংয়ে নবাগত ওসি রঞ্জন সামন্তের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়
  •   সিরিয়া যুদ্ধে তুর্কি মিত্রবাহিনীর ৪৬ জন নিহত
  •   এস.এম.পি ও রেঞ্জ পুলিশের খেলা গোলশূন্য ড্র
  •   বড় ভাইয়ের নির্দেশে আবরারকে ডেকে এনে মুখে কাপড় দিয়ে মারা হয়: সাদাত
  •   বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ইউনুছ আলী সংবর্ধিত
  •   মোগলাবাজারে বৈদ্যুতিক পোল চুরিকালে সাত জন আটক
  •   জাউয়াবাজার উপজেলা বাস্তবায়নের দাবিতে লন্ডনে সভা
  •   বিদেশ থেকে অবৈধ টাকা আসে ইমরানের কাছে, দাবি প্রাক্তন স্ত্রীর
  •   প্রাথমিকে আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে মন্ত্রণালয়