আজ সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

তিনদিন পর ফের ধরা খেলেন সেই চক্ষু ডাক্তার!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৮-২৩ ২১:২৩:৫৯

সিলেটভিউ ডেস্ক :: মাত্র তিনদিন আগে র‌্যাবের অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়ে এক লাখ টাকা জরিমানা দিয়েছেন তিনি। তিনদিন পর আবারও একই অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হলেন তিনি।

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলা শহরের বিভিন্নস্থানে ভুয়া সাইনবোর্ড টানিয়ে প্রতারণা করে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছিল মোজাম্মেল হক নামে এক ভুয়া চক্ষু চিকিৎসক। গত সোমবার কেন্দুয়া উপজেলার রামপুর বাজারে মায়ের দোয়া ফার্মেসি থেকে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার একই ব্যক্তিকে কেন্দুয়ার একটি ফার্মেসি থেকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এক লাখ জরিমানা করেছেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিরীন সুলতানা উপজেলার রামপুর বাজারে মায়ের দোয়া ফার্মেসির চেম্বার থেকে মোজাম্মেল হক নামে এক চক্ষু চিকিৎসককে তার ডাক্তারি কাগজ পত্র দেখাতে বললে তা দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে।

কিন্তু সেই ভুয়া চিকিৎসক বাড়িতে বসে না থেকে আবারও বৃহস্পতিবার চক্ষু রোগী দেখার জন্য কেন্দুয়া পৌর সদরে কেন্দুয়া ফার্মেসির চেম্বারে তিনি একজন এমবিবিএস ডাক্তারকে সঙ্গে করে নিয়ে চক্ষু রোগীদের ব্যবস্থা পত্রে নিজেকে আবার চক্ষুু চিকিৎসক হিসেবে উল্লেখ করেন।

এ সময় খবর পেয়ে কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল-ইমরান রুহুল ইসলাম তাকে আটক করে জানতে চাইলে তিনি বলেন রোগী দেখছেন না, শুধু ভিশন টেস্ট করছেন কিন্তু দেখা গেল, ভিশন টেস্ট করে প্রদত্ত ব্যবস্থা পত্রে নিজেকে ‘চক্ষু চিকিৎসক’ হিসেবে উল্লেখ করছেন।

এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট তাকে প্রশ্ন করলে তিনি স্বীকার করলেন, ভুল হয়েছে, বুঝতে পারেননি। তাই ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০এর ২৮(১)২৯(১) ধারার অপরাধে পুনরায় এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড আরোপ করেন। পরে এ ভুয়া চিকিৎসক নগদ এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়ে চলে যান। তিনি উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের বহুলী গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে।


সৌজন্যে : জাগোনিউজ২৪

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৩ আগস্ট ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেট মহানগর ছাত্রদল নেতা রুবেলের বাসায় খন্দকার মুক্তাদির
  •   সরকারে মিশে গেছে সিলেট আওয়ামী লীগ
  •   গোলাপগঞ্জ উপজেলার সনাতন ধর্মালম্বীরা জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান
  •   বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি পদে সিভি জমা দিলেন জাকির
  •   বড়লেখায় কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিলো তালামীয
  •   টেস্টের পর টি-টোয়েন্টিতেও আফগানদের কাছে হারল বাংলাদেশ
  •   টিম জেড পয়েন্ট সিলেট’র আনন্দ আয়োজন
  •   ওআইসির বৈঠকের মধ্যেই জর্ডান উপত্যকা দখলের অনুমোদন ইসরাইলের
  •   এবার তালেবানদের সঙ্গে বৈঠক করল রাশিয়া
  •   সিলেট জেলার শ্রেষ্ঠ তদন্ত অফিসার হলেন এসআই রাজীব
  •   কমলগঞ্জে পুলিশের সুধী সমাবেশ
  •   একটি ছাগলের ৮টি ছানা প্রসব!
  •   শাবির সমাজকর্ম বিভাগের ফিল্ড প্রাক্টিকামের ওরিয়েন্টেশন
  •   টুকেরবাজারে ট্রাফিক পুলিশের অ্যাকশন
  •   শ্রীমঙ্গলে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সদর
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   একটি ছাগলের ৮টি ছানা প্রসব!
  •   প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ
  •   ছেলে আমার সহজ-সরল, সে পরিস্থিতির শিকার: শোভনের বাবা
  •   কমিশন কেলেঙ্কারিতে ফেঁসে যাচ্ছেন জাবি উপাচার্য
  •   এরা শোভন-রাব্বানীর চেয়েও খারাপ: শেখ হাসিনা
  •   ‘এনআরসি নিয়ে উদ্বেগ থাকলেও ভারতকে বিশ্বাস করতে চাই’
  •   পুলিশ বাহিনী নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করছে: প্রধানমন্ত্রী
  •   কুমিল্লায় বাসচাপায় ৩ ছাত্রলীগ নেতা নিহত
  •   বোমা নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে কব্জি উড়ে গেল সিলেটের শহিদুল ইসলামের
  •   ১৭ লাখ ৯০ হাজার টাকার জাল নোটসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক
  •   রাজশাহীর সারদায় পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
  •   শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে কাঁচপুর রণক্ষেত্র
  •   ভুল সংশোধনের কথা বলে লিখে নিল ১৩ শতক জমি
  •   পংকজ দেবনাথের নামে অশ্লীল ভিডিও: গ্রেফতার ২
  •   মন্ত্রিত্ব গেলে আবার সাংবাদিকতায় ফিরব: ওবায়দুল কাদের