আজ মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং

প্রেম যেন সহিংসতায় রূপ না নেয় : বিচারক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১০-১০ ১৭:২০:২৬

সিলেটভিউ ডেস্ক :: রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ একমাত্র আসামি ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ওবায়দুলের ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়।

এ হত্যা মামলার রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারক ইমরুল কায়েশ বলেন, ঘটনাটি একটি অসম প্রেম বলে মনে হয়েছে। ভালোবাসা যেন সহিংসহতায় রূপ নিতে না পারে সে জন্য আসামির সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড দেওয়াই শ্রেয়।

তিনি আরও বলেন, ওবায়দুল হচ্ছেন একজন টেইলার, রিশার বাবা একজন ব্যবসায়ী। সে ভালোবাসতে পারে কিন্তু ভালোবাসা যেন এমন সহিংসতায় রূপ নিতে না পারে।

এদিকে ঘাতক ওবায়দুলের মৃত্যুদণ্ডের রায়ের খবরে আদালত চত্বরে কান্নায় ভেঙে পড়েন রিশার মা। তিনি বলেন, ‘রায়ে আমি খুশি। ফাঁসির রায় যেন দ্রুত কার্যকর করা হয়। আমার মতো যেন আর কোনো মায়ের কোল খালি না হয়।’

অন্যদিকে রায় শোনার জন্য আদালতে উপস্থিত ছিল উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা। রায় শুনে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং রায় দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, পাঁচ-ছয় মাস আগে রিশা ও তার মা তানিয়া ইস্টার্ন মল্লিকা মার্কেটে বৈশাখী টেইলার্সে কাপড় সেলাই করাতে যান। এ সময় তার মা ওই দোকানের রসিদের রিসিভ কপিতে ফোন নম্বর দিয়ে আসেন। ওই টেইলার্সের কর্মচারী ওবায়দুল রিসিভ কপি থেকে ফোন নম্বর নিয়ে রিশাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বিরক্ত করতো। রিশার মা এ বিষয়ে ওবায়দুলকে সতর্ক করেন।

২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট রিশা ও তার বন্ধু মুনতারিফ রহমান রাফি পরীক্ষা শেষে কাকরাইল ওভারব্রিজ পার হওয়ার সময় ওবায়দুল রিশাকে আবারও প্রেমের প্রস্তাব দেয়। রিশা তা প্রত্যাখ্যান করলে ওবায়দুল তাকে ছুরিকাঘাত করে।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় রিশাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ আগস্ট মারা যায় রিশা।

ছুরিকাঘাতের ঘটনায় ২৪ আগস্ট রিশার মা তানিয়া হোসেন বাদী হয়ে রমনা থানায় একটি মামলা করেন। পরে মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়।

২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর ওবায়দুলকে একমাত্র আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলী হোসেন।

২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল ঢাকা মহানগর অষ্টম অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবুল কাশেম আসামি ওবায়দুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। মামলায় ২৬ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ২২ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে।


সৌজন্যে : জাগোনিউজ২৪
সিলেটভিউ২৪ডটকম/১০ অক্টোবর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   নামাজ না পড়লে বেতন কাটার সেই নোটিশ বাতিল করল গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ
  •   সমাজসেবা অধিদপ্তরে নিবন্ধিত হলো গোলাপগঞ্জ চ্যারিটি ক্লাব
  •   অনুমান করেই দেওয়া হয় খাদ্যপণ্যের মেয়াদ!
  •   বাংলাদেশের স্পিন ভয়ঙ্কর: চাকাবা
  •   মাইনাস ৪৫ ডিগ্রিতে স্বল্পবস্ত্রে বরফের মধ্যে ধ্যানমগ্ন সাধু
  •   সিলেটের ওসমানী বিমানবন্দরে বসছে অত্যাধুনিক বডি স্ক্যানার
  •   প্রতি কেজি লবণ ৪ টাকা, মাঠ ছাড়ছেন চাষিরা
  •   কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল আর নেই
  •   শুভ সকাল, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০
  •   বালাগঞ্জে রিক্সার ধাক্কায় দুই এসএসসি পরীক্ষার্থী আহত
  •   সিলেটে একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনী সমাপ্ত
  •   বইমেলায় বেরিয়েছে আতাউর রহমান আফতাবের কাব্যগ্রন্থ ‘তারুণ্যে’
  •   সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ব্যাডমিন্টনের পুরস্কার বিতরণ
  •   সিলেটের অপরাধ জগতে আতঙ্ক
  •   নিপুণ রায়কে জাসাস অস্টেলিয়া শাখার অভ্যর্থনা
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   নামাজ না পড়লে বেতন কাটার সেই নোটিশ বাতিল করল গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ
  •   অনুমান করেই দেওয়া হয় খাদ্যপণ্যের মেয়াদ!
  •   প্রতি কেজি লবণ ৪ টাকা, মাঠ ছাড়ছেন চাষিরা
  •   বান্ধবিকে নিয়ে জুনিয়রকে মারধর করলেন ছাত্রলীগের নেতা
  •   গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা কেন পারবো না: পরিকল্পনামন্ত্রী
  •   ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ
  •   মাকে কুপিয়ে হত্যা, পালানোর সময় মেয়ে গ্রেফতার
  •   সব বিমানবন্দরে ভাইরাস শনাক্তে স্ক্যানার দেবে কোরিয়া
  •   বাংলাদেশ-মিয়ানমারের বিরোধ স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মতো: চীনা রাষ্ট্রদূত
  •   ঢাকা মেডিকেল কলেজের ছাত্র এখন ৫০ টাকার শ্রমিক!
  •   বাংলাদেশ থেকে দক্ষ কর্মী নিতে আগ্রহী কাতার: শাহরিয়ার আলম
  •   ৫ বছরের মধ্যে মাটির নিচে যাবে সিলেটসহ দেশেরসকল বিদ্যুৎ লাইন
  •   পরীক্ষার হলে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মাথা ফাটালেন শিক্ষক
  •   স্বপ্নের মেট্রোরেলের ১ম কোচ ঢাকায়
  •   খাবার দিতে দেরি হওয়ায় ভেঙে গেল শাবনুরের বিয়ে