আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ ইং

সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছেন ১২ শতাধিক পর্যটক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-০৮ ২০:০৮:০৫

সিলেটভিউ ডেস্ক :: সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছেন ১২ শতাধিক পর্যটক। শুক্রবার টেকনাফ-সেন্টমার্টিন রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় পর্যটকরা আটকা পড়েন।

বৃহস্পতিবার ও তার আগে থেকে প্রবাল দ্বীপ ভ্রমণে যাওয়া পর্যটকরা সেখানে আটকা পড়েন।

নিম্নচাপ থেকে ‘বুলবুল’ ঘুর্নিঝড়ে পরিনত হয়ে উপকূলের দিকে ধেয়ে আসায় আবহাওয়া অধিদফতর বৃহস্পতিবার বিকালেই ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত জারি করেছিল। শুক্রবার এ সংকেত ৪ নম্বরে উন্নীত হয়েছে।

ঘুর্নিঝড়ের প্রভাবে ইতিমধ্যে সাগর উত্তাল হতে শুরু করেছে। এ কারণে জাহাজ চলাচল বন্ধের এ সিদ্ধান্ত নেয় জেলা প্রশাসন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, দ্বীপে এক হাজারের বেশি পর্যটক আটকা পড়েছেন। পর্যটকদের যাতে কোনো অসুবিধা না হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। আটকা পড়া পর্যটকদের সুলভমূল্যে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করতে হোটেল-মোটেল ব্যবসায়ীদের প্রতি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হয়ে আসলে পর্যটকদের ফিরিয়ে আনা হবে।

তিনি জানান, ঘুর্ণিঝড় মোকাবেলায় উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সাইক্লোন শেল্টার সমুহ প্রস্তুত রাখা ও জেলেদের সাগরে যাওয়া থেকে বিরত রাখাসহ যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ টেকনাফ অফিস সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার টেকনাফের দমদমিয়া জেটিঘাট থেকে আড়াই হাজারের মতো পযর্টক সেন্টমার্টিন বেড়াতে যায়। প্রায় এক হাজারের মতো পর্যটক রাতে দ্বীপে অবস্থান করেন। দুই শতাধিক পর্যটক আগে থেকে সেখানে অবস্থান করছিলেন।

পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারি আটলান্টিক ক্রুজের ব্যবস্থাপক আবদুল আজিজ গণমাধ্যমকে বলেন, সমুদ্র উত্তাল থাকায় টেকনাফ থেকে কোনো জাহাজ দ্বীপে যায়নি। দ্বীপে বেড়াতে গিয়ে অনেক পর্যটক আটকা পড়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে।

সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আজমীর ইলাহি বলেন, কোনো পর্যটক যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর আহম্মদ বলেন, পর্যটকদের ভালোমন্দ খোঁজখবর রাখা হচ্ছে। হোটেলে যাতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় না করে সেজন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশপাশি বৈরী আবহাওয়ায় কোনো পর্যটক যাতে সমুদ্রে গোসল করতে না নামেন, সে বিষয়ে বিচ কর্মীদের সর্তক করা হয়েছে।


সৌজন্যে : যুগান্তর
সিলেটভিউ২৪ডটকম/৮ নভেম্বর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন