আজ শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ ইং

পেঁয়াজশুন্য ধামরাই, লিফলেটে দাম ৬০ টাকা!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-২২ ১৮:৩৮:৫৯

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ‘কাজীর গরু যেমন কিতাবে আছে, গোয়ালে নেই।’ এ প্রবাদটির সত্যতা মিলেছে ঢাকার ধামরাইয়ের হাটে-বাজারে।

ঢাকার ধামরাইয়ে কোনো হাটবাজারে পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে না। অথচ লিফলেটে পেঁয়াজের দাম শোভা পাচ্ছে মাত্র ৬০ টাকা।

নিয়ন্ত্রণহীন পেঁয়াজের বাজারে লাগামহীন দামে সাধারণ মানুষ বিষিয়ে উঠে তখন ৩০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজের দাম বেঁধে দেয়া হয় মাত্র ৬০ টাকা।

নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রশাসন থেকে এ মূল্য নির্ধারণ করে পুরো এলাকায় লিফলেট বিতরণ ও দেয়ালে দেয়ালে পোস্টারিং করা হয়।

এ পরিস্থিতিতে পেঁয়াজ বিক্রেতারা দোকান ও আড়ত থেকে রাতারাতি পেঁয়াজ সরিয়ে ফেলে। ফলে পেঁয়াজশুন্য হয়ে পড়ে ধামরাই পৌরশহরসহ উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের হাটবাজার।

শুক্রবার পৌরশহর ও উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের সমস্ত হাটবাজার ঘুরে দেখা গেছে, শত শত ক্রেতা পেঁয়াজ কিনতে এসে না পেয়ে খালি হাতে ফিরে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পৌরশহরের ইসলামপুর কাঁচা বাজারের দোকানদার মো. মজিবর রহমান বলেন,পাইকারি বাজার থেকে ১৬০-১৮০ টাকা দরে পেঁয়াজ কিনতে হয়। কথার সঙ্গে কাজের কোনো মিল নেই। আমরা এখনও কম দামের পেঁয়াজের নাগাল পাইনি। বেশি দামে কিনে তো আর এত টাকা লোকসান দিয়ে বিক্রি করতে পারব না।

তিনি বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা পেঁয়াজের দাম ৬০ টাকা বেঁধে দিয়ে লিফলেট বিতরণ ও ওয়ালে ওয়ালে পোস্টার লাগিয়েছে। ভোক্তা অধিকার আইনে জেল জরিমানার ভয়ে পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছি।

পৌর মেয়র গোলম কবীর মোল্লা বলেন, পেঁয়াজের মজুদ থাকতেও অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে ২৫০-৩০০ টাকায় বিক্রি করে বাজার অস্থিতিশীল করে ফেলে। তাই বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম ৬০ টাকা নির্ধারণ করে জনগণের অবহতির জন্য লিফলেট বিতরণ ও দেয়ালে দেয়ালে পোস্টার লাগানো হয়েছে।


সৌজন্যে :: যুগান্তর
সিলেটভিউ২৪ডটকম/২২ নভেম্বর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন