আজ শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং

ধানে নয়, খড়ের দামে খুশি কৃষক!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০১-২১ ২১:০৪:২৫

সিলেটভিউ ডেস্ক :: বেশ কয়েক মৌসুম ধরে ধানের সঙ্গে খড়ও বিক্রি হচ্ছিল পানির দরে। দাম না থাকায় ধান ও খড় দুটো যেন ছিল কৃষকের বেদনার কারণ।

তবে এবার দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর অবস্থা। ধানে না হোক, খড়েই সেই বেদনা দূর করছে রাজশাহীর তানোর উপজেলার কৃষকেরা।

এ অঞ্চলে হঠাৎ খড়ের (গো-খাদ্য) বাজার চাঙা হয়ে উঠেছে। মাত্র এক সপ্তাহ আগেও এক হাজার মুটি খড়ের মূল্য ছিল ৯০০ থেকে এক হাজার টাকা। সেই খড়ের মূল্য বর্তমান বাজারে ৫ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এক হাজার খড়ের দাম পাঁচ হাজার টাকায় ঠেকেছে। প্রতি পিস (শলা) খড় বিক্রি হচ্ছে পাঁচ টাকা দরে। হঠাৎ খড়ের বাজার চাঙা হওয়াই খুশি কৃষকরা।

কৃষকরা জানান, আগে কোনো কারণে ধানে লোকসান হলে অনেকটা খড়ে পুষিয়ে যেত। কিন্তু টানা কয়েক মৌসুমে ধানের সঙ্গে খড়ের মূল্য সর্বনিম্ন পর্যায়ে চলে গিয়েছিল। খড় ও ধানের দর না পেয়ে কৃষকরা অনেক ক্ষতিতে পড়েছিল। চলতি আমন মৌসুমেও পানি দরে খড় বিক্রি হয়েছে। এখন হঠাৎ করে খড়ের দাম উঠায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবে বলে আশা করছেন তারা।

এদিকে তানোর অঞ্চলের গ্রামে গ্রামে প্রতিদিন খড় ক্রয় করতে ট্রাক, লছিমন, করিমন, ভটভটি ও টলি নিয়ে বিভিন্ন জেলা থেকে চলে আসছেন গো-খামারী ও ব্যবসায়ী। বেশিভাগ জেলা শহর আসছেন- পাবনা, সিরাজগঞ্জ, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর জেলা থেকে।

শুধু গো-খামারী নয়, তামাক চাষীরা ক্রয় করছেন খড়। তাই খড়ের চাহিদা বেড়ে দাম চার থেকে পাঁচ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

তানোর পৌর এলাকার আমশো গ্রামের কৃষক মুকসেদ আলী জানান, তার প্রায় ৬০ বিঘা জমির আমনের খড় ছিল। মাত্র ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা হাজার বিক্রি হচ্ছিল। দাম না থাকায় আগে বিক্রি করেননি। গত শনিবার থেকে প্রতি হাজার খড় বিক্রি করছেন ৪ হাজার ৮০০ টাকায়।

তিনি আরও জানান, বেশ কয়েক মৌসুম থেকে ধান চাষে প্রতি বিঘায় আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার টাকা লোকসান হচ্ছে। এই লোকসান এখন খড়ে পুষিয়ে যাচ্ছে।

শুধু মোকসেদ আলী নয় একই কথা জানান জিওল গ্রামের কৃষক মোজাহার মন্ডল ও হাবিবুর রহমান ছাড়া আরও অনেকে।

তারা আরও জানান, এই অঞ্চলের কৃষকেরা ধানের দাম না পেলে খড়ে তা পুষিয়ে নিতেন। কিন্তু কয়েক বছর ধরে ধানের সঙ্গে খড়ও পানির দরে বিক্রি হয়ে আসছিল।

এ ব্যাপারে তানোর উপজেলা কৃষি অফিসের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সমশের আলী গণমাধ্যমকে বলেন, এবারে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর অবস্থা। ধানে না হোক, খড়ে ই সেই বেদনা দূর করছে রাজশাহীর তানোর উপজেলার কৃষকরা।

সৌজন্যে :: যুগান্তর
সিলেটভিউ২৪ডটকম/২১ জানুয়ারি ২০২০/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   পাপিয়া যুব মহিলা লীগের ৩ নেত্রীসহ যাদের কথা বলেছেন
  •   ওসমানীনগরে আবাসিক ভবনে অগ্নিকান্ড
  •   ১৬ হাজার কোটি টাকা হারালেন বিনিয়োগকারীরা
  •   ভারতের মুসলিম গণহত্যার প্রতিবাদে দরবস্তে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ-মিছিল
  •   ২০০ আদিবাসী তরুণীর একসঙ্গে বিয়ে দেবেন মমতা
  •   ইউরোপমুখী শরণার্থীদের সীমান্ত খুলে দিয়েছে তুরস্ক
  •   ভারত-ছাড়ার নোটিস: বাংলাদেশি ছাত্রীর পক্ষে লড়বেন শিক্ষকরা
  •   এনামুল-রূপনের টাকার আরও ৩০ গুদাম!
  •   বিশ্বনাথের টেংরা গ্রামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন
  •   একাধিক পুরুষের সাথে অভিনেত্রী তানিন সুবহার অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস
  •   সিলেটে বাংলাদেশের ভাবনায় শুধুই জয়
  •   বিশ্বনাথে রামপাশা ইউনিয়ন ক্রিকেট লীগে জননী ক্লাব চ্যাম্পিয়ন
  •   দোয়ারাবাজারে নদীতে ডুবে যুবকের মৃত্যু
  •   মুসলিমবিশ্বকে নিয়ে ক্রিকেটার রুবেলের স্ট্যাটাস, চলছে তুমুল আলোচনা
  •   গোয়াইনঘাটের কচুয়ারপার উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সভা অনুষ্ঠিত
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   পাপিয়া যুব মহিলা লীগের ৩ নেত্রীসহ যাদের কথা বলেছেন
  •   ১৬ হাজার কোটি টাকা হারালেন বিনিয়োগকারীরা
  •   এনামুল-রূপনের টাকার আরও ৩০ গুদাম!
  •   রেট মিললে রুশ ও থাই সুন্দরীদের দেশে আনতেন পাপিয়া
  •   এবার একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুধু অনলাইনে
  •   মামাকে ''নানা'' দেখিয়ে ফাঁসলেন কৃষি কর্মকর্তা
  •   কৃষক বাবা-মায়ের শখ পূরণ করলেন ইঞ্জিনিয়ার ছেলে
  •   অবিলম্বে মোদির রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ বাতিলের দাবি আহমদ শফীর
  •   রিমান্ডে বসেই ব্যবসায়ীকে হুমকি সুমন-পাপিয়ার
  •   ডায়াবেটিস ‘নিয়ন্ত্রণে’ পাট পাতার পানীয়, নেয়া হচ্ছে প্রকল্প
  •   বিশ্বের ৮০ শতাংশ ইলিশ আহরণ হচ্ছে বাংলাদেশে
  •   ভিসা হওয়ার পরও আটকে গেলেন ১০ হাজার ওমরাহ যাত্রী
  •   আপাতত বাংলাদেশিরা ওমরাহ করতে যেতে পারবেন না
  •   বিদ্যুতের দাম আবারও বাড়ছে
  •   বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ