আজ মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১ ইং

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় অপহরণ, মামলা করতেই ২০ দিন পার

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২১-০২-২৩ ২০:৪৬:৩৩

সিলেটভিউ ডেস্ক ::  রাজধানীর ডেমরায় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় অপহরণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু (১৮) এক ছাত্রী অপহরণ হয়েছে। এরপর থানা ও আদালতের কার্যক্রম শেষ করতেই চলে যায় ২০ দিন।

সোমবার রাতে ভুক্তভোগীর মা ডেমরা থানায় আদালতের নির্দেশে জড়িত ৬ জনকে আসামি করে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন।

আসামিরা হলেন- ডেমরার সারুলিয়া তালতলা মসজিদ রোড এলাকার রওশন সাহেবের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত শফিকুল ইসলামের ছেলে অপহরণকারী মো. রুহুল আমিন (২৬) ওরফে হিমু, সহযোগী তার বড় ভাই হিমেল (৩৩) ও তার বোন হোসনে আরা বেগম, একই এলাকার আমতলার কাওসার আহম্মেদ বাবুর বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত হারুন মিয়ার ছেলে মো. বিপ্লব (২৮), বাহির টেংরা তালতলা রোড এলাকার মো. হাসান মিয়ার ছেলে মো. রবিন হোসেন (২৫) ও বাহির টেংরা আমতলা রোড এলাকার মৃত কুদ্দুস মিয়ার বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল কাদিরের ছেলে কাজী রুবেল (৩০)।

মামলার বাদী জানান, তার মেয়েটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য বাড়ির পাশেই কোচিং করত। কোচিংয়ে যাওয়া আসার পথে প্রতিনিয়ত হিমু সংঘবদ্ধভাবে মেয়েটিকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করত।

এ বিষয়ে হিমুকে ব্যক্তিগত ও তার পরিবারকে বিষয়টি জানিয়েও কোনো সুরাহা পায়নি। এদিকে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হিমু ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৩ ফেব্রুয়ারি বিকালে মেয়েটিকে পরিকল্পিতভাবে তার সহযোগীদের নিয়ে অপহরণ করে।

ভুক্তভোগীর পরিবার পরদিন ৪ ফেব্রুয়ারি থানায় জিডি করেন। এরপর মামলা দায়েরের জন্য গেলে থানা থেকে তাদের বলা হয়, যেহেতু মেয়ের বয়স ১৮; তাই আদালত থেকে অনুমতি আনার জন্য। পরে অপহরণের ২০ দিন পর সোমবার রাতে আদালতের নির্দেশে জড়িত ৬ জনকে আসামি করে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীর মা।   

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডেমরা থানার এসআই মো. মোজাম্মেল হক বলেন, অপহৃতকে উদ্ধারসহ আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।



সিলেটভিউ২৪ডটকম/ যুগান্তর /জিএসি-২৭

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন