আজ শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ইং

ভারতের পানিতে বাংলাদেশে বন্যা: বিএনপি

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৭-২৭ ১৪:৫৬:০১

সিলেটভিউ ডেস্ক :: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ভারত অভিন্ন নদীগুলোর সকল বাঁধ-ব্যারেজের গেট খুলে দেওয়ায় উজান থেকে নেমে আসা বন্যার পানিতে বাংলাদেশের ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, মেঘনা, মহানন্দা, পদ্মা, তিস্তা ও ধরলা নদীর অববাহিকায় ৩৪টি জেলা ইতোমধ্যেই প্লাবিত হয়েছে। কয়েকটি জেলায় ১ মাসের মধ্যে ২/৩ বার বন্যার পানি উজান থেকে এসে বাড়ি-ঘর, ফসলের খেত ভাসিয়ে নিয়ে গেছে।

সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুরে উত্তরার নিজ বাসা থেকে ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকার যেমন একবারেই ব্যর্থ, চরম উদাসীন, অবহেলা ও দুর্নীতির কারণে গোটা পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে।ঠিক তেমনি বন্যার বিষয়েও সরকারের নীরবতা, নিষ্ক্রিয়তা, মানুষকে আতঙ্কিত করেছে। একজন মন্ত্রীতো বলেই ফেললেন ‘বন্যার বিষয়ে এতটুকুও চিন্তিত নই’।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ভারতের সঙ্গে যে অভিন্ন নদী প্রায় ১৫৪টি একমাত্র পদ্মার ফারাক্কা বাঁধ ব্যতীত কোনোটারই পানি বণ্টন চুক্তি ভারতের অনীহার কারণে সম্পন্ন হয়নি। তিস্তার চুক্তির কথা ফলাও করে সরকার প্রচার করলেও গত এক দশকে কোনো চুক্তিই করতে সক্ষম হয়নি তারা। অথচ একের পর এক ট্রানজিট, বন্দর ব্যবহার, বিদ্যুৎ ক্রয়সহ অসংখ্য অসমচুক্তি স্বাক্ষর করেছে। অন্যদিকে সীমান্তে প্রায় প্রতিদিন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বাংলাদেশিদের গুলি করে হত্যা করছে। সে ব্যাপারেও সরকার কোনো কার্যকরী প্রতিবাদ জানাতে সাহস পায়নি।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৭ জুলাই ২০২০/বিডিপ্রতিদিন/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন