আজ রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯ ইং

চাল রফতানির বাজার খুলছে ফিলিপাইনে

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৭-১৫ ১৮:৩১:০১

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ফিলিপাইনে সিদ্ধ চাল রফতানির বাজার খুলছে। বাংলাদেশের চাল কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে দেশটি। সোমবার (১৫ জুলাই) সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ফিলিপাইনের সরকারের পক্ষে একটি প্রতিনিধি দল চাল কেনার আগ্রহের কথা জানান। এ সময় চাল রফতানিকারকরাও উপস্থিত ছিলেন।

দেশের কৃষকদের উৎপাদিত ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে সরকার ইতোমধ্যে চাল রফতানির অনুমতি দিয়েছে।

বৈঠক শেষে কৃষিমন্ত্রী বলেন, এবার বাংলাদেশে চালের উৎপাদন, বিশেষ করে বোরোর উৎপাদন বেশ হয়েছে। বিগত কয়েকটি সিজন আউশ-আমন... আমনে এক কোটি ৪০ লাখ টন টার্গেট ছিল, উৎপাদন হয়েছে এক কোটি ৫৩ লাখ টন। এখন আমাদের অনেক মিলার-ব্যবসায়ীর গুদামে যথেষ্ট চাল রয়েছে।

‘এবার বোরোতে উৎপাদন ভালো হওয়ায় অস্বাভাবিকভাবে চালের দাম কমে যায়। আমার বলতে কোনো দ্বিধা নাই, এ মুহূর্তেও চালের দাম খুবই কম। এজন্য আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। আমাদের কৃষকরা-চাষীরা ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না। ধান চাষাবাদ করে তাদের কোনো লাভ হচ্ছে না। এই পরিপ্রেক্ষিতে সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, কিছু চাল আমরা বিদেশে রফতানি করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ ফিলিপাইন থেকে একটি পার্টি এসেছে। তারা চালের আমদানিতে সে দেশের সরকারকে সহযোগিতা করেন। দেশটির সরকারও বলছে, তারা জি-টু-জি (সরকার-টু-সরকার) মাধ্যমে চাল কিনতে পারে। তারা কয়েক দিন যাবৎ বিভিন্ন মিলে গিয়েছে, মান দেখেছে। তারা বলেছে, বাংলাদেশে চালের গুণগত মান ভালো।’

‘ফিলিপাইনের মানুষ সিদ্ধ চাল খায়। সেটাও আমাদের জন্য ফেভারেবল। কাজেই দেশটিতে সহজেই চাল বিক্রি করা যাবে। আমাদের কিছু মিলারের সাথে আলাপ-আলোচনা করেছে, তারা মনে করেছে দামও মোটামুটি রিজান্যাবল। ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড তো মূল রফতানিকারক, তাদের দামের তুলনায় আমাদের চালের যে কোয়ালিটি তাতে দাম মোটামুটি ভালো হবে।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বেলজিয়ামের এক ভদ্রলোক তিনি ফিলিপাইনে থাকেন, উনি চালের জন্য আমাদের সাথে দেখা করতে এসেছেন। কাল তারা বাণিজ্যমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছে। আমাদের মধ্যে খুব ভালো আলোচনা হয়েছে। আমার কাছে মনে হয় খুব তাড়াতাড়ি আমরা ভালো ডিল করতে পারব রফতানির ব্যাপারে।’

কী পরিমাণ রফতানি করা যাবে- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি, এ মুহূর্তে বাংলাদেশ চালের উদ্বৃতে আছে। দশ লাখ টন চাল রফতানি করলেও আমাদের কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ, যেকোনো সময় বন্যা হতে, প্রাকৃতিক দুর্যোগ হতে পারে। সে পরিপ্রেক্ষিতে আমরা গ্রাজুয়ালি যাব। যেমন- আমরা এখন দুই লাখ টন দিয়েছি। আরও যদি চাহিদা আসে আমরা পাঁচ লাখ করব। এভাবে আস্তে আস্তে যাব।’

‘তারা এখন এক লাখ টন নিতে চাচ্ছে। ফিলিপাইন সরকারও (সরকার-টু-সরকার) আমাদের সরকারের কাছ থেকে চাল কিনে নিতে চাচ্ছে।’

তারা আমাদের মেসেজ দিয়েছে, ফিলিপাইন সরকার আগ্রহী, আমরা যদি রাজি থাকি তাহলে আমাদের আমন্ত্রণ করবে বা তারা আসবে।

ফিলিপাইন কোন ধরনের চাল নিতে চায়- জানতে চাইলে চাল রফতারিকারক ও রশিদ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রশিদ বলেন, ‘মাঝারি ধরনের আটাশ ও ঊনত্রিশ চালের ডিমান্ড তাদের বেশি। সাথে সাথে হয়তো মিনিকেটও কিছু করা যেতে পারে।’

দামের বিষয়ে জানতে চাইলে- এ ব্যবসায়ী বলেন, ‘তারা যে প্রাইস বলেছে, সরকার যদি সহায়তা না করে তা হলে তাদের প্রাইসের সঙ্গে সমন্বয় করা কঠিন হয়ে যাবে। কারণ অন্যান্য দেশে চালের দাম এখনও অনেক কম। আমাদের যে উদ্দেশ্য সেটা যদি বাস্তবায়ন করতে হয়, সেই বিষয়ে সরকারকেও সক্রিয়ভাবে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই সার্থক হবে।’

চাল রফতানি করলে কৃষক পর্যায়ে কী প্রভাব পড়বে- এমন প্রশ্নের জবাবে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘যদি পাঁচ লাখ টন চাল রফতানি করতে পারি অবশ্যই দামের ওপরে প্রভাব পড়বে। আমরা বলেছিলাম, তাই দামের ওপর প্রভাব পড়েছে। আবার দাম কমার দিকে।’

সাধারণ মানুষ চাপের মধ্যে পড়বে কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘না, সাধারণ মানুষ কোনো চাপের মধ্যে পড়বে না। কোনোক্রমেই কোনো চাপের মধ্যে পড়বে না।’

বন্যায় ফসলের তেমন কোনো ক্ষতি হবে না

দেশজুড়ে এখন বন্যা হচ্ছে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘এ বন্যা এমন কোনো বন্যা না। বাংলাদেশ বন্যা-খরার দেশ। আমরা ছোটবেলা থেকে পড়েছি, বন্যা আমাদের জন্য আশীর্বাদ, আবার খুব খারাপ হলে অভিশাপ।’

‘আমাদের বন্যার দরকার আছে দুটি কারণে। আমার যে সেচ ব্যবস্থায় গেছি, এখন নিচ থেকে পানি তুলে খরচ করছি। নতুন ব্যবস্থা পূরণ করতে হলে, বন্যা না হলে, বৃষ্টি না হলে এটা কীভাবে হবে? পানির স্তর আস্তে আস্তে নিচে নেমে যাচ্ছে। আরেকটা হলো, বন্যার পানির সাথে অনেক পলি মাটি আসে, যেটার মধ্যে অনেক নিউট্রিয়েন্ট, অনেক সার আছে। এটাকে ছোট করে দেখার কোনো কারণ নেই’- বলেন আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চাই না বন্যায় আমাদের ক্ষতি হোক, কিন্তু আমরা সবসময় মনে করি স্বাভাবিক বন্যা আমাদের জন্য আশীর্বাদ, আমাদের চাষীদের জন্য কল্যাণ-মঙ্গলজনক।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘এ মুহূর্তের বন্যায় তেমন কোনো ক্ষতি হবে না। মাঠেও তেমন কোনো ফসল নেই।’


সৌজন্যে : জাগোনিউজ২৪

সিলেটভিউ ২৪ডটকম/১৫ জুলাই ২০১৯/গআচ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   আলো জ্বলে না আম্বরখানা-বিমানবন্দর সড়কে
  •   ছাত্রদলের কাউন্সিল: সিলেট থেকে ভোটার ৩৫ জন
  •   সিলেটে এরশাদের চল্লিশা পালনের লক্ষ্যে জেলা জাপার জরুরি সভা
  •   উপশহরে আগুনের গুজব!
  •   কানাইঘাট স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের শিক্ষা সম্মেলন সম্পন্ন
  •   বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস লন্ডন মহানগর শাখার ঈদ পূণর্মিলনী
  •   নতুন কাপড়ের জন্য নাঈমকে খুন করেছিল রুকন ও পারভেজ
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে পঞ্চগ্রাম উলামা পরিষদের অভিষেক
  •   জকিগঞ্জে জাহাঙ্গীর আলমের মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল
  •   জৈন্তাপুরে ছদ্মবেশে ভাতিজির সর্বনাশকারী চাচাকে গ্রেফতার
  •   জৈন্তাপুরে ইয়াবাসহ যুবক আটক
  •   দেশ থেকে সামাজিক মূল্যবোধের অভাব দূর করতে হবে: পরিবেশ মন্ত্রী
  •   কাশ্মীরে মুসলমান নির্যাতনের প্রতিবাদে বালাগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল
  •   ফুলতৈলছগাম শিক্ষা উন্নয়ন পরিষদের শোক দিবস পালন
  •   তাহিরপুরে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার
  • সাম্প্রতিক খেলাধুলা খবর

  •   দেখে নিন টাইগারদের নতুন কোচের ক্যারিয়ার
  •   টাইগারদের হেড কোচ দক্ষিণ আফ্রিকার ডোমিঙ্গো
  •   মাশরাফি এখনই অবসর নিতে চান না : পাপন
  •   দুর্দান্ত বাই-সাইকেল কিকে বার্সাকে হারাল বিলবাও
  •   ধোনিকে সেনার পোশাকে দেখে যা করল ক্ষুব্ধ কাশ্মীরের মানুষ
  •   ইন্টারভিউ দিতে হঠাৎ ঢাকায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক কোচ
  •   বিপিএল দলগুলোর মালিকানার মেয়াদ শেষ, কিনতে হবে নতুন করে
  •   জিম্বাবুয়ের সঙ্গে খেলেই বিদায় নেবেন মাশরাফি
  •   সাকিবের বিশ্রাম নীতির বিপক্ষে আকরাম খান
  •   স্বার্থপর মালিঙ্গা, খোঁজ নেন না বাবা-মার
  •   টেস্ট জার্সিতে নাম ও নম্বর ব্যবহার হাস্যকর : ব্রেট লি
  •   তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হলেন মেসি
  •   কোহলিকে সরানো হবে বোকামি: শোয়েব
  •   তামিমকে বিশ্রামের পরামর্শ সাকিবের
  •   লঙ্কাধোলাই হয়েই দেশে ফিরছে বাংলাদেশ