আজ রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ ইং

জগন্নাথপুরে বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঈদ বাজারে ক্রেতাদের ঢল

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৬-১৩ ১৮:৩৩:০৫

সানোয়ার হাসান সুনু, জগন্নাথপুর :: প্রবাসি অধ্যুষিত সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বৃষ্টি উপেক্ষা করে চলছে ঈদের বেচাকেনা।

বুধবার জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের জগন্নাথপুর পুরান বাজার ও পৌরশহরের বিভিন্ন বিপনী বিতানে সকাল থেকে নারী পুরুষ শিশু সহ বিভিন্ন বয়সী মানুষের প্রচন্ড ভীড় দেখা গেছে।

বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়ায় বৃষ্টির মধ্যও ঈদ বাজারে ক্রেতাদের উপস্থিতি ছিল ব্যাপক।

ক্রেতা ও বিক্রেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, ঈদের দিন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে ঈদ বাজারে বিক্রির ধুম পড়েছে। গত দুই বছর ফসলডুবির কারনে ঈদ বাজার কিছুটা মন্দা থাকলেও এবারের ঈদে আগে-ভাগেই বেচাকেনা শুরু হয়েছে।

ফজুল মিয়া নামে ঈদ বাজারে আসা এক ক্রেতা জানান, আর মাত্র তিন/চার দিন বাকী আছে ঈদুল-উল ফিতরের। কাজের ব্যস্থতার  কারনে ঈদ বাজারে পরিবার পরিজনের জন্য নতুন জামা কাপড় কিনতে পারিনি। তাই আজ বাজারে এসেছি।

মতিন মিয়া নামে আরেক ক্রেতা জানান, নতুন জামা-কাপড় না হলেও ঈদের আনন্দই যে মলিন হয়ে যায়। তাই বৃষ্টির মধ্যে ঈদ বাজার অন্য দোকান থেকে অন্য দোকানে চাহিদা অনুয়ায়ী কাপড়-ছুপর কিনতে ঘুরছি।

শহরের সালমান ফ্যাশনের স্বত্ত্বাধিকার ফয়জুল ইসলাম বলেন, টানা দুই বছর আমাদের এলাকায় মানুষের গোলায় ফসল উঠেনি। এবছর হাওরে বাস্পার ফলনের কারনে মানুষের অভাব অনেকটা লাঘব হয়েছে। বাস্পার ফসল আর প্রবাসীদের আর্থিক সহযোগিতায় জমজমাট হয়ে উঠেছে ঈদ বাজার। বেচাবিক্রি ভালই হচ্ছে।

নিউ ঝলক ফ্যাশনের কদ্দুছ মিয়া বলেন, শেষ মুর্হুতে ঈদের কেনাচেনা ভালই হচ্ছে।

জগন্নাথপুর বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারন সম্পাদক জাহির উদ্দিন বলেন, বৃষ্টির উপেক্ষা করেও ঈদ বাজারে মানুষের উপচেপড়া ভীড় দেখা যাচ্ছে। এবারের ঈদে ব্যবসায়ীদের ভালো বেচাকেনা হচ্ছে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৩ জুন ২০১৮/এসএইচএস/এসডি

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   পাসপোর্ট না পেয়ে বিএনপি নেতা রাজ্জাকের রিট, শুনানী সোমবার
  •   লিডিং ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার মান নিশ্চিতকরণ বিষয়ক কর্মশালা
  •   ভারতের ইনিংসের শেষ মুহূর্তে বৃষ্টির হানা
  •   বড়লেখায় ৭৫ শিক্ষার্থীর মধ্যে অর্থ ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ
  •   ‘আল্লামা শিহাবুদ্দীন ছিলেন এ যুগের ইমাম বুখারী’
  •   বড়লেখায় ১৯ নারী পেলেন ছাগল ও ভেড়া
  •   বড়লেখায় শহীদ মিনারের সিঁড়ি ভেঙে সেপটিক ট্যাংক!
  •   ভারতের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর উপদেশ মানলেন না সরফরাজ!
  •   খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা শাখার ঈদ পূনর্মিলনী
  •   নবীগঞ্জে বজ্রপাতে প্রাণ গেল একজনের
  •   বিধ্বংসী রোহিতকে ফেরালেন হাসান আলী
  •   ধর্ষণে শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবিতে গ্রাসরুটস সিলেট জেলার মানববন্ধন
  •   ফেনী পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হবে মোয়াজ্জেমকে
  •   কমলগঞ্জে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
  •   সিলেটে শেষ পর্যায়ে কৃষি শুমারির তথ্য সংগ্রহের কাজ
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   পাসপোর্ট না পেয়ে বিএনপি নেতা রাজ্জাকের রিট, শুনানী সোমবার
  •   লিডিং ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার মান নিশ্চিতকরণ বিষয়ক কর্মশালা
  •   বড়লেখায় ৭৫ শিক্ষার্থীর মধ্যে অর্থ ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ
  •   ‘আল্লামা শিহাবুদ্দীন ছিলেন এ যুগের ইমাম বুখারী’
  •   বড়লেখায় ১৯ নারী পেলেন ছাগল ও ভেড়া
  •   বড়লেখায় শহীদ মিনারের সিঁড়ি ভেঙে সেপটিক ট্যাংক!
  •   খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা শাখার ঈদ পূনর্মিলনী
  •   ধর্ষণে শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবিতে গ্রাসরুটস সিলেট জেলার মানববন্ধন
  •   কমলগঞ্জে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
  •   সিলেটে শেষ পর্যায়ে কৃষি শুমারির তথ্য সংগ্রহের কাজ
  •   ওসমানীতে নার্সেস এসোসিয়েশনের বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান
  •   সিলেটে সহকারি শিক্ষক নিয়োগে প্রশ্ন ফাঁসের প্রতিবাদ
  •   পরিবহণ ধর্মঘটের প্রতিবাদে সিলেটে গণঅনাস্থা প্রাচীর অনুষ্ঠিত
  •   সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির শোক সভা অনুষ্ঠিত
  •   কমলগঞ্জে সীমা মালাকারের চিকিৎসায় সাহায্যের প্রয়োজন