আজ বুধবার, ২৭ মে ২০২০ ইং

সিলেটে দুঃস্থদের মাঝে ‘দি হেল্পিং উইং’ এর খাবার বিতরণ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৪-২১ ২৩:৪৫:৫৯

সিলেট :: পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে গরীব ও অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘দি হেল্পিং উইং’। রবিবার রাতে নগরীর মানিকপীর রোডে তারা এ কর্মসূচি পালন করে। এ সময় তিন শতাধিক গরীব ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করে তারা।

এ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন- রবিউল হাসান চৌধুরী, গালিব হাসান চৌধুরী, নাফিস শামস তিয়াস, ইনামুল আসিফ লতিফী, নাদের আহমেদ চৌধুরী, ইবরাহিম খান রনি, খালেদ আহমেদ, শাহ মো. মাহমুদুল হাসান, মুহতাসিম শিহান, মোহাম্মদ আলী খান তানভীর, মাসহারুল হক প্রমুখ।

এদিকে আসন্ন রমজান মাসে সিলেটে দুই টাকায় ইফতারের সুবিধা নিয়ে আসছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘দি হেল্পিং উইং’। ১৩ মে (সোমবার) থেকে ১৭ মে (শুক্রবার) নগরীর কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে নিম্নবিত্তদের জন্য থাকবে তাদের এই আয়োজন।

সংগঠনটির পক্ষ থেকে নাফিস শামস তিয়াস জানান ‘রমজান মাস, ইসলাম ধর্মের মানুষদের জন্য সিয়াম সাধনার মাস। আল্লাহ এই মাসে নাকি তার বান্দাদের সংযমের পরীক্ষা নেন। কিন্তু বাস্তবে আমরা কি দেখি? আমরা দেখি রমজান মাস উপলক্ষে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে নিয়ে যান সাধারণের নাগালের বাইরে। এক মাসের চেয়ে দ্বিগুন কিংবা তিনগুন টাকা খরচ করেও জীবনযাত্রার স্বাভাবিক মান বজায় রাখা যায় না। মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোই সেই খরচ চালাতে যেখানে হিমশিম খায় সেখানে নিম্নবিত্তরা তো হিসাবেরও বাইরে। সারাদিন রোযা রেখেও ইফতারের জন্য দুমুঠো ভাত জোগাড় করতেও পারেন না অনেকে। সেই নিম্নবিত্ত মুসল্লীদের জন্য কিছু করতে চাই আমরা দি হেল্পিং উইং।’

তিনি আরো জানান- আর এই ইচ্ছা থেকেই সিলেট শহরে প্রথমবারের মত ২ টাকায় ইফতারের আয়োজন। আমরা কাউকে ফ্রি খাওয়াতে চাই না। আমরা চাই না আমাদের কাছ থেকে খাবার নিতে কারো আত্মসম্মানবোধে লাগুক। নিজের টাকায়ই খাবেন তারা। তাদের টাকায়ই কিনবেন। তাদের দুই টাকা দিয়ে আমরা সার্ভ করবো ইফতার। কমপক্ষে ১০ টি আইটেম থাকবে ইফতারে। আমরা শুধু সারাদিন ক্ষুধার্ত থাকার পর তাদের মুখের তৃপ্তির হাসিটা দেখতে চাই।

নগরীর সুবিদবাজার, কুমারপাড়া, ঈদগাহ, নাইওরপুল পয়েন্ট এবং চৌহাট্টা (কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার) এলাকায় চলবে ২ টাকায় ইফতার।

এই উদ্যোগে যোগ দিতে এবং সহযোগিতা করতে নগরীর সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা। সে সহযোগিতা হতে পারে টাকা দিয়ে, রান্নার বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে কিংবা স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২১ এপ্রিল ২০১৯/প্রেবি/ডিজেএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন