আজ মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০ ইং

ফেঞ্চুগঞ্জে ঘরে ঢুকে হত্যাচেষ্টা, ছুরিসহ আটক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৪-২২ ১১:৫০:২৯

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি :: ফেঞ্চুগঞ্জে শবে বরাতের রাতে ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত অবস্থায় হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করার সময় হাতেনাতে এক সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে।

জানা যায়, শবে বরাতের মধ্যরাতে নিজ ঘরে শুয়েছিলেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ঘিলাছড়ার জিল্লুর রহমান। এসময় স্থানীয় সন্ত্রাসী সাদেক মিয়া ও তার সঙ্গীয় কয়েকজন জিল্লুর রহমানের ঘরে ঢুকে লম্বা ছুরি (ডেগার) দিয়ে জিল্লুর রহমানের উপর হামলা চালাতে গেলে নামাজরত জিল্লুর রহমানের মা দেখে ফেলেন।

তিনি চিৎকার দিয়ে উঠলে জিল্লুর রহমান চোখ খোলে দেখেন সন্ত্রাসী তাকে আঘাত করতে যাচ্ছে। তখন তিনি ছুরিসহ সাদেককে ঝাপটে ধরে চিৎকার দেন। চিৎকার শুনে অন্যান্যরা এসে জিল্লুর রহমানকে উদ্ধার করে সাদেককে আটক করেন। এসময় সাদেকের সঙ্গীয়রা পালিয়ে যায়।

জিল্লুর রহমান সিলেটভিউকে জানান, আটক সাদেক গত নভেম্বর মাসেও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে মাথায় দা দিয়ে আঘাত করে। পরে এব্যাপারে সাদেককে প্রধান আসামি করে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন তিনি। পরবর্তীতে সাদেক মিয়ার জামিন হলেও তিনি আত্মগোপনে ছিলেন। আজ লাইলাতুল বরাতের কারণে জিল্লুর রহমানের বাড়ির দরজা খোলা ছিল। সে সুযোগে সাদেক মিয়া আবারো তাকে হত্যার চেষ্টা করে।

তিনি জানান, ঘটনার সাথে সাথে ফেঞ্চুগঞ্জ থানাকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আটক সাদেক মিয়াকে ছুরিসহ থানায় নিয়ে আসে। জিল্লুর রহমান জানান, দুইবার তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। আজ কয়েক সেকেন্ডের জন্য বেঁচে গেছেন। তিনি ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন।

এ ব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার বক্তব্য না পাওয়া গেলেও জিল্লুর রহমান জানান তিনি সকালে মামলা দায়ের করবেন ও তার জীবন নিরাপত্তার জন্য আবেদন করবেন।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২২ এপ্রিল ২০১৯/এফইউ/ডিজেএস

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন