আজ বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং

বিশ্বনাথে আন্তঃবিভাগীয় চোর চক্রের ২ সদস্য আটক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০১-২৭ ২০:২১:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিশ্বনাথ :: সিলেটের বিশ্বনাথে চোরাইকৃত নগদ টাকাসহ আন্তঃবিভাগীয় চোর চক্রের দুই সদস্যকে আটক করে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছেন জনতা।

রোববার রাতে বিশ্বনাথের জামেয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসার অজুখানায় দুই মুসল্লীর টাকা ও মোবাইল চুরি করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয় চোর চক্রের ওই দুই সদস্য। আটককৃত চোরেদের স্বীকারোক্তিতে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার বিছমিল্লাহ আসাসিক হোটেল থেকে প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ।

জনতার হাতে আটককৃতরা হচ্ছে- ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার চুমুরদী গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের পুত্র মোহাম্মদ ইসমাঈল (৩৮), চরচাঁদপুর ভাসানচর গ্রামের মৃত আবদুর রশিদের পুত্র ওবায়দুর রহমান (৪০)। সোমবার সকালে আটককৃত দু’জনসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও আরো ২/৩ জনকে অজ্ঞাতনামা অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন উপজেলার শ্রীধরপুর গ্রামের ফয়জুল খানের পুত্র জয়নুল খান। মামলা নং ২১ (২৭.০১.২০ইং)।

মামলার লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা সদরের নতুন বাজারস্থ জামেয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া মাদ্রাসা অজুখানা থেকে রোববার জয়নুল খানের মামা মাওলানা আঙ্গুর মিয়ার জ্যাকেট থেকে মোবাইল সেট ও নগদ ১ হাজার ৯৫০ টাকা এবং উপজেলার জগদ্বীশপুর গ্রামের প্রবাসী মোহাম্মদ খয়রু’র কোর্টের পকেট থেকে নগদ ১২ হাজার ২৫০ টাকা চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা।

এরপর মাদ্রাসার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে স্থানীয় জনতা ওই দুই চোরকে আটক করে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের কাছে নিয়ে যান। এসময় ভাইস চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় জনতা আটককৃত দুই (ইসমাঈল-ওবায়দুর) চোরকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

টাকা উদ্ধারের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, আটক হওয়া দু’জন (ইসমাঈল-ওবায়দুর) আন্তঃবিভাগীয় চোর চক্রের সদস্য। তাদের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জায়গায় চুরি সংঘটিত হয়ে থাকে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৭ জানুয়ারি ২০২০/প্রনঞ্জয়/ জুনেদ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন