আজ শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং

ফাল্গুন-ভালোবাসা : আজ দুই রঙ মিশে গেছে এক সাথে

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০২-১৪ ১০:০৬:০৭

মো. রেজাউল হক ডালিম :: আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি। পহেলা ফাল্গুন, সঙ্গে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। বিগত বছরগুলোতে রঙ্গিন এই দুই দিবস পৃথক দিনে হলেও এবার একই দিনে উদযাপিত হচ্ছে দিবস দু\\\'টি। তাই দুই রঙ এক সাথে মিশে আলাদা এক অনুভূতি আর শিহরণের জাগরণ আজ সবার মনে।

ঋতুরাজ বসন্তের শুরু :

প্রকৃতির দক্ষিণা দুয়ারে বইছে ফাগুনের হাওয়া। কোকিলের কণ্ঠে আজ বসন্তের আগমনী গান। ফুলে ফুলে ভ্রমরও করছে খেলা। গাছে গাছে পলাশ আর শিমুলের মেলা। সব কিছুই জানান দিচ্ছে আজ পহেলা ফাল্গুন।

ফাল্গুনের হাত ধরেই ঋতুরাজ বসন্তের আগমন। ঋতুরাজকে স্বাগত জানাতে প্রকৃতির আজ এতো বর্ণিল সাজ। বসন্তের এই আগমনে প্রকৃতির সাথে তরুণ হৃদয়েও লেগেছে দোলা। সকল কুসংস্কারকে পেছনে ফেলে, বিভেদ ভুলে, নতুন কিছুর প্রত্যয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা নিয়ে বসন্তের উপস্থিতি। তাই কবির ভাষায়- ‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত’।

আবাল-বৃদ্ধা, তরুণ-তরুণী বসন্ত উম্মাদনায় আজকে মেতে উঠবে। শীতকে বিদায় জানানোর মধ্য দিয়েই বসন্ত বরণে চলবে ধুম আয়োজন। শীত চলে যাবে রিক্ত হস্তে, আর বসন্ত আসবে ফুলের ডালা সাজিয়ে। বাসন্তী ফুলের পরশ আর সৌরভে কেটে যাবে শীতের জরা-জীর্ণতা।

বসন্তকে সামনে রেখে গ্রাম বাংলায় মেলা, সার্কাসসহ নানা বাঙালি আয়োজনের সমারোহ থাকবে। ভালোবাসার মানুষেরা মন রাঙাবে বাসন্তি রঙ্গেই। শীতের সঙ্গে তুলনা করে চলে বসন্তকালের পিঠা উৎসবও।
এদিকে, দিনটিকে আরো উপভোগ্য করে তুলতে সিলেটে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন গ্রহণ করেছে নানা কর্মসূচি।  ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস’

আজ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ‘সেন্ট ভ্যালেন্টাইনস ডে’। তবে তরুণ-তরুণী শুধু নয়, নানা বয়সের মানুষের ভালোবাসার বহুমাত্রিক রূপ প্রকাশের আনুষ্ঠানিক দিন আজ। এ ভালোবাসা যেমন মা-বাবার প্রতি সন্তানের, তেমনি মানুষে-মানুষে ভালোবাসাবাসির দিনও এটি। ‘কিন্তু শুধু একটি দিন ভালোবাসার জন্য কেন?’ এ প্রশ্নে কবি নির্মলেন্দ গুণের ছোট জবাব, ‘ভালোবাসা একটি বিশেষ ৭ দিনের জন্য নয়। সারাবছর, সারাদিন ভালোবাসার। তবে আজকের এ দিনটি ভালোবাসা দিবস হিসেবে বেছে নিয়েছে মানুষ।’

তারুণ্যের অনাবিল আনন্দ আর বিশুদ্ধ উচ্ছ্বাসে সারা বিশ্বের মতো আমাদের দেশের তরুণ-তরুণীদের মাঝেও ভালোবাসা দিবস পালিত হচ্ছে। ভালোবাসার উৎসবে মুখর আজ রাজধানী। এ উৎসবের ছোঁয়া লাগবে গ্রাম-বাংলার জনজীবনেও। মুঠোফোনের মেসেজ, ই-মেইল অথবা অনলাইনের চ্যাটিংয়ে পুঞ্জ পুঞ্জ প্রেমকথার কিশলয় হয়ে উঠবে পল্লবিত। অনেকের মতে, ফেব্রুয়ারির এ সময়ে পাখিরা তাদের জুটি খুঁজে বাসা বাঁধে। নিরাভরণ বৃক্ষে কচি কিশলয় জেগে ওঠে। তীব্র সৌরভ ছড়িয়ে ফুল সৌন্দর্যবিভায়। পরিপূর্ণভাবে বিকশিত হয়। এ দিনে চকোলেট, পারফিউম, গ্রিটিংস কার্ড, ই-মেইল, মুঠোফোনের এসএমএস-এমএমএসে প্রেমবার্তা, হীরার আংটি, প্রিয় পোশাক, জড়াজড়ি করা খেলনা মার্জার অথবা বই ইত্যাদি শৌখিন উপঢৌকন প্রিয়জনকে উপহার দেয়া হয়।

নীল খামে হালকা লিপস্টিকের দাগ, একটা গোলাপ ফুল, চকোলেট, ক্যান্ডি, ছোট্ট চিরকুট আর তাতে দু`ছত্র গদ্য অথবা পদ্য হয়ে উঠতে পারে উপহারের অনুষঙ্গ।

অন্যদিকে আজকের এ ভালোবাসা শুধুই প্রেমিক আর প্রেমিকার জন্য নয়। মা-বাবা, স্বামী-স্ত্রী, ভাইবোন, প্রিয় সন্তান এমনকি বন্ধুর জন্যও ভালোবাসার জয়গানে আপ্লুত হতে পারে সবাই। চলবে উপহার দেয়া-নেয়া।

ইতিহাসবিদদের মতে, দুটি প্রাচীন রোমান প্রথা থেকে এ উৎসবের সূত্রপাত। এক খ্রিস্টান পাদ্রী ও চিকিৎসক ফাদার সেন্ট ভ্যালেনটাইনের নামানুসারে দিনটির নাম `ভ্যালেনটাইনস ডে` করা হয়। ২৭০ খ্রিস্টাব্দের ১৪ ফেব্রুয়ারি খ্রিস্টানবিরোধী রোমান সম্রাট গথিকাস আহত সেনাদের চিকিৎসার অপরাধে সেন্ট ভ্যালেনটাইনকে মৃত্যুদন্ড দেন। মৃত্যুর আগে ফাদার ভ্যালেনটাইন তার আদরের একমাত্র মেয়েকে একটি ছোট্ট চিঠি লেখেন, যেখানে তিনি নাম সই করেছিলেন `ফ্রম ইওর ভ্যালেনটাইন`। সেন্ট ভ্যালেনটাইনের মেয়ে এবং তার প্রেমিক মিলে পরের বছর থেকে বাবার মৃত্যুর দিনটিকে ভ্যালেনটাইনস ডে হিসেবে পালন করা শুরু করেন। যুদ্ধে আহত মানুষকে সেবার অপরাধে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত সেন্ট ভ্যালেনটাইনকে ভালোবেসে দিনটি বিশেষভাবে পালন করার রীতি ক্রমে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।
ভ্যালেনটাইনস ডে সর্বজনীন হয়ে ওঠে আরো পরে প্রায় ৪০০ খ্রিস্টাব্দের দিকে। দিনটি বিশেষভাবে গুরুত্ব পাওয়ার পেছনে রয়েছে আরো একটি কারণ। সেন্ট ভ্যালেনটাইনের মৃত্যুর আগে প্রতি বছর রোমানরা ১৪ ফেব্রুয়ারি পালন করত `জুনো` উৎসব। রোমান পুরানের বিয়ে ও সন্তানের দেবী জুনোর নামানুসারে এর নামকরণ। এ দিন অবিবাহিত তরুণরা কাগজে নাম লিখে লটারির মাধ্যমে তার নাচের সঙ্গীকে বেছে নিত। ৪০০ খ্রিস্টাব্দের দিকে রোমানরা যখন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীতে পরিণত হয় তখন `জুনো` উৎসব আর সেন্ট ভ্যালেনটাইনের আত্মত্যাগের দিনটিকে একই সূত্রে গেঁথে ১৪ ফেব্রুয়ারি `ভ্যালেনটাইনস ডে` হিসেবে উদযাপন শুরু হয়। কালক্রমে এটি সমগ্র ইউরোপ এবং ইউরোপ থেকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।
সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০/আরএইচডি/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   জকিগঞ্জের শিবির ক্যাডার সুজনের কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধার, জেলে প্রেরণ
  •   বেসামাল দক্ষিণ কোরিয়া, ধর্মীয় এক গোষ্ঠীর দিকে সন্দেহের তীর
  •   নেহার ‌‘হুমকি’তে ভোল পাল্টালেন হিমাংশ
  •   আত্মগোপনে থাকা ব্যবসায়ীকে দুই মেয়েসহ উদ্ধার, স্ত্রী এখনও নিখোঁজ
  •   শাবিতে নবীন শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি সম্পন্ন
  •   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে জেলা শ্রমিকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   শাবিতে আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন গণিত বিভাগ
  •   ভাষা শহীদদের প্রতি সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   বিজরী-ইন্তেখাবের গৃহকর্মী: সুনামগঞ্জের তানজিনের লাফ দিয়ে আত্মহত্যা
  •   দিরাই প্রবাসী উচ্চ বিদ্যালয় উদ্বোধন করলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী
  •   শ্রীমঙ্গলে মালিকবিহীন ৯ মেট্রিক টন পেঁয়াজ!
  •   হঠাৎ আসা ঢেউ কেড়ে নিল ৬ শিক্ষার্থীর প্রাণ
  •   করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ইরানি মেয়র
  •   সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
  •   খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি কাল
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   জকিগঞ্জের শিবির ক্যাডার সুজনের কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধার, জেলে প্রেরণ
  •   শাবিতে নবীন শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি সম্পন্ন
  •   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে জেলা শ্রমিকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   শাবিতে আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন গণিত বিভাগ
  •   ভাষা শহীদদের প্রতি সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
  •   মাতৃভাষা দিবসে সিলেটে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ
  •   ফেঞ্চুগঞ্জে আল মাহাব্বাহ মাদ্রাসার মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন
  •   শাহপরানে যুবকের কাছে ইয়াবা, প্রাইভেটকারসহ আটক
  •   সিলেটে পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে যুবদলের মিছিল
  •   আজাদ কাপ ফুটসালের বিছনাকান্দি ও জাফলং গ্রুপের খেলা সম্পন্ন
  •   সিলেট ইসকনে পালিত হলো শিব চতুর্দশী
  •   সিলেট সরকারি মহিলা কলেজে ভাষা দিবসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
  •   মাতৃভাষা দিবসে সিলেটে গণফোরামের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ
  •   একুশে ফেব্রুয়ারিতে আইডিইবি’র আলোচনাসভা