আজ সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০ ইং

কানাইঘাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইলেকট্রিশিয়ানের মৃত্যু

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৬-৩০ ০০:৩২:০৩

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: কানাইঘাটে মামুনুর রশিদ (৩৫) নামে এক ইলেক্ট্রিশিয়ান বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, কানাইঘাট সদর ইউনিয়নের বীরদল পুরানফৌদ গ্রামের আব্দুল করিমের পুত্র তিন সন্তানের জনক ইলেক্ট্রিশিয়ান মামুনুর রশিদ রবিবার রাতে বাণীগ্রাম ইউনিয়নের বাউরভাগ নয়াগ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমানের বোন নাসিমা বেগমের বাড়িতে একটি পানির মটরের ত্রুটি মেরামতের কাজ করতে যান।

ঐ বাড়ির লোকজন জানান, পানির মটরের কাজ করার সময় হঠাৎ করে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মামুনুর রশিদ মারা যান। রাত সাড়ে ১১টার দিকে মামুনুর রশিদের রহস্য মৃত্যুর খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজন ও আত্মীয় স্বজনরা নাসিমা বেগমের বাড়িতে ছুটে যান এবং থানা পুলিশকে খবর দিলে থানার এস.আই পার্থ সারথী দাস, জিয়াউর রহমান রাত দেড়টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে একটি পাকা বসত ঘরের রুম থেকে মামুন রশিদের মৃত লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে থানায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে সিওমেক হাসপাতালে নিহতের ময়না তদন্ত শেষে বাদ এশা স্থানীয় বীরদল পুরানফৌদ জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মামুন রশিদের জানাজার নামাজ পরবর্তী দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহত মামুনুর রশিদের ভাই আবুল কালাম বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে ইলেক্ট্রিশিয়ান মামুন রশিদের স্বজনদের দাবী সে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়নি, তাকে বাড়ির লোকজন হত্যা করতে পারে বিষয়টি খতিয়ে দেখার দাবী জানিয়েছেন তারা। কিন্তু যে বাড়িতে মামুন রশিদ মারা গেছেন সেই বাড়ির গৃহকর্তী নাসিমা বেগম জানান, তার বসত ঘরের পানির মটরের কাজ করতে গিয়ে অসাবধানতা বশত মামুন রশিদ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে মামুন রশিদ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যেতে পারেন। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে নিহতের ময়না তদন্তের রিপোর্টে যদি কোন কিছু পাওয়া যায় তাহলে পরবর্তীতে সেই আলোকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৩০ জুন ২০২০/এমআর/ডিজেএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন