আজ শনিবার, ০৮ অগাস্ট ২০২০ ইং

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত দুই শিক্ষার্থী, নিরব শাবি প্রশাসন

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৭-০৩ ২৩:৫০:৪৮

শাবি প্রতিনিধি :: ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে বহিরাগত ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দুই শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে এমন দুর্ঘটনা ঘটলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে বলে আহত শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করছেন।

গত ২৯ জুন সন্ধ্যা ৬টায় বঙ্গবন্ধু শেখমুজিবুর রহমান হলের পেছনের টিলায় ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা (জিইই) বিভাগের ২০১২-১৩ সেশনের ছাত্র মোঃ শিহাবুল হক ও আব্দুল কাদির ঘুরতে গেলে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে মারাত্বকভাবে আহত হন। বর্তমানে সিলেটের এমএজি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন তারা।

ঘটনার ৪ দিন পেরিয়ে গেলেও এ পর্যন্ত আহত ছাত্রদের সাথে কোন ধরণের যোগাযোগ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এমনকি ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে কোন ধরণের ব্যবস্থা না নেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন আহত দুই শিক্ষার্থীসহ তাদের সহপাঠীরা।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যোগাযোগ না করলেও ব্যক্তি উদ্যোগে তার বিভাগের কয়েকজন শিক্ষক সার্বক্ষনিক তাদের খোঁজ-খবর রাখছেন বলে জানা গেছে।

আহত শিক্ষার্থী মো শিহাবুল হক বলেন, এত বড় ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একবারের জন্যেও আমার খোঁজ নেয়নি। আমার বিভাগের প্রধানকে বলছিলাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে একটি মামলা করতে। বিভাগের প্রধান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে জানিয়েছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নাকি বলেছে আমি সাবেক শিক্ষার্থী তাই তাদের কিছু করার নেই।

অপর শিক্ষার্থী আব্দুল কাদির বলেন, আমি চাই না আমার মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের আর কোন শিক্ষার্থী ছিনতাইকারী ছুরিকাঘাতে আহত হোক। মনে করেছিলাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে কোন ধরণের ব্যবস্থা নিবে। তবে এখন পর্যন্ত প্রশাসনের তরফ থেকে কোন ধরণের যোগাযোগও করা হয়নি আমাদের সাথে। তবে আমার বিভাগের শিক্ষকরা আমার খোঁজ-খবর রাখছেন।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা দায়ের না করলেও কিছুদিন আগে মাহির চৌধুরী নামে এক শিক্ষার্থীর ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের মানাহানী হওয়ার অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল  নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছিল। তবে এখন ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারে মামলা না করে চুপ থাকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করছেন শিক্ষার্থীরা।

তাছাড়া গত কয়েকমাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে বেশ কিছু ছিনতাইয়ের ঘটনায় ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক ড রাশেদ তালুকদার বলেন, ‘তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী হয়ে গেছে। এখন আমরা তাদের জন্য কি করতে পারি।’

ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন,  ‘মামলার বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রারের সাথে যোগাযোগ করেন।’

বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার মো ইশফাকুল হোসেন বলেন, ‘এ ঘটনা নিয়ে আমাদের কাছে কেউ আসেনি, কোন কিছু জানায়নি। আমরা শুনেছি এইরকম কিছু হয় নি।’

ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখনতো এভাবে আমি কিছু বলতে পারবো না। অবস্থা দেখে বুঝতে হবে। শুনে তো কিছু করা যায় না।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. আলমগীর কবির বলেন, ‘বিষয়টা আমি গতকাল জেনেছি। শিক্ষার্থীদের বলা হয়েছে বিকেল ৫ টার পর যাতে টিলার ঐ দিকে না যায়। তবুও তারা যাচ্ছে। আমি নির্দিষ্ট করে কিছু বলতে পারছি না এ বিষয়ে। তবুও প্রশাসনের সাথে কথা বলে দেখবো কিছু করা যায় কিনা।’

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৩ জুলাই ২০২০/এএএম/ডিজেএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   সড়ক দূর্ঘটনায় আহত মাহবুবের পাশে যুবদল ও ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ
  •   বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকীতে বিশ্বনাথে সভা, সেলাই মেশিন বিতরণ
  •   জাতীয় শোক দিবস পালনের লক্ষ্যে বিশ্বনাথে আ.লীগের প্রস্তুতি সভা
  •   সিলেটের তামাবিল ও শেওলা দিয়ে পণ্য পরিবহন করতে চায় ভারত!
  •   জৈন্তাপুরে বাঁশকল বসিয়ে চাঁদাবাজির প্রতিবাদে ট্রাক শ্রমিকদের প্রতিবাদ সভা
  •   সিলেটের আলোচিত সড়ক নিয়ে যা বললো ঢাকার প্রতিনিধি দল
  •   বঙ্গমাতার জন্মদিনে শহীদ নূর হোসেন ব্লক ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি
  •   কোম্পানীগঞ্জে ‘নৌকা মিছিল’ সোমবার
  •   আগামি ১০ দিন সিলেটে হতে পারে হালকা বৃষ্টিপাত
  •   সিলেট বিমানবন্দর-বাদাঘাট-তেমুখি সড়কের কাজ শিগগিরই শুরু হচ্ছে