আজ সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০ ইং

ওসমানীনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের বাড়ী সুনামগঞ্জ ও কমলগঞ্জ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৭-৩১ ১৬:৩৬:০৯

নিহত স্বপন কুমার

শ্রীমঙ্গলে প্রতিনিধি: প্রাইভেটকারযোগে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর থেকে সুনামগঞ্জ যাওয়া পথে  সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন কমলগঞ্জের আদমপুর ব্র্যাক ইউনিট ম্যানেজার স্বপন কুমারসহ তার পরিবার। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের বাড়ী সুনামগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর এলাকার বরায়া চানপুর নামক স্থানে ঘটনাটি ঘটে। নিহতের মধ্যে স্বপনের স্ত্রী লাভলী রানী সরকার (৩৫) ও ছেলে সৌরভ কুমার দাস (১০),  ৫ বছরের এক ছেলে, প্রাইভেট কারের চালক হাসিম মিয়া। এরমধ্যে আহতবস্থায় সৌরভ নামের ১২ বছরের এক সন্তান সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি কর হয়।

নিহতের মধ্যে প্রাইভেট কার চালকের বাড়ি কমলগঞ্জের গোবিন্দপুর গ্রামে। আর ভোটার আইডি কার্ড অনুয়ায়ী নিহত স্বপন কুমারের বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার শ্যামারচর গ্রামের মৃত হরিমোহন দাসের ছেলে। আর তার স্ত্রীর বাড়ি শ্রীমঙ্গলের লইয়ারকুল গ্রামে।

জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিট ম্যানেজার স্বপন কুমার সহপরিবারে ভানুগাছ বাজার স্ট্যান্ড থেকে প্রাইভেট কার (গাড়ি নং মৌলভীবাজার ১১-১২২৩) ভাড়া করে শুক্রবার সকাল ৬টায় আদমপুর থেকে সুনামগঞ্জের উদ্দেশ্য রওয়ানা দেন।  এদিকে কমলগঞ্জ উপজেলার প্রাইভেটকার চালক হাসিম মিয়ার বাড়িতে শোকের মাতম চলছে। তার দুসন্তান  ও স্ত্রী এখন দিশেহারে এমনটাই জানালেন নিহত চালকের ভগ্নিপতি আব্দুল জলিল।

অপরদিকে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভূনবীর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নিয়াজ ইকবাল মাসুদ জানান, নিহত স্বপন কুমার আমার বাড়িতে চাকুরির সুবাধে ১২ বছর বসবাস করেন। গত দুবছর আগে স্বপন কুমার কমলগঞ্জ উপজেলায় বদলী হয়ে চলে যান।

শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত মো.সোহেল রানা বলেন, নিহত স্বপনের স্ত্রীর বাড়ি শ্রীমঙ্গলে নয়। দীর্ঘদিন এক  জায়গায় চাকুরির সুবাধে তারা ভোটার হয়েছেন। মূলত তাদের বাড়ি সুনামগঞ্জে।


সিলেট ভিউ ২৪ ডটকম/ এসআই/ পিটি 

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন