আজ শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০ ইং

কাজীরবাজারে গরুর দাম ‘স্বাভাবিক’

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৭-৩১ ২১:৩৪:৩৭

ছবি: মোজাম্মেল হক।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :: সিলেটে পশু কেনাবেচার অন্যতম বড় হাট কাজীরবাজার। আজ ঈদের আগের রাত হলেও গরু নিয়ে এখনও কাড়াকাড়ি অবস্থা তৈরি হয়নি কাজীরবাজারে। বিক্রেতারা বলছেন, গরুর দাম স্বাভাবিক আছে। তবে শেষ রাতের দিকে দাম পড়তির দিকে থাকতে পারে বলে অনেকের অভিমত।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে কাজীরবাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে প্রচুর গরু রয়েছে। ক্রেতাদেরও ভিড় আছে যথেষ্ট। তাদের মধ্যে গরুর দাম নিয়ে তেমন হায়-হুতাশ দেখা যায়নি।

তবে অনেক ক্রেতাই বাজার যাচাই করছেন। কোন বাজার থেকে কোন বাজারের গরুর দাম কম বা বেশি, তা জানতে কাজীরবাজারসহ বিভিন্ন হাটে ঘুরছেন তারা। আবার অনেকে শেষ রাতে ‘দাম কমে যেতে পারে’ এই আশা নিয়ে অপেক্ষায় আছেন।

কয়েকজন গরু ব্যবসায়ী জানান, আজ শুক্রবার বিকালের দিকে হঠাৎ করে গরুর দাম বেড়ে গিয়েছিল। তবে সন্ধ্যার পর সেই অবস্থা আর থাকেনি, দাম বর্তমানে স্বাভাবিকই আছে।

গরু ব্যবসায়ী মো. শাহনুর সিলেটভিউকে বলেন, ‘বৃহস্পতিবারের চেয়ে শুক্রবার বিকালে দাম ছিল বাড়তির দিকে। তবে সন্ধ্যার পর স্বাভাবিক দামেই গরু বিক্রি হচ্ছে। গরুর দাম বেশিও না, কমও না।’

তিনি বলেন, ‘বাজারে বড় গরুর ক্রেতা একেবারেই কম। মানুষ মাঝারি আর ছোট গরুই বেশি কিনছেন। ফলে যারা বড় গরু নিয়ে বাজারে এসেছেন, তাদেরকে হতাশ হতে হচ্ছে।’

আরেক ব্যবসায়ী হাবিব আহমদ জানান, তিনি ১৫টি গরু নিয়ে কাজীরবাজারে এসেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ২টা আর আজ বিকালে ৩টা গরু বিক্রি করেছেন। বাকিগুলো দরদামে পোষাচ্ছে না বলে বিক্রি করছেন না।

তিনি বলেন, ‘বাজারের বর্তমান যে অবস্থা, তাতে আর যদি গরু না আসে, তবে দাম স্বাভাবিকই থাকবে। কিন্তু গরু যদি আরো আসে, তবে দাম পড়ে যাবে।’

ব্যবসায়ীরা গরুর দাম স্বাভাবিক বললেও ক্রেতারা বলছেন, দাম কিছুটা বেশি।

মাছুম আহমদ নামের এক ক্রেতা সিলেটভিউকে বলেন, ‘বাজার ঘুরে দেখলাম, দাম কিছুটা বেশি মনে হচ্ছে। তাই কাজীরবাজার থেকে গরু কিনবো না, অন্য হাটে যাবো।’

আরেক ক্রেতা সাজু আহমদ বলেন, ‘মাঝারি আকারের গরু কিনতে চাই। বড় গরুতে অনেক সমস্যা থাকে বলে শুনেছি। ইনজেকশন দিয়ে, ওষুধ খাইয়ে নাকি গরু মোটাতাজা করা হয়।’

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৩১ জুলাই ২০২০/এমএইচ/আরআই-কে

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন