আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ ইং

দক্ষিণ সুরমায় চাঞ্চল্যকর রিপন হত্যা : ১১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-১০-১৭ ১৮:৪২:৫৬

নিজস্ব প্রতিবেদক :: ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রিপন (৪০) হত্যা মামলার অভিযোগপত্র আদালতে দেয়া হয়েছে। এতে ১১ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. লোকমান হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রিপন হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত কারাগারে থাকা আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি ও বিভিন্ন সোর্স এবং স্থানীয় সাক্ষীদের জবানবন্দির ভিত্তিতে গত সোমবার (১২ অক্টোবর) ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। পলাতকদের গ্রেফতারের জন্য সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম (তৃতীয়) আদালতের বিচারক শারমিন খানম নিলার কাছে  গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যুর আবেদন করা হয়েছে।

জানা গেছে, অভিযোগপত্রে ১১ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে মামলার এজাহারভুক্ত ১৩ আসামির মধ্যে চার্জশিটে ছয়জনকে, আসামিদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে মামলার অজ্ঞাত আসামির মধ্য থেকে আরও পাঁচজন হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকায় মোট ১১ জনকে অভিযুক্ত করে এ হত্যা মামলার চার্জশিট দেয়া হয়।

এজাহারভুক্ত অপর সাতজনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দিতে চার্জশিটে সুপারিশ করা হয়েছে। তবে হত্যার পর নিহতের স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় রেলওয়ে স্টেশন সিলেটের মাস্টারসহ তিন কর্মকর্তাকে মামলার এজাহারে আসামি করা হয়।

তদন্তে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলা থেকে নাম বাদ দেয়ার জন্য চার্জশিটে সুপারিশ করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। অব্যাহতি পাওয়া তিনজন হলেন- সিলেট রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার মতিন ভুঁইয়া (৫৫), রেলওয়ে আইডাব্লিউ শাখার আকবর হোসেন মজুমদার (৪৮) ও ওয়ার্কার সুপারভাইজার শহিদুল হক (৫৮)।

মামলার চার্জশিটভুক্ত ১১ আসামির মধ্যে এজাহারনামীয় ছয় আসামি হলেন- দক্ষিণ সুরমার বরইকান্দি ১ নম্বর রোডের মৃত ফরিদের ছেলে ইজাজুল (২৮), মৃত ফারুক মিয়ার ছেলে রেজওয়ান হোসেন রিমু (২৮), মৃত আব্দুল করিম মনজ্জিরের ছেলে মুহিবুর রহমান মুন্না (৩০), মৃত আসদ্দর আলীর ছেলে মোহাম্মদ মোস্তফা (৪০), মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে ইসমাইল আহমদ (৩০) ও স্থানীয় সাঙ্গু গ্রামের মৃত কবির মিয়ার ছেলে নোমান আহমদ (৩৯)।

এছাড়া অজ্ঞাতদের মধ্যে তদন্তে ও আসামিদের স্বীকারোক্তিতে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় চার্জশিটে অভিযুক্ত পাঁচজন হলেন- তারেক আহমদ, সাইদুল ইসলাম, অপু, সানি আহমদ ও সাগর হোসেন সাগর।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুলাই রাত ১০টার দিকে নগরের দক্ষিণ সুরমার বাবনা পয়েন্টে সিলেট ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন, বিভাগীয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রিপনকে কুপিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে হত্যার ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরদিন রিপনের স্ত্রী ফারজানা আক্তার তমা বাদি হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা করেন। মামলায় ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলায় সিলেট রেলওয়ের স্টেশন মাস্টারসহ একাধিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ অচেনা আরও পাঁচ-সাতজনকে আসামি করা হয়।


সিলেটভিউ২৪ডটকম / ১৭ অক্টোবর, ২০২০ / ডালিম

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   শিক্ষক দিবস স্মরণে প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক সমিতির ভার্চুয়াল সভা
  •   ক্রিড়াবিদ মনসুর আহমদ চৌধুরীর ইন্তেকাল
  •   যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটির অনুমোদন
  •   পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে বিক্ষুদ্ধ সিলেটের টেলিভিশন সাংবাদিকরা
  •   শাবির ল্যাবে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত
  •   নবগঠিত দক্ষিণ সুরমা কৃষকদলের নেতৃবৃন্দকে কাইয়ুম চৌধুরীর অভিনন্দন
  •   দুর্গাপূজা উপলক্ষে মেট্রোপলিটন রোটারি ক্লাবের চাল বিতরণ
  •   গোলাপগঞ্জে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে আলোচনা সভা
  •   মৌলভীবাজারে করোনায় মৃত্যু বরণকারি পরিবার পেলো দুর্গাপুজার উপহার
  •   রাধা বিনোধ মিশ্রের জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি