আজ শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০ ইং

শাবি ছাত্রের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-১০-২১ ২২:৪৯:১২

শাবি প্রতিনিধি :: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী, বিতর্ক সংগঠনের নেতা ও ধর্ষণ বিরোধী আন্দোলনের নেতা মোসাদ্দেক বিন শরীফের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়েদেরকে বিভিন্ন ভাবে যৌন হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল মোসাদ্দেক বিন শরীফের যৌন হয়রানির প্রমাণসম্বলিত বিভিন্ন মেয়েদের সাথে করা চ্যাটের অংশ তুলে ধরে এ অভিযোগ আনেন সিলেটের পার্কভিউ মেডিকেল কলেজের এক ছাত্রী।

মোসাদ্দেক বিন শরীফ নামে এই ছাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতর্ক বিষয়ক সংগঠন \\\\\\\'সাস্ট স্কুল অব ডিবেট\\\\\\\'র অ্যাসিসটেন্ট ডিবেট ডিরেক্টর এবং সিলেট ডিবেট ফেডারেশন (এসডিএফ) এক্সিকিউটিভ কমিটির ডিবেট ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার পর দুই সংগঠন থেকেই তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

গতকাল রেদওয়ানা তাবাসসুম বহ্নি নামে পার্কভিউ মেডিকেল কলেজের এক ছাত্রী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে মোসাদ্দেক বিন শরীফের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ স্কিনশটসহ তুলে ধরেন। তবে ফেসবুকে অভিযোগ তুলে ধরা এই ছাত্রী নিজে ভিক্টিম নন। বিভিন্ন সময়ে ওই ছাত্রের কাছে যৌন হয়রানির শিকার হওয়া ছাত্রীদের অভিযোগ তার ফেসবুক ওয়ালে তিনি তুলে ধরেছেন।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেন, গত পরশুদিন রাতে আমার এক ছোট বোনকে ট্রুথ এন্ড ডেয়ার খেলার নামে সেক্সুয়ালি হ্যারাস করেছে,নোংরা বিশ্রী সব কথা বলেছে। এবং পরে সে আপত্তি জানালে তাকে ভয় দেখিয়ে,ফোর্স করে সব কনভারসেশন ডিলেট করতে বাধ্য করে। একটা ১৬-১৭ বছরের মেয়ে ভয়ের মুখে তার কথা মানতে বাধ্য হয়। পরবর্তীতে তাকে যখন বলা হয়,ভাইয়া আপনি আমার সাথে এমন ব্যবহার কি করে করলেন,তখন সে সেখানে সরি বলে,সে যে গিল্টি ফিল করতেছে সেটাও বলে।এটাই প্রমাণ করে তার সব অপরাধের কাহিনী।

আমার জুনিয়রের কাছে এসব শোনার পর আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি সে আগেও এমন অনেক মেয়ের সাথে করেছে। পরবর্তীতে আমি আরেক জুনিয়রের কাছে প্রমাণ পাই,সে একইভাবে ট্রুথ এন্ড ডেয়ার খেলার নামে তার সাথেও একই কাজ করতে চেয়েছিলো। এবং আরোও একজন মেয়ের সাথেও একই কাজ করেছে। এবং পরবর্তীতে ভয় দেখিয়ে তাদেরকে চুপ থাকতে বাধ্য করেছে।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে মোসাদ্দেক বিন শরীফের মুঠোফোন একাধিকবার যোগাযোগ চেষ্টা করা হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে \\\\\\\'সাস্ট স্কুল অব ডিবেট\\\\\\\' এর সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল বলেন, অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় তাকে সংগঠন থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া অধিকতর তদন্তের জন্য আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে একটি স্বতন্ত্র ও স্বাধীন \\\\\\\"ইকুইটি প্যানেল\\\\\\\" গঠন করা হবে।
দেশের প্রচলিত আইনে, যদি কোন আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়, সাস্ট স্কুল অব ডিবেট সর্বদা ভিক্টিমদেরকে যথোপযুক্ত সহায়তা করতে বদ্ধ পরিকর থাকবে বলে জানান তিনি।

এদিকে সিলেট ডিবেট ফেডারেশন (এসডিএফ) এক অফিসিয়াল বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সংগঠনটির সকল কার্যক্রম থেকে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম / ২২ অক্টোবর, ২০২০ / এ.এম / ডালিম

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   লিডিং ইউনিভার্সিটিতে শেক্সপিয়ার বিষয়ক সেমিনার
  •   সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নবেলের সুস্থতা কামনায় মিলাদ মাহফিল
  •   পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সুস্থতা কামনায় খাদিমপাড়া ইউনিয়নে দোয়া মাহফিল
  •   পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোগমুক্তি কামনায় ছড়ামঞ্চের দোয়া মাহফিল
  •   বালাগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা
  •   জকিগঞ্জ উপজেলা মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন
  •   সিলেটে সাংবাদিক ডালিমের বাসায় মাদক কারবারিদের তাণ্ডব, ভাঙচুর-লুটপাট
  •   বারহালে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আজিজ আহমদ সংবর্ধিত
  •   চাকরি না পেয়ে ছাতকে উচ্চশিক্ষিত যুবতীর আত্মহত্যা
  •   রাস্তা ও ফুটপাতে ব্যবসা: সিলেটে ১১ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা