আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ ইং

ক্যান্সার শনাক্ত করছে কুকুর!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৫-১৪ ১৩:০০:৩৫

সিলেটভিউ ডেস্ক :: বেড়েই চলেছে ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা। ভয়াবহ এই রোগের নাম শুনলেই আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

ক্যান্সারের চিকিত্সার বিপুল খরচের কারণে অনেকেই যাথাযথ চিকিত্সার ব্যবস্থা করে উঠতে পারেন না। যে কারণে ক্যান্সার এখনও পর্যন্ত মধ্যবিত্ত মানুষের কাছে একটি আতঙ্ক।

ক্যান্সারে বিশ্বে প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়। ক্যান্সারে আক্রান্তকে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানো সম্ভব। কিন্তু তার জন্য রোগটি প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্ত করা খুবই জরুরি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তৃতীয় বা চতুর্থ পর্যায়ে ক্যানসার ধরা পড়ে। এই পরিস্থিতিতে ক্যান্সারের চিকিত্সা বা মোকাবিলা করা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে। তবে আগেভাগেই ক্যান্সার শনাক্ত করার ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে কুকুর!

শুনতে অবাক লাগলেও কুকুরের তীব্র ঘ্রাণশক্তি প্রামথমিক পর্যায়েই ক্যান্সার শনাক্ত করতে সক্ষম। অন্তত এমনটাই দাবি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার ‘আমেরিকান সোসাইটি ফর বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজি’র গবেষকদের।

তাঁদের দাবি, ৯৭ শতাংশ ক্ষেত্রেই নির্ভুলভাবে ক্যান্সার শনাক্ত করতে পারে কুকুররা! দীর্ঘদিনের গবেষণায় তারই প্রমাণ পেয়েছেন তাঁরা।

জানা গেছে, এই পরীক্ষার জন্য ৪টি বিগল প্রজাতির কুকুরকে বিশেষ ভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। দীর্ঘ প্রশিক্ষণের পর ম্যালিগন্যান্ট লাং (ফুসফুসের ক্যান্সার) ক্যান্সারে আক্রান্তদের রক্তের সিরাম এবং সম্পূর্ণ সুস্থ ব্যক্তিদের রক্তের সিরামের মধ্যে পার্থক্য করতে সক্ষম হয় ওই কুকুরগুলো।

‘আমেরিকান সোসাইটি ফর বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজি’র গবেষকদের দাবি, ৯৬.৭ শতাংশ ক্ষেত্রেই নির্ভুলভাবে ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যক্তির রক্তের গন্ধ আলাদা ভাবে শনাক্ত করতে সক্ষম হয় ওই ৪টি বিগল প্রজাতির কুকুর।

গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক হিথার জ্যানকুয়েরা জানান, কুকুরের ঘ্রাণশক্তি মানুষের তুলনায় ১০ হাজার গুণ বেশি শক্তিশালী। এই পদ্ধতিতে কুকুরের ঘ্রাণশক্তি কাজে লাগিয়ে যদি প্রাথমিক পর্যায়েই রোগটি শনাক্ত করা যায়, সে ক্ষেত্রে ক্যান্সার সারিয়ে রোগীর বাঁচার সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যাবে। কারণ, ক্যান্সার যত দ্রুত ধরা পড়বে, এ রোগের চিকিৎসা করাও ততই সহজ হবে।

তবে ক্যান্সার শনাক্ত করার পদ্ধতি হিসাবে এই পরীক্ষা পদ্ধতিটির স্বীকৃতি পেতে আরও বেশ কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে। প্রয়োজন আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার।




সৌজন্যে : জাগোনিউজ২৪

সিলেটভিউ ২৪ডটকম/১৪ মে ২০১৯/গআচ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল: তিন উপজেলায় এগিয়ে সালুটিকর কলেজ
  •   সিলেটের তালতলা থেকে ৭ জুয়াড়ী গ্রেফতার
  •   ৫ দিন ধরে অচল জগন্নাথপুর পৌরসভা
  •   এইচএসসির ফলাফল: জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা এগিয়ে
  •   জগন্নাথপুরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহর উদ্বোধন
  •   নবীগঞ্জে এইচএসসিতে পাসের হার ৭৮.২৮ শতাংশ
  •   বাহুবলে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত
  •   ছাতকের সীমান্ত এলাকা থেকে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার
  •   জগন্নাথপুরে দূর্গত কৃষকদের জন্য সুখবর
  •   জগন্নাথপুরে আশ্রয়কেন্দ্রে পানিবন্দি মানুষ
  •   ছাতকে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
  •   ইসলাম বিষয়ে কটূক্তি, হিন্দু ছাত্রীকে কোরআন বিলির নির্দেশ আদালতের
  •   আবারও শাবির নিরাপত্তা কর্মীদের বেতন মধ্যস্বত্বভোগীদের পকেটে!
  •   সশস্ত্র বাহিনীকে আরও আধুনিক করে গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী
  •   এরশাদ নামা
  • সাম্প্রতিক বিচিত্র খবর

  •   পাখি হওয়ার ইচ্ছা পূরণের জন্য কাটলেন কান, চিরলেন জিহ্বা
  •   অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র সৈকতে 'রহস্যময়' মাছ
  •   ভালোবাসা নয়, বিনামূল্যে খাবার খেতেই ডেটিংয়ে যান নারীরা!
  •   এক কলাগাছে ২৪ মোচা!
  •   পাশের বাড়িতে আড়ি পাততে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নারী!
  •   বিএমডব্লিউর তেল কিনতে রাতে হাঁস-মুরগি চুরি
  •   স্মার্টফোন উপহার দিতে না পারায় প্রেমিককে ৫২টি চড় প্রেমিকার
  •   সাপ খাচ্ছে কাঠবিড়ালি!
  •   যেভাবে ধরে কুমড়া গাছে লাউ
  •   যেভাবে বেগুন গাছে টমেটো চাষ করবেন
  •   একটি গাছেই পাওয়া যাবে আলু ও টমেটো
  •   এক স্বামীর ৩৫০ স্ত্রী!
  •   জ্যান্ত অক্টোপাস খেতে গিয়ে আক্রমণের শিকার চীনা নারী
  •   খোঁজ মিলল বিশ্বের বৃহত্তম মুক্তার
  •   পাল্টাপাল্টি সাপ-বৃদ্ধের কামড়ে দুইজনের মৃত্যু