আজ সোমবার, ০১ জুন ২০২০ ইং

লাখাইয়ের শিশুকে অপহরণের পর হত্যা, ঘাতক মামা আটক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৬-১৭ ০০:৫৫:১০

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার সিয়াম আহমেদ নামে ৯ বছরের এক শিশুকে অপহরণের পর মুক্তিপণ না পেয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত শিশুর মামা ঘাতক সাফায়াত হোসেনকে (২২) আটক করেছে পুলিশ। নিহত সিয়াম উপজেলার জিরুন্ডা গ্রামের হাফেজ নূর উদ্দিনের ছেলে।

শনিবার সকালে নিহত সিয়ামের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে ডিবি। পরে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হলে রবিবার গ্রামে বাড়ি জিরুন্ডায় সিয়ামের মরদেহ কবর দেয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সিয়ামের বাবা নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলার করারচর বেসিক শিল্পনগরী এলাকায় হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের ব্যবসা করেন। ব্যবসার সুবাদে তারা স্বপরিবারের সেখানেই থাকেন। সিয়াম সেখানের একটি কিনডার গার্ডেনে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে।

গত ২ জুন সিয়াম উফতার আনতে দোকানে যায়। এ সময় তার চাচাত মামা সাফায়াত হোসেন তাকে অপহরণ করে।

এ ঘটনায় সিয়ামের বাবা শিবপুর থানা একটি সাধারণ ডায়েরি করেণ। এরপর নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) বিভিন্ন স্থানে সিয়ামকে খোঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সন্ধেহজন হিসেবে গত ১৩ জুন ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে ঘাতক সাফায়াতকে আটক করে। সাফায়াত ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার মাছমা গ্রামের হাবীব মিয়ার ছেলে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সিয়াম জানায়, মুক্তিপণের জন্যই মূলত সে ও তার কয়েকজন সহযোগি সিয়ামকে অপহরণ করে। সাফায়াত কন্ঠ পরিবর্তন করে নিহত সিয়ামের মায়ের কাছে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। কিন্তু সিয়ামের পরিবার দিতে অনিহা প্রকাশ করে। পরদিন আবার ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করলে তা বিকাশের মাধ্যমে দিয়ে দেয় নিহত সিয়ামের পরিবার।

কিন্তু পরিচয় জেনে যাওয়ার ভয়ে সিয়ামকে নিয়ে ঢাকার সদরঘাট থেকে লঞ্চে করে বরিশালে চলে যায় সিফায়াত। পরে তাকে বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলার চর আবুপুর গ্রামের দূর্গম চরে নিয়ে হত্যা করে মরদেহ ফেলে রেখে চলে আসে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে শনিবার সকালে নিহত সিয়ামের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে ডিবি। পরে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হলে রবিবার গ্রামে বাড়ি জিরুন্ডায় সিয়ামের মরদেহ কবর দেয়া হয়।

নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রুপম কুমার সরকার বলেন, ‘আটক সাফায়েতের দেওয়া তথ্য মতে আমরা সিয়ামের মরদেহ উদ্ধার করি। সাফায়েত তার পরিচয় ফাঁস হয়ে যাওয়ার ভয়ে সিয়ামকে হত্যা করে।’

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৭ জুন ২০১৯/কেএস/ডিজেএস

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন