আজ শনিবার, ৩০ মে ২০২০ ইং

মাধবপুরে পেঁয়াজের বাজার অস্থির, অভিযানেও ফল হচ্ছে না

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১০-০৩ ১৫:৩৯:০৮

মাধবপুর প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের মাধবপুরে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হচ্ছে না। কয়েকজন ব্যবসায়ী গুদামে শত শত বস্তা পেঁয়াজ মজুদ রেখে বাজারে খুচরা ব্যবসায়ীদের সীমিত আকারে অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

প্রায় ১৫ দিন ধরে বাড়তি ১শ টাকার উপরে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বাজার থেকে কিনছেন সাধারণ ভোক্তারা। এতে করে ভোক্তাদের মধ্যে মারাত্মক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মাধবপুর বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা সাধারণ ভোক্তারা অভিযোগ করে বলেন ১৫ দিন ধরে মাধবপুর বাজারে পেঁয়াজের এমন অস্থিরতা চলছে। পাইকারী ব্যবসায়ীদের তালিকা অনুযায়ী পাইকারী বাজারে পেঁয়াজ ৬০ টাকা এবং খুচরা পর্যায়ে ৫০ টাকা দরে বিক্রি হওয়ার কথা। কিন্তু মাধবপুর বাজারের প্রভাবশালী কয়েকজন পেয়াজ ব্যবসায়ী তাদের নিজেদের দোকানে শত শত বস্তা পেঁয়াজ মজুদ রেখে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতি মুনাফার আশায় অধিক মূল্যে পেয়াজ বিক্রি করছে। যে কারণে খুচরা ব্যবসায়ীরা এখন প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৮০ থেকে ১১০ টাকা দরে বিক্রি করছে।

মাধবপুর বাজারে  উচ্চ মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির খবর পেয়ে বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তার বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য অভিযান করেন। এ সময় অধিক মূল্যে বাজারে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগে একজন মজুদধারীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় কয়েকজন পেঁয়াজ মজুদধারী প্রতিশ্রুতি দেন তালিকা অনুযায়ী প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৫৫টাকা দরে বিক্রি করবে।

কিন্তু পরদিন বৃহষ্পতিবার বাজার ঘুরে দেখা যায় খুচরা ব্যবসায়ীরা সাধারণ ক্রেতাদের কাছে ৮০ টাকা থেকে ১১০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি করছে।

খুচরা ব্যবসায়ীদের অভিযোগ বুধবার বাজারে অভিযান পরিচালনা করার কারণে পেঁয়াজ মজুদদাররা এখন খুচরা পর্যায়ে পেঁয়াজ বিক্রি করছে না। এ কারণে বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কম। তাই পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে নেই। তাই বাধ্য হয়েই খুচরা ব্যবসায়ীরা অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করছে।

মাধবপুর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) আয়েশা আক্তার জানান বুধবার আমরা বাজারে অভিযান পরিচালনা করে বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য পাইকারী ব্যবসায়ীদের জরিমানা ও সর্তক করেছি। আজ বৃহষ্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে নতুন একটি নির্দেশনা আসছে সেই নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা অবৈধ পেঁয়াজ মজুদধারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করব যাতে বাজার সাধারণ ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে।



সিলেটভিউ২৪ডটকম/০৩ অক্টোবর ২০১৯/এসসি/এসডি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন