আজ শনিবার, ০৬ জুন ২০২০ ইং

কাতারে ১৭ মে থেকে মাস্ক ছাড়া ঘর থেকে বের হলেই জেল-জরিমানা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৫-১৬ ১৩:১০:২৯

কাতার প্রতিনিধি :: করোনাভাইরাস এর সংক্রমণ রোধে কাতার সরকার ইতিপূর্বে নানান ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে,এখনো বন্ধ রয়েছে দেশটির  স্কুল কলেজ মসজিদ, হোটেল, রেস্তোরাঁ, পাবলিক বাস মেট্রোরেল সহ জনসমাগম এর গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো।

সরকার এর বিভিন্ন মাধ্যম থেকে বারবার জনসাধারণ কে জনসমাগম এড়িয়ে চলার ও করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারের জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দিকনির্দেশনা মেনে চলতে তাগিদ দেওয়া সত্বেও অনেকেই এখনো তা মানছে না, চলছে অবাধে চলাফেরা।

প্রতিদিনই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দেশের  বিভিন্ন অঞ্চলে মাইকিং করে জনসমাগম না করতে, অপ্রয়োজনে বাসা থেকে বের না হতে এবং মাস্ক ব্যবহার করতে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে তবুও শুনছে না মানুষ  । প্রতিদিন সন্ধ্যার পর জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দিকনির্দেশনা অমান্য করে  রাজধানী দোহার বিভিন্ন এলাকায় জনসাধারণের অপ্রয়োজনে ঘুরাঘুরি ও জনসমাগম করতে দেখা গেছে,  যাদের বেশিরভাগই মাস্ক ব্যবহার করে না এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলছে না।

বর্তমান সময়ে কাতারে করোনাভাইরাস এর উপসর্গ ছাড়াও অনেক রোগীর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে তাই করোনা,র বিস্তার ঠেকাতে সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয় আগামী ১৭ মে রবিবার থেকে পরবর্তী ঘোষণা  না দেওয়া পর্যন্ত কাতারে যে কোনো কারণে ঘর থেকে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে  । কেউ যদি তা অমান্য করে তবে ১৯৯০/১৭ নং আইন অনুসারে তাকে দু’লক্ষ রিয়াল জরিমানা বা তিনবছর এর কারাদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত করা হবে। তবে গাড়িতে যদি কেউ একা থাকে, সেক্ষেত্রে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক নয় কিন্তু সহযাত্রী থাকলে অবশ্যই প্রত্যেক কে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৬ মে ২০২০/এএস/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন