আজ সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯ ইং

ঈদে পশু কোরবানীকে ঘিরে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন কুলাউড়ার কামাররা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৮-১০ ১১:২৭:৫৩

শাকির আহমদ, কুলাউড়া :: আসছে পবিত্র ঈদুল আজহা। আর একদিন পরেই উদযাপিত হবে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। এ উপলক্ষ্যে ইতোমধ্যে গরু, ছাগলসহ বিভিন্ন পশু ক্রয়ের সাথে পশু কোরবানীর কাজে ব্যবহৃত দা, বটি, চাকু, কুড়াল, ছুরি, চাপাতিসহ সরঞ্জামও ক্রয় করছেন কোরবানী দানকারী মানুষ।

পশু কর্তণের এসব সরঞ্জামাদি যোগান দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ার কামাররা। কামারপাড়ায় এখন লোহা হাতুড়ির টুং টাং শব্দ। দিনে ও রাত জেগে নিরলসভাবে কাজ  করে যাচ্ছেন তারা। কামারদের হাতের সাহায্য নিয়ে কৃত্রিম বাতাসের তালে তারা পুড়াচ্ছেন কয়লা, জ্বালাচ্ছেন লোহা। সেই লোহাকে হাতুরী পেটা করে মনের মাধুরী মিশিয়ে তৈরী করছেন নানা প্রকৃতির ছুরি-চাকু-দা।

কামারপাড়ায় দা-ছুরি বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চাকু প্রতি পিছ ৫০-৮০ টাকা, দা ৪০০-৫০০ টাকা, চাপাতি ৩০০-৪০০ টাকা ও বটি ২০০- ২৫০। পুরনো যন্ত্রপাতি শান দিতে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত নেওয়া হচ্ছে। শহরের ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত একটানা কজ করে যাচ্ছেন কামাররা।

কুলাউড়ার বরমচাল ইউনিয়নের কারিগর জগ মহন ধর সিলেটভিউকে বলেন, ‘স্বাভাবিকভাবে এ ঈদ এলে আমাদের কাজের ব্যস্ততা বেড়ে যায়। সকাল ৯ টা থেকে রাত ১২-১ টা পর্যন্ত একটানা কাজ করতে হয়। ক্রেতাদেরও কমতি নেই। একটু বেশি আয়ের উদ্দেশ্যে দিন-রাত পরিশ্রম করতে হয় আমাদের’।

দা-ছুরি দোকানের কর্মচারি বিপন ধর সিলেটভিউকে বলেন, ‘ঈদ আইছে তাই অনেক ব্যস্ত। আমরা কিভাবে পরিবার নিয়ে চলি। মালিকের সারাদিনে পাঁচশত টাকা রুজি হলে আমাদের কত টাকাই দিবেন?’। 

গরু জবাইয়ের চাকু কিনতে আসা আব্দুস সহিদ, জামাল হাসান, তাজ খান সিলেটভিউকে বলেন, ‘বাড়িতে থাকা চাকুগুলোতে মরিচা পড়ে গেছে। ওগুলো দিয়ে মাংস কাটাকাটি করতে অসুবিধা হবে। তাই নতুন দা-চাকু কিনতে আসছি। তবে অন্য সময়ের তুলনায় ঐসবের দাম একটু বেশি রাখছে কামাররা’।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ ১০ আগস্ট ২০১৯/ এসএ/কেআরএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   এসএমপি’র কনস্টেবল আশরাফুলের জানাজা সম্পন্ন
  •   রেলওয়েস্টেশনের পরিত্যক্ত বগি থেকে মাদ্রাসাছাত্রীর লাশ উদ্ধার
  •   ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে সিলেটে আ.লীগের কর্মসূচী
  •   ‘আপন ঠিকানা’ পেল বিশ্বনাথের ১১ ভূমিহীন পরিবার
  •   'বঙ্গবন্ধুর খু‌নি মোস্তাক‌দের আত্মারা ষড়য‌ন্ত্রে লিপ্ত'
  •   শিলংয়ে সীমান্ত সম্মেলন, সিলেট থেকে গেল প্রতিনিধি দল
  •   শামিমকে দেখতে গেলেন সিলেট মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ
  •   জৈন্তাপুরে সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরীর জন্মদিন পালন
  •   সিলেট থেকে লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট চালুর দাবিতে মানববন্ধন
  •   ফ্রি বিমান ভ্রমণের জন্য যা করতে হবে
  •   কমলগঞ্জে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযানে জরিমানা
  •   যুদ্ধের কারণে কর্মহীন বাবা, খাবারের অভাবে হাড্ডিসার শিশুসন্তান
  •   বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয়ে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের খাদ্য বিতরণ
  •   কমলগঞ্জে প্রেমিকের সাথে পালাতে গিয়ে জনতার হাতে আটক গৃহবধূ
  •   খালেদা জিয়ার মত 'অবস্থা'র আশঙ্কায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভিপি নুরুল
  • সাম্প্রতিক মৌলভীবাজার খবর

  •   'বঙ্গবন্ধুর খু‌নি মোস্তাক‌দের আত্মারা ষড়য‌ন্ত্রে লিপ্ত'
  •   বড়লেখায় দুই ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত
  •   ‘বিয়ের জন্য প্রিপেয়ার্ড নই’ চিরকুটে কুলাউড়ার তরুণী
  •   মানসিক রোগ, শেষে আত্মহত্যা
  •   যুক্তরাজ্যের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পেলেন মৌলভীবাজারের ডা. শিপু
  •   বড়লেখায় গরু চুরি মামলার ৩ আসামি কারাগারে
  •   মৌলভীবাজারে মানসিক রোগী কিশোরীর আত্মহত্যা
  •   বড়লেখায় ৫৪ বোতল মদসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
  •   কুলাউড়ায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা পাঁচ
  •   কুলাউড়ায় ইভটিজিং করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক মাদ্রাসা শিক্ষক
  •   অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে পারছেন না বড়লেখার ফখর উদ্দিন
  •   দেশের প্রথম আর্টস অ্যাণ্ড স্পোর্টস মিউজিয়াম নির্মাণ হচ্ছে কুলাউড়ায়
  •   মৌলভীবাজারে আজ রবিরশ্মি'র বর্ষামঙ্গল ‘শ্রাবণধারা’
  •   বড়লেখায় ৪ মাদকসেবী আটক
  •   কমলগঞ্জে ট্রেনের নিচে পড়ে গৃহবধূর আত্মহত্যার চেষ্টা