আজ বুধবার, ২৭ মে ২০২০ ইং

কুলাউড়ায় আ.লীগের সম্মেলন নিয়ে নানা জল্পনা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-০৬ ১৭:৫১:২৯

শাকির আহমদ, কুলাউড়া :: রাজনৈতিক এবং ভৌগলিক কারনে মৌলভীবাজার জেলার অতি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা কুলাউড়া। বিগত কয়েক দশক ধরে রাজনৈতিক কারনে এই উপজেলাটি দেশব্যাপী আলোচিত ও সমালোচিত। এখানকার জনপ্রতিনিধিরা কখনো প্রশংসায় ভাসেন আবার কখনো উৎকট সমালোচনায় বিভোর থাকেন। ইতিহাস স্বাক্ষী এই উপজেলার জনপ্রতিনিধি কিংবা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তাঁদের নিজেদের স্বার্থে যখন তখন দলবদলে পটু। তবে উনাদের দাবি, জাতীয় রাজনীতির মারপ্যাঁচে পড়ে এমনটা হচ্ছে।

দীর্ঘ ১৫ বছর পর আগামী ১০ নভেম্বর কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বেশ উৎসাহ ও উদ্দীপনা নিয়ে চলছে সম্মেলন ও কাউন্সিলের কার্যক্রম। সম্মেলনকে ঘিরে কুলাউড়ার সর্বত্র চলছে কানাঘুষা। পৌর শহর থেকে ইউনিয়ন ব্যাপী চায়ের দোকানের আড্ডা বেশ জমে উঠেছে। প্রায় সকলের মুখে একই আলোচনা। কাউন্সিল কেমন হবে? কে আসছেন নতুন নেতৃত্বে? নেতাকর্মীসহ কুলাউড়া সর্বস্থরের জনগনের মধ্যে বিরাজ করছে নানা জল্পনা কল্পনা। তবে খোদ আওয়ামীলীগের নেতারাই জানেন না কেমন হতে যাচ্ছে আগামীর কমিটি। তবে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, দলের গতিশীলতা বাড়াতে যুবক ও তরুণদের সমন্ময়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের নতুন কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়া হবে।

এরআগে বারবার তারিখ ঘোষণার পরও পিছিয়ে পড়ে আওয়ামলীগের সম্মেলন। অবশেষে গত ২০ অক্টোবর এলো সেই মহেন্দ্রক্ষণ। কেন্দ্রের নির্দেশে জেলা আওয়ামীলীগ ঘোষণা করে ৩০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল। কিন্তু কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে এবং উনাদের পরামর্শে আবারও পিছিয়ে যায় কাউন্সিলের তারিখ। তবে এযাত্রায় নির্দিষ্ট করা হয়েছে আগামী ১০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের বহুল প্রতিক্ষিত সম্মেলন ও কাউন্সিল।

সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে থানা সম্মুখে দলের কার্যালয়ে রাত ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত নেতাকর্মীদের ভীড় লেগেই আছে। সময় যত ঘনিয়ে আসছে ভীড় ততই বাড়ছে। কারা আসছেন নতুন উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে, নেতৃত্ব কি জেলা থেকে ঘোষিত হবে নাকি কেন্দ্র হস্তক্ষেপ করবে, নাকি প্রত্যক্ষ কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত হবে নতুন নেতৃত্ব এমন নানা প্রশ্ন নেতাকর্মীদের মুখে মুখে। অনেকে শঙ্কা করছিলেন সম্মেলন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে কি না। তবে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনসহ কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দরা সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হওয়ার ঘোষণায় স্থানীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তাছাড়া সম্মেলনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যাপক তৎপরতা বাড়াবে বলে জানিয়েছেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা। কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা কিংবা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মেনে নেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমদ।

বিগত উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটির অনেকেই মারা যাওয়ায় এবং কেউবা প্রবাসে চলে যাওয়ায় প্রত্যক্ষ ভোটে কাউন্সিল হওয়ার সম্ভাবনা বেশ ক্ষীণ। তবে কেন্দ্র ও জেলা আওয়ামীলীগের কড়া নির্দেশ কাউন্সিলকে ঘিরে কোন বিভাজন বরদাশত করা হবে না। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে হবে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯২ সাল থেকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসা দলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রেনুর নেতৃত্বে দলের তৃণমূল নেতৃবৃন্দের মধ্যে সকল ভেদাভেদ ভুলে এখন ঐক্যবদ্ধ। উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতৃবৃন্দ নতুন নেতৃত্বের জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। তৃণমূল নেতৃবৃন্দের বিশ্বাস, দলের দুঃসময়ে অতীতের পরীক্ষিত নেতাদের হাতে উঠবে নেতৃত্বের পুরষ্কার।

আসন্ন উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে প্রকাশ্যে কেউ সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পাদক পদে নিজের নাম ঘোষণা না করলেও নেতাদের কর্মী সমর্থকরা ঠিকই ফেইসবুকে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। নিজেদের পছন্দের নেতাকে কেউ সভাপতি কিংবা কেউ সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেখতে চাইছেন।

দীর্ঘ ১৫ বছর পর সম্মেলন ও কাউন্সিল হওয়ায় পদ প্রত্যাশীদের তালিকা বেশ দীর্ঘ। অনেক নতুন নেতৃত্বও মূল পদে আসার প্রতিযোগীতায় লিপ্ত। মরিয়া হয়ে ১০ থেকে ১২ জন পদ প্রত্যাশী নেতা চাইছেন সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক পদ হাতিয়ে নিতে। চালিয়ে যাচ্ছেন জোড় লবিং। বিগত কমিটিতে ছিলেন কিন্তু দলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কর্মকান্ডে লিপ্ত ছিলেন এমন অনেকেই নতুন কমিটিতে স্থান পাবেন না বলে দলের বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

সম্মেলনের প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রেনু বলেন, সম্মেলনকে সফল করতে শ্রেণীভেদে দলের সকল নেতাকর্মী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের প্রস্তুতি অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে আমাদের সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৬ নভেম্বর ২০১৯/শাকির

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন