আজ মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং

জীববৈচিত্র্য এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অপূর্ব সমন্বয় সুন্দরবন

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৫-০৯ ১১:৫৫:৩০

মোঃ ওসমান গনি শুভ :: ‌বিশ্বের প্রাকৃতিক বিস্ময়গুলোর মধ্যে অন্যতম সুন্দরবন বঙ্গোপসাগরের উপকূলবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত৷ গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র এবং মেঘনা এই তিন নদীর অববাহিকার বদ্বীপ এলাকায় অবস্থিত এই অপরূপ বনভূমি বাংলাদেশের খুলনা, সাতক্ষীরা এবং বাগেরহাট জেলা এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গ অঙ্গরাজ্যের দুই জেলা উত্তর চব্বিশ পরগণা এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা জুড়ে বিস্তৃত।

১০,০০০ বর্গকিলোমিটার জুড়ে গড়ে ওঠা সুন্দরবনের ৬,০১৭ বর্গকিলোমিটার রয়েছে বাংলাদেশে এবং বাকি অংশ রয়েছে ভারতের মধ্যে। নোনা পরিবেশের সবচেয়ে বড় বনভূমি হলো সুন্দরবন।

মোট বনভূমির ৩১.১ শতাংশ অর্থাৎ ১,৮৭৪ বর্গকিলোমিটার জুড়ে রয়েছে নদীনালা,খাঁড়ি,বিল মিলিয়ে জনাকীর্ণ অঞ্চল।
সুন্দরবনে বিভিন্ন প্রকার জীববৈচিত্র্য যেমন - রয়েল বেঙ্গল টাইগার, চিত্রা হরিণ, কুমির এবং সাপসহ বিভিন্ন জাতের প্রাণী। জরিপ অনুযায়ী ১০৬টি বাঘ এবং ১,০০,০০০ থেকে ১,৫০,০০০ চিত্রা হরিণ রয়েছে সুন্দরবন এলাকায়। ১৯৯২ সালের ২১শে মে সুন্দরবন রামসার স্থান হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। সুন্দরবন বাংলাদেশে "সুন্দরবন" এবং ভারতে "সুন্দরবন জাতীয় উদ্যান" নামে পরিচিত। সুন্দরবন ১৯৯৭ সালে ইউনেস্কো কর্তৃক বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। সুন্দরবনে জালের মতো ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে
সামুদ্রিক স্রোতধারা, কাদা, চর এবং ছোটো ছোটো দ্বীপমালা।

পুরো সুন্দরবন অঞ্চল জুড়ে রয়েছ সুন্দরী এবং গেওয়ার পাশাপাশি ধুন্দল,কেউড়া,শন,নল খাগড়া,গোলপাতা। কেউড়া নতুন তৈরি হওয়া পলিভূমিকে নির্দেশ করে।বনভূমির পাশাপাশি সুন্দরবনের বিশাল এলাকা জুড়ে রয়েছে নোনা এবং মিঠা পানির জলাধার, আন্ত:স্রোতীয় পলিভূমি, বালুচর, বালিয়াড়ি। বেলে মাটিতে উন্মুক্ত তৃণভূমি এবং গাছ ও গুল্মের এলাকা।

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের অর্থনীতিতে যেমন, ঠিক তেমনি জাতীয় অর্থনীতিতেও সুন্দরবনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।এটি দেশের বনজ সম্পদের মধ্যে একক বৃহত্তম উৎস। এই বন কাঠের উপর নির্ভরশীল শিল্পে কাঁচামালের যোগান দেয়।এছাড়াও কাঠ, জ্বালানি ও মন্ডের পাশাপাশি এই বন থেকে নিয়মিত ব্যাপকভাবে আহোরণ করা হয় ঘর ছাওয়ার পাতা,মধু,মৌচাকের মোম, মাছ, কচ্ছপ,কুঁচি, কাঁকড়া,শামুক এবং ঝিনুক।বৃক্ষপূর্ণ সুন্দরবনের ভূমি একই সাথে প্রয়োজনীয় আবাসস্থল, পুষ্টি উৎপাদক, পানি বিশুদ্ধকারক, পলি সঞ্চয়কারী, ঘূর্ণিঝড় প্রতিরোধক, উপকূল স্থিতিকারী, শক্তি সম্পদের আধার এবং পর্যটনকেন্দ্র।

লেখক : শিক্ষার্থী, পালি এ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   শাবি ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত
  •   মণিপুরী ভাষা ও শিক্ষা বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত
  •   সিলেট-ঢাকা ছয় লেন প্রকল্পের জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডি.ও, কাদেরের আশ্বাস
  •   মিরাবাজারে ১১তম বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল আজ
  •   নানা আয়োজনে আব্দুল গফুর একাডেমির যুগপূর্তি উৎসব অনুষ্ঠিত
  •   ‘অঘটন’ পেরিয়ে সিলেট যুবদলে অন্য সুর
  •   ১৮ কোটির দেশে আড়াইশ’ জনকে নিয়ে পর্ণ ভিডিও এমন কি?
  •   শিক্ষাব্রতী শওকত আলী স্মারকের মোড়ক উন্মোচন
  •   ভালোবাসায় সিক্ত খন্দকার বাজার হাইস্কুলের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক
  •   নূপুর সংগীত তারকা প্রতিযোগিতা ৬ মার্চ
  •   সদর আ.লীগ সভাপতি বাদশার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল মঙ্গলবার
  •   আজাদ কাপের চতুর্থ রাউন্ডের সাতছড়ি ও লাউয়াছড়া গ্রুপের খেলা সম্পন্ন
  •   বিএডিসি’র উদ্যোগে বারি হাইব্রিড মিষ্টি কুমড়ার উপর মাঠ দিবস
  •   যুক্তরাজ্য মহিলা আ'লীগের দুই নেত্রীকে সিলেটে সংবর্ধনা
  •   নগরীর অপরিকল্পিত উন্নয়ন জনদুর্ভোগের কারণ: বাসদ
  • সাম্প্রতিক মুক্তমত খবর

  •   ‘পাপিয়ার মুক্তি চাই’
  •   বিশ্বের বৃহত্তম গাড়ির নিলামে একদিন
  •   লুটা বদনা রেখে এখন আমরা শান দিচ্ছি লিখা চুরিতে!
  •   ওয়াজ মাহফিলের নামে ভন্ডামী, গীবত, ইসলামের অপব্যাখা বন্ধ হোক
  •   মধুর মলয়-সমীরে মধুর মিলন রটাতে বসন্ত আজ এসে গেছে
  •   ভবন নির্মাণে চাই বাড়তি সতর্কতা
  •   দুই কিংবদন্তি
  •   বিএসফের গুলিতে সীমান্তের কাঁটাতারে বাঙ্গলী ঝুলছে!
  •   সিলেটজুড়ে মানবতার আলোকবর্তিকার মহিমান্বিত নাম
  •   অমরত্বের প্রত্যাশা নেই
  •   শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাজনীতি এবং সংকট: সাম্প্রতিক ভাবনা
  •   শীতকালীন প্রকৃতি ও মানব জীবনের পরিবেশ দর্শন
  •   এ যুগের অগ্নিকন্যা ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পি
  •   ওয়াজ, পু‌জা মিথ আর মিথ্যার রাজনীতি
  •   এম এ মান্নান এক বিস্ময়কর যোদ্ধার জীবন