আজ মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০ ইং

স্বাধীন বাংলার উন্নয়ন ও বিচক্ষণ নেত্রী শেখ হাসিনা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৯-১৭ ১৪:১৮:০৮

শাফক্বাত হাসান :: মমতাময়ী নেত্রী,আশা আকাঙ্ক্ষা ঠিকানা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্যতা, দক্ষতা ও প্রাজ্ঞতা দিয়ে বিশ্বের সেরা নেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি এমন একজন নেত্রী বিশ্বের কোনো রাষ্ট্রপ্রধান এত পুরস্কারে ভূষিত হননি। যে অর্জন আমাদের নেত্রী করেছেন দেশবাসীর জন্য গর্বের বিষয়।

বাংলাদেশ বর্তমান সরকারের অধীনে দেশ যেভাবে এগিয়ে চলছে এটা স্বল্পোন্নত সব দেশের কাছেই রোল মডেল হিসেবে ইতিমধ্যেই বিবেচিত হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও তার পিতৃভূমি কেনিয়াতে গিয়ে এক সুধী সভায় বলেছিলেন, স্বল্পোন্নত দরিদ্র দেশগুলোতে দ্রুত উন্নতি করার জন্য বাংলাদেশকে রোল মডেল হিসেবে বিবেচনা করতে পারেন।এই প্রশংসা সত্যি আমাদের জন্য গর্বের।

জার্মানির প্রেসিডেন্ট অ্যাঞ্জেলা মার্কেলকে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি প্রজ্ঞা ও প্রভাবশালী নেত্রী হিসেবে বলা হত কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী বিশ্বের কাছে বিচক্ষণ ও দূরদর্শী নেত্রী হিসেবে স্বীকৃতি পাচ্ছেন।উন্নত বিশ্বের রাষ্ট্র প্রধানগণ ও আমাদের নেত্রীর ভূয়সী প্রশংসা ও অনুকরণীয় করছেন।কিছু দিন আগেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এক ভাষণে অকপটে বলেই ফেলেছেন পাকিস্তানের চেয়ে সব খাতে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। যে পাকিস্তান একসময় বাংলাদেশকে শোষণ-নিপীড়ন করেছিল, আজ বাংলাদেশের অদম্য গতির উন্নয়ন দেখে সেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী সাবেক তারকা ক্রিকেটার ইমরান খান আক্ষেপ করেছেন। তিনি বাংলাদেশের উন্নতির সঙ্গে নিজের দেশের উন্নতির তুলনা করতে গিয়ে আক্ষেপ করে বলেন, ‘সব কিছুতেই আজ আমাদের চেয়ে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ।’

বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে, দল-মত নির্বিশেষে গ্রামের কৃষক থেকে শুরু করে শিল্পপতি,বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অনুধাবন করছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণে দেশে শান্তিপূর্ণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে।শুধু তাই নাই এমন ও সময়  ছিল যখন দেশে চূড়ান্ত পর্যায়ের অরাজকতা আর নৈরাজ্য ছিল,যখন হরতাল শব্দটি ছিল মানুষের একটি আতংকের নাম  নেত্রীর সূদুর প্রসারী আর বিচক্ষণ নেতৃত্ব এ দেশের হরতাল নামের শব্দটিই সাধারণ জনগণ ভুলতে চলেছে।

বাংলাদেশের জনগণ শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছে।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে জাতীয় নির্বাচনের ইশতেহারে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দূর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ও কঠোর থাকবেন,সবাই ইতোমধ্যে অবলোকন করছেন যে নেত্রীর দূর্নীতির প্রতি কঠোরতা।নেত্রী বলেছিলেন গ্রাম হবে শহর সেই লক্ষ্যে ইতিমধ্যে বিভিন্ন প্রকল্প সরকার হাতে নিয়েছে।বাংলাদেশ আজ অনুন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় নাম লিখিয়েছে।বর্তমান সরকারের উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিশন ২০৪১ এর লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছে।সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড,শতভাগ মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে জনগনের সচেতনতা ও উন্নত রাষ্ট্র পরিণত করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।

সেই লক্ষ্যে সবাইকে দল মত নির্বিশেষে নিজের দায়িত্ববোধ থেকে এগিয়ে আসতে হবে,তবেই বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা অর্জিত হবে।


লেখক : সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ ও সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ, সিলেট জেলা।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন