আজ বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ ইং

উলুবনে মুক্তা ছড়ানো

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২১-০১-১১ ১৫:৩৪:২৬

ফারজানা ইসলাম লিনু :: উলুবনে মুক্তা ছড়ানোতে আমার ঘোর আপত্তি। কারণ উলুবন তথা অস্থানে ছড়ানোর মতো আসল মুক্তা কি, পুথির মুক্তাও আমার ঝুলিতে নেই।  তবুও নিজের অজান্তে আজকে অমন একটা আগলঠাইয়্যামি কাজ করে ফেললাম।

এখন নিজের উপর কিঞ্চিৎ রাগ হচ্ছে। একেবারে কিড়মিড়ে রাগ।

ফেসবুক নামক সোশ্যাল মিডিয়া অতি পাকনা, ইচড়েপাকা বাছুরে ভরে গিয়েছে। এইসব এড়ে বাছুর ও বকনা বাছুরদের তাড়াতে হবে, নইলে নিজেকেই সরে পড়তে হবে।

"ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে কোনো নৈতিক শিক্ষা নাই, মা বাবা সন্তানরে ইংলিশ মিডিয়ামে পড়াইয়া শিখাইয়া দেয়, বাপধনেরা, আম্মাজানেরা ইচ্ছামতো বয়ফ্রেন্ডের সাথে ঘুরাও, ঘুমাও, রেইপ হও, রেইপ করো, জান দাও, জেল খাটো, চৌদ্দ শিকের ভেতরে কয়েক বছর কাটাইয়া ফাঁসিতে ঝুলো".... ব্লা ব্লা ব্লা।

"সব দোষ শালার ইংলিশ মিডিয়ামের। বাপ মায়ের সাথে ইংলিশ মিডিয়ামের মাষ্টর, মাষ্টর্নিগুলাও বদের হাড্ডি বদ। পোলাপাইনরে পড়া শুনা রাখিয়া খালি শয়তানি শিখায়।"

ঢাকার নামকরা ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের জনৈক ছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডের মতো সামাজিক বিষয় আশয় নিয়ে ফেসবুক নামক পিএইচডি প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক জ্ঞানগর্ভ আলোচনা হচ্ছে। গুরুগম্ভীর বিড়াল তপস্বী  সব বক্তাদের মাঝে আমার মতো মূর্খরা একেবারেই  বেমানান।
সুতরাং মন্তব্য নিষ্প্রয়োজন।

ধর্ষণের প্রতিবাদ রেখে আমরা ভিকটিমকে ভার্চ্যুয়ালি ধর্ষণ করছি বার বার, সেইসাথে তার পরিবারকেও।

অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে- এই পর্যন্ত দেশের সব ধর্ষক ও ধর্ষিতা তো ইংলিশ মিডিয়ামেই পড়েছে।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন