আজ বুধবার, ২৭ মে ২০২০ ইং

জগন্নাথপুরে বেড়িবাঁধ কাটা নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-০৫ ১৯:১১:২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, জগন্নাথপুর :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাধ কাটা নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের গন্ধর্বপুর গ্রামের পাশে বড় ডহর নদীর মুখে হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাধ রয়েছে। এ বাধের কারণে স্থানীয় পিপরাইল, বইছাখালী ও কাপনার হাওর সহ ছোট ৩টি হাওরের ফসল রক্ষা হয়ে থাকে। তবে বাধ কেটে দেয়ায় হাওর থেকে পানি নদীতে নেমে যাচ্ছে দেখে গন্ধর্বপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমে ২৭ অক্টোবর বাধের ভাঙনে মাটি ভরাট করা হয়।

এ নিয়ে গত ২৮ অক্টোবর গন্ধর্বপুর গ্রামের নুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া ও মৃত ইয়ান উল্লার ছেলে কালা মিয়ার লোকজন হাওরে মাছ ধরার জন্য বাধটি কেটে দিয়েছেন বলে গ্রামবাসীর পক্ষে একটি অভিযোগ জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে প্রদান করা হয়।

এদিকে-একই ঘটনায় গত ৩ নভেম্বর গন্ধর্বপুর গ্রামের ইয়ান উল্লার ছেলে কালা মিয়া ও নুরুল রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া একই গ্রামের সুজাত মিয়া গংদের বিরুদ্ধে আরেকটি অভিযোগ জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে প্রদান করেন।

মঙ্গলবার সরজমিনে দেখা যায়, বড় ডহরের সাবেক পুরনো বেড়িবাধের ভাঙনে বাধ রয়েছে। তবে দুইপক্ষের লোকজন পরস্পর বিরোধী মন্তব্য করেন।

গ্রামবাসী পক্ষের লোকজন অভিযোগ করে বলেন, প্রথমে তারা বাধ কেটে দিলেও পরে আবার মাটি ভরাট করেছেন।

এ সময় জাহাঙ্গীর মিয়া পক্ষের লোকজন বলেন, আমরা কখনো বাধ কেটে দেয়নি। বরং বাধের ভাঙনে গ্রামবাসীর সাথে আমরাও মাটি ভরাট করেছি। তারা অযথা আমাদের হয়রানী করার চেষ্টা করছেন।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/০৫ নভেম্বর ২০১৯/এসএইচএস/এসডি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন