আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং

সুনামগঞ্জে রাতারাতি অস্থির পেঁয়াজের বাজার

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৯-১৫ ১৭:৪২:৪০

শহীদনূর আহমদ, সুনামগঞ্জ :: রাতারাতি অস্থির সুনামগঞ্জের পেঁয়াজের বাজার। শহরের পাইকারি ও খুচরা বাজারে অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। উপজেলা কিংবা গ্রামের বাজারের অবস্থা আরো খারাপ।

মঙ্গলবার সুনামগঞ্জ শহরের পাইকারি ও খুচরা বাজারে হঠাৎ করে ৪০ থেকে টাকা থেকে একলাফে ৬৫-৭৫ টাকায় পৌঁছেছে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম। গ্রামীণ বাজারে আরও বেশি দামে বিক্রি করা হচ্ছে মসলা জাতীয় এই পণ্যটি। রাতের ব্যবধানে পেঁয়াজের বাজারে এমন অস্থিরতায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভোক্তারা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মিডিয়ার মাধ্যমে পেঁয়াজের দাম বাড়ার সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে একদল অসাধু ব্যবসায়ী অতিরিক্ত মুনাফা লাভে হঠাৎ করেই পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। এখনও বাজার নিয়ন্ত্রণে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে পেঁয়াজের দাম সাধারণের ক্ষয়ক্ষমতার বাহিরে চলে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা।

মঙ্গলবার সরেজমিনে জেলা শহরের খুচরা ও পাইকারী বাজার ঘুরে দেখা যায় পেঁয়াজের লাগামহীন দামের চিত্র। শহরের ট্রাফিক পয়েন্ট এলাকায় রহমান কনফেকশনারী, হৃদি ভ্যারাইট্রিজ, ডিএস রোডের গৌরারং স্টোরে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকায়। জেলরোড এরাকার খুচরা দোকানে ৬২ থেকে ৭৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম। একেক দোকানে একেক মূলে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। নির্দিষ্ট মূল্য তালিকায় অনুযায়ি পেঁয়াজ বিক্রির কথা থাকলেও কোথাও তা মানা হচ্ছে না।

এদিকে পাইকারি বাজারেও অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করা হচ্ছে পেঁয়াজ। গতকাল যে পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল আজকে তা ৬০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। পাইকারি দোকান মোল্লা মেসার্সে ৬০ টাকা বিক্রি করা হলেও এর পাশের দোকানে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়।

মূল্যের এমন পার্থক্য কেনও জানতে চাইলে মোল্লা মেসার্সের ম্যানেজার (নাম প্রকাশ করতে ইচ্ছুক) জানান, নতুন চালানে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ আমাদানি করার করায় দাম বেশি রাখতে হচ্ছে বলে জানান তিনি।

জেল রোড এলাকার দোকানী নান্টু রায় বলেন, পাইকারি বাজার থেকে ৭ বস্তা পেঁয়াজ আনছি। যার কেজি প্রতি দর পড়েছে ৬০ টাকা। গ্রাহকদের কাছে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম নিচ্ছি ৬২-৬৫ টাকায়।

এদিকে পেঁয়াজের অতিরিক্ত মূল্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা সাধারণ ক্রেতারা।

শামীম নামে এক ক্রেতা বলেন, গতকাল পেঁয়াজের কেজি ছিল ৪০ টাকা। রাতারাতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ টাকায়। কি এমন হলো ১ রাতে দাম ৩০ থেকে ৩৫ টাকা বেড়ে গেল।

ফয়জুর রহমান নামে আরেক ক্রেতা বলেন, হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেল। আমরা মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষ। করোনার সময় পরিবারের আর্থিক অবস্থা খারাপের দিকে। এইভাবে নিত্যপণ্যের দাম বাড়লে আমরা কোথায় যাবো।

সুনামগঞ্জ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে সহকারি পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রতিনিয়িত বাজারে অভিযান পরিচালনা করছি। নিত্যপণ্য পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি রাখার অভিযোগ পেয়েছি। যেসকল অসুাধু ব্যবসায়ি কোনো কারন ছাড়া পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি করবে অভিযানের মাধ্যমে তাদের জরিমানার আওতায় আনা হবে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০/এসএনএ/এসডি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সাম্প্রতিক সুনামগঞ্জ খবর

  •   দোয়ারাবাজারে নিরাপত্তাহীনতায় অসহায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবার
  •   ভিপি নূরের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন
  •   সুনামগঞ্জে র‌্যাবের পৃথক অভিযান : অস্ত্র ও বিড়ি উদ্ধার, আটক ৪
  •   দিরাইয়ে ভারতীয় বিড়ি বিক্রেতা আটক
  •   জগন্নাথপুর পৌরসভার উপনির্বাচন ১০ অক্টোবর
  •   জগন্নাথপুরে পাষন্ড স্বামীর দায়ের কোপে স্ত্রী খুন
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে সরকারি বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে ইএএলজির সমন্বয় সভা
  •   জগন্নাথপুরে জোরপূর্বক তরুণীর নগ্ন ছবি তুলে যা করলো বখাটে যুবক
  •   শিক্ষক সমাজের কাছে জাতির প্রত্যাশা অনেক: ছাতকে ড. শহীদুর রহমান
  •   ‘টাঙ্গুয়ার হাওর এলাকায় নৌ-পুলিশের স্টেশন করা হবে’