আজ সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১ ইং

জগন্নাথপুরে বর্তমান ও সাবেক মেয়রের লড়াই!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২১-০১-১৪ ১৮:২২:১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, জগন্নাথপুর :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে এসেছে। আর মাত্র একদিন পরই, আগামী শনিবার (১৬ জানুয়ারি) পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এবারই প্রথমবারের মতো এ পৌরসভার ভোটাররা ইভিএমে ভোট দেবেন। এ নিয়ে পৌর নাগরিকদের মধ্যে রয়েছে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া। এর মধ্যেও প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন, দোয়া ও ভালোবাসা চাইছেন।

এবারের নির্বাচনে জগন্নাথপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীসহ ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও শেষমুহূর্তে ভোটের লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে দুই ‘মেয়রের’ মধ্যে। এমন আভাস ভোটারদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে।

জগন্নাথপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া (নৌকা প্রতীক), যিনি বর্তমান মেয়র। নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন পৌর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক হারুনুজ্জামান (ধানের শীষ প্রতীক)।

স্বতন্ত্র থেকে প্রার্থী হয়েছেন সাবেক পৌর মেয়র ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আক্তারুজ্জামান আক্তার (চামচ প্রতীক), বিষ্ণু রায় বিশ্ব (জগ প্রতীক) ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী আমজদ আলী শফিক (মোবাইল ফোন প্রতীক)।

জানা যায়, ১৯৯৯ সালে জগন্নাথপুর উপজেলা সদর ইউনিয়ন পরিষদকে পৌরসভায় রূপান্তরিত করে ২০০০ সালে প্রথম পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তখন উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি হারুনুর রশীদ হিরণ মিয়া মেয়র নির্বাচিত হন। অল্প দিন পরেই তিনি মৃত্যুবরণ করলে উপনির্বাচনে তাঁর ছেলে মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া মেয়র নির্বাচিত হন। ২০০৫ সালে নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল মনাফ মেয়র নির্বাচিত হন।

২০১০ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে উপজেলা বিএনপি সভাপতি আক্তারুজ্জামান আক্তার মেয়র নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মনাফ দ্বিতীয় দফায় মেয়র নির্বাচিত হন। দায়িত্বপালনকালে গত বছরের ১১ জানুয়ারি তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরে শুন্য পদে গত ১০ অক্টোবর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া।

নির্বাচিত পরিষদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় আগামী পরশু জগন্নাথপুর পৌরসভায় ভোটের দিনক্ষণ চূড়ান্ত করে নির্বাচন কমিশন। এ দিন দেশের আরও ৬৫টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হবে।

জানা গেছে, ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত জগন্নাথপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯ জন নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২৮ হাজার ৬৪০ জন।

মেয়র পদের প্রার্থীরাই বর্তমানে সবচেয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটারদের কাছে গিয়ে ভোট চাইছেন, দোয়া ও সমর্থন চাইছেন।

পৌরসভার বিপুল সংখ্যক ভোটারের সাথে কথা বলে আভাস মিলেছে, এবার আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আক্তারুজ্জামান আক্তারের মধ্যে মূল লড়াই হতে পারে। প্রচার-প্রচারণায় এ দুজনকে বেশ সক্রিয় দেখা যাচ্ছে। তবে বিএনপির প্রার্থী হারুনুজ্জামান হারুনেরও ভালো সম্ভাবনা আছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

এসব মেয়র প্রার্থীর প্রত্যেকেই নিজেদের জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

এদিকে, ইভিএমে ভোট দেওয়া নিয়ে মানুষের মধ্যে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া কাজ করছে। অনেকেই বলছেন, ব্যালটের মাধ্যমে ভোট হলেই ভালো হতো।

তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জানান, একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুস্ঠু নির্বাচন আয়োজনে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/সুনু/আরআই-কে -০৩

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সাম্প্রতিক সুনামগঞ্জ খবর

  •   দোয়ারাবাজারে রামপুর ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন
  •   ছাতকে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন
  •   ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ও উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে ছাতক থানায় আনন্দ উদযাপন
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হাওর ফসল রক্ষা বাঁধ পরিদর্শন
  •   দোয়ারাবাজার সীমান্তে ভারতীয় বিড়ি ও মদের চালান আটক
  •   জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ২০১৮ ব্যাচের সভাপতি দিরাইয়ের অসীম
  •   ৭ই মার্চ উপলক্ষে দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও আলোচনা সভা
  •   সুনামগঞ্জের নেতৃত্বে কোনো বিতর্কিত মানুষ দেয়া হবে না : এমপি মানিক
  •   বিজিবি-চোরাকারবারি সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত এক
  •   ছাতকে পাউবোর খাল খনন প্রকল্পে পুকুর চুরি!