আজ শনিবার, ০৬ জুন ২০২০ ইং

নিউইয়র্কে করোনায় মারা গেলেন ব্যারিস্টার সুমনের ভাতিজা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৫-১৪ ২২:৫৪:৫৭

সিলেটভিউ ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস শুধু প্রবীণ না অনেক যুবক ও তরুণের জীবনও কেড়ে নিচ্ছে। বুধবার নিউইয়র্কে ৩৮ বছর বয়সী দুই যুবক করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এদের মধ্যে একজন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের ভাতিজা।

তাদের নিয়ে নিউইয়র্কে এ পর্যন্ত ২৩৫ জন মারা গেলেন এই মহামারীতে। আর ৫৮ দিন শেষে যুক্তরাষ্ট্রের ৬টি রাজ্যে মারা গেছেন মোট ২৫৬ জন বাংলাদেশি।

বুধবার (১৩ মে) ওজন পার্কের বাসিন্দা সৈয়দ মোহাম্মদ রশিদ মুন্না কুইন্স হাসপাতালে তিন সপ্তাহ করোনার সঙ্গে লড়ে মারা যান। দুই সন্তানের জনক মুন্না বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের ভাইয়ের ছেলে ও নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমদাদ চৌধুরীর বড় বোনের ছেলে। ম্যানহাটনের একটি রেস্টুরেন্টের কর্মী ছিলেন মুন্না।

এদিন লং আইলান্ডের বাসিন্দা গৌরাঙ্গ বিশ্বাস ৪০ দিন এই মরণঘাতী জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করে হেরে যান।  লং আইল্যান্ড জ্যুইশ হাসপাতালে গৌরাঙ্গের সঙ্গে তার ছোট ভাই প্রদীপ বিশ্বাসও করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গৌরাঙ্গ কুইন্সের জেএফকে এয়ারপোর্ট সংলগ্ন হোটেল নাইনটি ফাইভে কাজ করতেন। -সমকাল/পিডি

@

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন