আজ বুধবার, ২০ জুন ২০১৮ ইং

সুনামগঞ্জের আলোকিত গীতিকার ও সুরকার শেখ এমএ ওয়ারিশ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৬-০৭ ১৭:৪০:৫২

হিল্লোল পুরকায়স্থ :: মরমী কবি  হাসন রাজা ও বিখ্যাত ধামাইল গানের জনক, দেহতত্ত্ব, বিচ্ছেদী, রাধাকৃষ্ণের পদাবলীসহ অসংখ্য গানের স্রষ্টা রাধারমন এবং বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের সুনামগঞ্জে বর্তমানে এক আলোকিত গীতিকার ও সুরকার হলেন শেখ এম এ ওয়ারিশ।

তিনি সুনামগঞ্জ শহরস্থ মল্লিকা ৩ আ/ এ পূর্ব মল্লিকপুরে বসবাস করেন। শেখ এম এ ওয়ারিশ সুনামগঞ্জ থানার মোহন পুর ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

লোক গানঃ এই দুনিয়া পাগলা গারদ, সব পাগলের আস্তানা। পাগলে পাগলরে বুঝায় পাগলামী তুই করিসনা। দেশাত্বঃ তুমার দুখে কাঁদি মাগো তুমার সুখে হাসি,জন্মভূমি বাংলা মাগো তুমায় ভালবাসি।

গণসঙ্গীতঃ তুমরা যারা নব দিগন্ত এ প্রজন্মের সন্তান, আমরা মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি শুন মোদের গান।

আধুনিকঃ আমি ভালবেসেছি তুমাকে জানিনা তুমি মেনেনেবে কি নেবেনা আমাকে।

আধ্যাত্তিকঃ যেজন হাকিমের হাকিম, যেজন দারগার অসি চোরামন তারে চিননি।বাউলঃ রঙ্গের বাজার রঙ্গের হাট, রঙ্গের দোকানদারি ওমন বেপারী হিসাব নিকাশ কর তাড়াতাড়ি।

ব্যাণ্ডঃ সাবাস সাবাস বীর বাঙ্গালি, বাংলার ক্রিকেট প্লিয়ার,ধন্য ধন্য ধন্যবাদ, রয়েল বেঙ্গল টাইগার। লোক ব্যাণ্ডঃ কষ্ট কষ্ট কষ্ট কিয়ে কষ্ট, হয়েছে মাথা নষ্ট, সইতে পারিনা,কইতে পারিনা বলতে পারিনা স্পষ্ট। আয়ান বিচ্ছেদঃ কও চাই কেমনে মুখ দেখাই, প্রেম বাড়াইয়া ছাইড়া গেল বিনোদিনী রাই, মিষ্টি মিষ্টি কথা কইয়া এখন দেখি নাই।

(বাংলার সঙ্গীতে নূতন সংযোজন) বিচ্ছেদঃ সাড়া রাত জাগিয়া কঠাইলাম বন্ধুয়ারে, নিশি বুঝি হইয়াগেল ভোর। দামাইলঃ সখি কদম তলায় গিয়া, কি দেখলাম কি দেখলাম সখি কই ত্বরে বুঝাইয়ারে কদম।

আঞ্চলিকঃ ইতা কিতা অইতাছে ভাই এইডা কোনডা ঘটতাছে, দুই লম্বরে বাজার পাইলাইছে।
ইসলামি গানঃ আহলান সাহলান মাহে রমাদ্বান,শোন মমিন মোসলমান। আবার ঘুরে এলো ফিরে পবিত্র মাহে রমজান। নাতে রাছুলঃ ইসলামের গুলবাগিচায় ফুঠল  একটা সুগন্ধি ফুল, সেই ফুলের নামটি হল হযরত মোহাম্মদ রাসুল। ঈদের গানঃ ঈদ এলো ঈদ এলো, বছর ঘুরে ঈদ এলো, বিশ্ব মোসলিমের ঘরে ঘরে খিশির বন্যা বসলো। বৈশাখী গানঃ আয়রে খোকা আয়রে খুকু দেখবি যদি আয়, দল বাঁধিয়া যাইব মোরা বৈশাখী মেলায়। রাইশ্যাম ধ্বারাঃ প্রাণ সখিরে, সব সখি মিলিয়া আমার কুঞ্জ দাও সাজাইয়া।

বঙ্গবন্ধুঃ মেধা ও মননে চিন্তা চেতনায় বঙ্গবন্ধু একটি নাম,বাঙ্গালির নেতা শেখ মুজিবুর রহমান।প্রধান মন্ত্রীঃ যোগ্যপিতার যোগ্য সন্তান এরকম অসংখ্য গান রচিত হয়েছে শেখ এম এ ওয়ারিশের  কথা ও সুরে।তিনি বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডের কবি , গীতিকার ও সুরকার। বাংলাদেশ টেলিভিশন পরিবারের একজন সম্মানিত সদস্য, বাংলা সংগীত ভুবনে কথা ও সুরের নান্দনিক জাদুকর,  সুনামগঞ্জের  আলোকিত কৃতিজন শেখ এম এ ওয়ারিশ । জানা যায়, বাংলাদেশের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে যে কয়জন গীতিকার ও সুরকার রয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন  গীতিকার ও সুরকার হলেন শেখ এম এ ওয়ারিশ।  তার কথা ও সুরের সংগীত আজ জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পীর মাধ্যমে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে সহ বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে  পরিবেশিত  হয়ে আসছে।

শেখ এম এ ওয়ারিশ জানান, গত ১৬ মার্চ'১৮ বিটিভির রাষ্ট্রিয় প্রোগ্রামে "মার্চের উত্তাল দিনগুলি" অনুষ্ঠানে তার লেখা দলীয় গণসঙ্গীত" লড়তে পারি মরতে পারি মাতৃভূমির জন্য"। বিটিভির আর্কািইভ থেকে বাচাইকরা গানটি রাষ্ট্রীয় সঙ্গীত হিসেবে গণ্য হয়। এছাড়াও বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে এ পর্যন্ত তার লিখা ৫২ টি গান প্রচারিত হয়, আর তার লিখা সব কয়টি গান হিট হয়েছে। তিনি গত ২৯ মার্চ ঢাকায় জাতীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন গণআজাদী শিল্পীগোষ্ঠী অায়োজনে স্বাধীনবাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠ সৈনিকদের সঙ্গে সংগীত বিচারক, কালজয়ী গীতিকার ও সুরকার হিসেবে "মহান স্বাধীনতা দিবস তর্কবাগীশ ২০১৭" সম্মাননা লাভ করেন।
এ ছাড়াও বিশিষ্ট গীতকার পদক -২০১৩"। প্রতিভা বিকাশ বাংলাদেশ কর্তৃক গুণিজন সম্মাননা।জেলা গীতিকার ফোরাম সুনামগঞ্ছ কর্তৃক গীতি কবিতায় বিশষ অবদেনের জন্য গুণিজন সম্মাননা - ২০১৬"। গণ আজাদীলীগ শিল্পী গোষ্টি, ঢাকা কর্তৃক মহান স্বাধীনতা দিবসে উপলক্ষে কালজয়ী গীতিকার ওসুরকার সম্মাননা ২০১৬"। ইউনাইটেট মুভমেন্ট ফর হিউম্যান রাইটস, ঢাকা বাংলাদেশ কর্তৃক মহাত্মাগান্ধী পিস এওয়ার্ড ২০১৭"। জাগো যুবক ঢাকা বাংলাদেশ কর্তৃক জাতীয় যুব দিবসে সঙ্গীতে বিশেষ অবদানের জন্য বিশিষ্ট গীতিকার সম্মাননা -২০১৭"। বাংলাভাষা ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ঢাকা কর্তৃক সফল গীতিকার ও সুরকার হিসাবে সম্মাননা ২০১৭"। সারেগামা শিশু সংগঠন ও সামাজিক সংস্থা সুনামগঞ্জ কর্তৃক - বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের বিশিষ্ট গীতিকার ও পারিবারিক অবস্থান বিবেচনায়  আলোকিত পরিবার গুনিজন সম্মাননা ২০১৭" ছাড়াও সুনামগঞ্জে প্রায় ২০টির অধিক সম্মাননা স্মারক পান। তার লিখা প্রকাশিত গ্রন্থ  সঙ্গীত গ্রন্থ তিনটি ১। ওয়ারিশ সঙ্গীত ১ম খন্ড ২। ওয়ারিশ সঙ্গীত ২য় খন্ড ৩। ওয়ারিশ সঙ্গীত ৩য় খন্ড ও একটি কাব্য গ্রন্থ "প্রেয়মী " (বাংলা)।


লেখক: সাংবাদিক, দিরাই উপজেলা, সুনামগঞ্জ।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেট সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে সাইদীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ
  •   রাজশাহী, বরিশালের ঐক্য দেখাতে পারল না সিলেট আ.লীগ
  •   গালিগালাজ স্বাস্থের জন্য উপকারী!
  •   ভিসা ছাড়াই ১ মাস থাকার সুযোগ হাইনান দ্বীপে
  •   ব্রাজিল মিডিয়ায় নেইমারের মুণ্ডপাত
  •   যেসব কারণে শহরের মেয়েরা বেশি মোটা হয়!
  •   নবনির্বাচিত ছাত্রদল নেতৃবৃন্দকে সিলেট বিএনপির অভিনন্দন
  •   বিয়েতে কমে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের সম্ভাবনা
  •   আর্জেন্টিনা একাদশে আসছে ব্যাপক পরিবর্তন!
  •   ‘স্পেন-পর্তুগালকে ভয় পায় না ইরান’
  •   মৃত্যুর দিনক্ষণ বলে দেবে গুগল!
  •   বোমা ফাটালেন শাকিরা...
  •   লাল কার্ড পেয়ে ইতিহাস গড়লেন সানচেজ!
  •   বিশ্বকাপের গ্যালারিতে উষ্ণতা ছড়ালেন ব্রিটিশ সুন্দরীরা
  •   বিশ্বকাপে সমকামিতা বিরোধী স্লোগান
  • সাম্প্রতিক ফিচার খবর

  •   মৌলভীবাজা‌রের বন্যা ও লন্ড‌নে‌র টিভি‌তে ভিক্ষা তোলা
  •   বাবা, তুমি আছো অস্তিত্বজুড়ে
  •   বাবার জন্যে ভালোবাসা
  •   আমার তারকা আমার বিশ্বকাপ
  •   আমি ছিলাম বাবার হৃদপিন্ড, বাবা ছিলেন আমার বটবৃক্ষ
  •   কূট‌নৈ‌তিক অাকা‌শে অাজ শকু‌নের হান‌া
  •   স্বাধিকার আন্দোলনের প্রথম শহীদ বিয়ানীবাজারের সূর্যসন্তান শহীদ মনু মিয়া
  •   বিশ্বের সবচেয়ে দামি ১০ পাসপোর্ট
  •   ফেসবুকে প্রয়াত সিরাজুল জব্বারকে নিয়ে সিকৃবি রেজিস্ট্রার শোয়েবের স্মৃতিচারণ
  •   অাসামে বাঙ্গালীরা অাজ অসহায়
  •   বিশ্বকাপে আত্মঘাতী গোল, জীবন দিয়ে খেসারত ফুটবলারের
  •   বদমাইশির চেয়ে বিয়ে উত্তম!
  •   চেহারা দেখে মানুষ চেনা যায় না
  •   ঘিলাছড়ার রসালো লিচু
  •   সমাজের প্রচলিত যাকাত নিয়ে কিছু কথা