আজ মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ইং

রাস্তায় নারীর সঙ্গে করমর্দন করে হিরের আংটি খোয়ালেন চিকিৎসক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৯-১৯ ০০:৪৪:৩৭

মোহনচাঁদ শীল। কলকাতার খ্যাতনামা চিকিৎসক তিনি। জীবনে হাজার হাজার রোগীর চিকিৎসা করেছেন। তাই রাস্তাঘাটে হামেশাই দেখা হয়ে যায় তাদের অনেকের সঙ্গে। তিনি নিজে চিনতে না পারলেও ডাক্তারকে মনে রেখে দিয়েছেন রোগী বা রোগীর পরিবার। তাই কথা বলতেই হয়। তাদের সঙ্গে করমর্দন হয় তার। কিন্তু, তার পরিণতি যে এতটা মারাত্মক হবে, তা স্বপ্নেও ভাবেননি ওই চিকিৎসক।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবর, গত শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে মোহনচাঁদ বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন পাড়ার সেলুনে চুল কাটাতে। কলকাতার এন্টালি থানা এলাকার সাবেক কনভেন্ট লেন বা ননীগোপাল রায় চৌধুরী সরণির বাড়ি থেকে সেলুনের দূরত্ব কয়েক মিনিটের পথ। ৭৩ বছরের চিকিৎসক তাই পায়ে হেঁটেই যাচ্ছিলেন। সিআইটি রোডের মুখে সন্ধ্যা সুইটস। সেখানে পৌঁছতেই এক মধ্য বয়সী নারী তাঁর দিকে এগিয়ে আসেন। নারী তাঁকে নাম ধরে সম্বোধন করেন। সেই নারীর সঙ্গে কথা বলতে বলতেই তিনি আরও খানিকটা পথ হাঁটেন। তার পর সেলুনের পথে যাওয়ার আগে ওই নারীর সঙ্গে করমর্দনও করেন।

সব কিছুই ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু বাড়ি ফিরেই আক্কেলগুড়ুম। ডান হাতের অনামিকায় যে বড়সড় হিরের আংটি ছিল, তা গায়েব। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও হদিশ মেলে না তাঁর আংটির। শেষে তাঁর সন্দেহ হয় ওই নারীকেই। পরের দিনই রবিবার তিনি এন্টালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ সূত্রে খবর, লিখিতভাবে অভিযোগ করে ওই দিনের ঘটনার কথা জানিয়েছেন ওই চিকিৎসক। তদন্তকারীদের তিনি জানিয়েছেন, ওই নারীকে তিনি চিনতে পারেননি। তবে ওই নারী নিজেকে একজন রোগী হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন।

এক তদন্তকারী বলেন, “ওই নারী মোহনচাঁদকে নিজের বাড়ি নিয়ে গিয়ে চা খাওয়ানোর জন্য জোরাজুরিও করেছিলেন।” পুলিশ সূত্রে খবর, মোহনচাঁদ তদন্তকারীদের বলেছেন তিনি চা খেতে পারবেন না জানিয়ে যখন ওই নারীর সঙ্গে যখন হাত মিলিয়েছিলেন, তখন একটা হালকা টান অনুভব করেছিলেন আঙুলে। কিন্তু তখন কিছু খেয়াল করেননি। পরে যখন আংটি বেপাত্তা দেখেন, তখন বিষয়টি তাঁর মনে পড়ে।

তদন্তকারীরা বৃদ্ধ চিকিৎসকের বর্ণনা অনুযায়ী ওই নারীর কয়েকটি স্কেচও তৈরি করেছেন। মোহনচাঁদের বর্ণনা অনুযায়ী, নারী সুবেশা এবং সম্ভ্রান্ত। ইংরেজি ও বাংলা মিশিয়ে কথা বলছিলেন। সব মিলিয়ে মোহনচাঁদের সন্দেহের কোনও কারণ ছিল না।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   একসাথে চার সন্তান প্রসব
  •   ছেলের জন্য ঠিক করা মেয়েকে বিয়ে করলেন বাবা!
  •   প্রেমিকের কবরে কনের সাজে প্রেমিকা
  •   ক্লিনটনের যৌন কেচ্ছা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য হিলারির
  •   ফেসবুক প্রোফাইল গোপন রাখবেন যেভাবে
  •   খাসোগি প্রশ্নে শাস্তি দেয়া হলে পাল্টা পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি সৌদির
  •   ধোপাদিঘী পরিষ্কারে আরিফের আধুনিক যন্ত্র
  •   ওসমানীনগরে সাইকেলের চাকায় শাড়ি পেঁছিয়ে মহিলা ইউপি সদস্যের মৃত্যু
  •   হাসপাতালে শুয়েও ধোপাদিঘীর কাজের খবর নিলেন আরিফ (ভিডিও)
  •   ছাতক-দোয়ারার ২২ইউনিয়নে এমপি মানিকের পৃথক মতবিনিময় সভা
  •   সিলেটে বাণিজ্যিক মনোভাবের কারণে অস্ত্রোপচারে সন্তান জন্ম বাড়ছে
  •   মেডিসিন ক্লাব সিওমেক ইউনিটের নতুন সভাপতি অনিক, সম্পাদক প্রশান্ত
  •   ছাতকে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় মদসহ আটক ১
  •   এলইউতে ‘কোয়ালিটি এ্যাসিউরেন্স এন্ড এ্যাক্রিডিটেশন’ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
  •   নবীগঞ্জে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রাখার বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে অর্থদন্ড
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   ক্লিনটনের যৌন কেচ্ছা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য হিলারির
  •   খাসোগি প্রশ্নে শাস্তি দেয়া হলে পাল্টা পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি সৌদির
  •   ক্লিনটনের যৌন কেচ্ছা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য হিলারির
  •   সামরিক ক্ষেত্রে কতো শক্তিশালী রাশিয়া! জেনে নিন
  •   দুর্ব্যবহারের ক্ষোভে বিচারকের স্ত্রী-পুত্রকে প্রকাশ্যে গুলি দেহরক্ষীর!
  •   পেট্রোল চুরি করতে গিয়ে প্রাণ গেল ৩০ চোরের
  •   খাশোগি হত্যার রহস্য উদঘাটনে সহায়তা করবে অ্যাপল ওয়াচ!
  •   ব্রিটিশ রাজপরিবারে আবারও বিয়ের আয়োজন
  •   ‘মাইকেলে’ লণ্ডভণ্ড ফ্লোরিডা, নিহত ৬
  •   'খাশোগিকে টুকরো টুকরো করা হয়, সময় লাগে ২ ঘণ্টা'
  •   আত্মহত্যা ঠেকাতে মন্ত্রী নিয়োগ!
  •   ইভাঙ্কাকে 'ডিনামাইট’ বললেন ট্রাম্প
  •   সাইক্লোন 'তিতলি': প্রাণ গেলো দুজনের, ঘরছাড়া ৩ লাখ মানুষ
  •   ওড়িশায় তিতলির তাণ্ডব
  •   যুক্তরাজ্যে শারীরিক স্পর্শের শিকার হন ৬৬ ভাগ ছাত্রী