আজ রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইং

ক্রমেই দুর্বল হচ্ছে তিতলি, শঙ্কা নেই বাংলাদেশে

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-১০-১১ ১৩:১৪:৫০

সিলেটভিউ ডেস্ক:: নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ পাওয়া ‘তিতলি’ আজ বৃহস্পতিবার সকালে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য অন্ধ্র প্রদেশ ও উড়িষ্যার মাঝামাঝি এলাকায় আছড়ে পড়ে ক্রমেই দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। ফলে এই ঘূর্ণিঝড় নিয়ে বাংলাদেশের মানুষের আতঙ্ক বা ভয়ের কোনো কারণ নেই বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ রাশেদুজ্জামান।  

তিনি বলেন, ভারতের উডিষ্যা রাজ্যের গোপালপুরে আঘাত হানলেও তা পুরো শক্তি নিয়ে বাংলাদেশে আসার আশঙ্কা নেই। বরং নিম্নচাপ আকারে আসবে। ফলে উপকূলীয়সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভারী বৃষ্টিতে হতে পারে। একইসঙ্গে ঘূর্ণিঝড় তিতলির প্রভাবে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দেশের ওপর দিয়ে বাতাসের গতিবেগ বাড়বে।

যদিও আজ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে ঘূর্ণিঝড়টি খুলনা উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানতে পারে বলে খুলনা আবহাওয়া অধিদফতর জানান। খুলনা আবহাওয়া অধিদফতরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল আজাদ বলেন, ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করে দুপুরের দিকে খুলনা ও সুন্দরবন সংলগ্ন উপকূলে আঘাত হানতে পারে। পরে সেই শঙ্কা কেটে গিয়ে যায়।

এর আগে, আজ বৃহস্পতিবার ভারতীয় সময় ভোর সাড়ে ৪টা থেকে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত অন্ধ্র-উড়িষ্যা উপকূলে ‘তিতলি’র তাণ্ডবের খবর দেয় স্থানীয় ও কলকাতাভিত্তিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম। আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, অন্ধ্র প্রদেশের শ্রীকাকুলাম জেলায় আঘাত হানার সময় ‘তিতলি’র গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত। অন্ধ্রে প্রলয়কাণ্ড চালিয়ে উত্তরের দিকে এসে উড়িষ্যার গানজাম জেলায় আছড়ে পড়ার সময় এর তীব্রতা কিছুটা কমে যায়। সেসময় এর গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১০২ কিলোমিটার পর্যন্ত।

এদিকে, তিতলির ক্ষয়ক্ষতি মোকাবলোয় বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপকূলীয় অঞ্চলের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া দুর্যোগকালীন জরুরি ত্রাণ সহায়তার প্রস্তুতি হিসেবে বিভিন্ন গুদামে ১০ হাজার ১৩২ টন চাল মজুদ রাখা হয়েছে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১১অক্টোবর২০১৮/এমএইচআর

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   যে কারণে আশরাফুলের চোখেও 'রঙিন স্বপ্ন'
  •   আগুনের সাথে দীর্ঘ যুদ্ধ শেষে ক্লান্ত হয়ে গাড়ির ওপরেই ঘুমিয়ে পড়ে দমকল সদস্যরা
  •   সিলেটের ৬ প্রকল্পের পরিচালক তিনি একাই!
  •   প্রথম জীবনে অভিনয় শিল্পী হতে চেয়েছিলেন তথ্যমন্ত্রী
  •   নৌকায় ভোট দিন, ছাতক হবে মডেল উপজেলা: ফজলুর রহমান
  •   ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্যানেলে ভিপি প্রার্থী শোভন জিএস রাব্বানী টিবিটি
  •   কাতারে বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী যুব পরিবারের মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
  •   অবশেষে ফেঞ্চুগঞ্জ-সিলেট মহাসড়কের গাছ কাটায় মামলা দায়ের
  •   সিলেটভিউর সংবাদ: স্কলারশিপ পেলো রিক্সাচালক শিক্ষার্থী আশরাফুল
  •   শাবিতে জামালপুর স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন
  •   বিয়ের দাওয়াত না পেয়ে হামলা!
  •   প্রবাসীদের হয়রানী বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে : ড. মোমেন
  •   ইলিয়াসপত্নী লুনার সুস্থতা কামনায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের দোয়া মাহফিল
  •   আওয়ামী সরকার নিজেদের ধ্বংস ডেকে আনবে: ডা. জাহিদ হোসেন
  •   সিলেটের অভিজাত হাউজিং এস্টেটের একাল-সেকাল
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   আগুনের সাথে দীর্ঘ যুদ্ধ শেষে ক্লান্ত হয়ে গাড়ির ওপরেই ঘুমিয়ে পড়ে দমকল সদস্যরা
  •   প্রথম জীবনে অভিনয় শিল্পী হতে চেয়েছিলেন তথ্যমন্ত্রী
  •   ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্যানেলে ভিপি প্রার্থী শোভন জিএস রাব্বানী টিবিটি
  •   বিয়ের দাওয়াত না পেয়ে হামলা!
  •   লাঙ্গল, গরু নিয়ে জমি চাষে নামলেন পুলিশ সুপার!
  •   এবার ওয়াহিদ ম্যানশনেও অক্ষত কোরআন-হাদিসের বই!
  •   স্ত্রী ডিভোর্স দিলে দেনমোহরের টাকা পাবে কেন?
  •   কোথায় হারিয়ে গেল দুই বোন দোলা আর বৃষ্টি
  •   ধনীদের লোভের পরিণতি এ আগুন
  •   চকবাজারের ঘটনায় বিএনপি জড়িত: হাছান মাহমুদ
  •   ‘৭০.৪% গণপরিবহন চালক দৃষ্টিশক্তির সমস্যায় ভুগছেন’
  •   ‘কেমিকেলের মজুদ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে’
  •   ১৯ লাশের দাবিতে ডিএনএ নমুনা দিয়েছেন ৩৬ স্বজন
  •   আবাসিক এলাকায় কেমিক্যাল গোডাউন রাখার পক্ষে ব্যবসায়ীরা
  •   এটা কোনো মানুষ করতে পারে?