আজ বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ ইং

‘মাস্টারপ্ল্যান’ করবেন কামরান, ‘পাল্টে যাবে’ সিলেট নগর

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৬-১২ ০০:৩৫:৪৯

রফিকুল ইসলাম কামাল :: দুয়ারে কড়া নাড়ছে সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) চতুর্থ নির্বাচন। আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সেই নির্বাচন প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত হবে। তাই মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী রাজনৈতিক নেতারা তাদের দলের শীর্ষপর্যায়ের দিকে চেয়ে আছেন। এবার আওয়ামী লীগ থেকে মেয়র পদে কে মনোনয়ন পাচ্ছেন, তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে বিভিন্ন সূত্রের আভাস, সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানই দলের সবুজ সংকেত পেতে যাচ্ছেন।

এই কানাঘুষার সময়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের মুখোমুখি হয়েছিলেন সিলেটভিউ২৪ডটকম’র এই প্রতিবেদক। আলাপকালে দলীয় মনোনয়ন পেতে শতভাগ আশাবাদী কামরান মেয়র নির্বাচিত হলে কিভাবে কাজ করবেন, সেই পরিকল্পনার কথা শুনিয়েছেন। জানিয়েছেন, ফের মেয়রের চেয়ারে বসতে পারলে ‘বিশেষজ্ঞ মতামত নিয়ে মাস্টারপ্ল্যান করে’ পুরো সিলেট নগরীর চেহারাকে ‘ঝকঝকে তকতকে’ করার চেষ্টা চালাবেন তিনি।

বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সাথে দীর্ঘ আলাপচারিতার প্রথম পর্ব আজ।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রথম দুই নির্বাচনে মেয়র পদে বিজয়ী হন। কিন্তু তৃতীয় (সর্বশেষ) নির্বাচনে এসে বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরীর কাছে হোঁচট খান কামরান; হারাতে হয় নগর ভবনের কর্তৃত্ব।

এবার সেই কর্তৃত্ব ফিরে পেতে মরিয়া কামরান। সে জন্য গেলবার হারের পর থেকেই মাঠে সক্রিয় এই নেতা।

এবার দলীয় মনোনয়ন পেতে কতোটা আশাবাদী? সপ্রতিভ কামরান বলেন, ‘আমি দলীয় মনোনয়ন পেতে শতভাগ আশাবাদী। আমি দলের একজন কর্মী। দলের গঠনতন্ত্রে বিশ^াসী। মেয়র পদে একাধিক নেতা মনোনয়নপ্রত্যাশী। কিন্তু মনোনয়ন দেবে দলের নির্বাচনী বোর্ড। তবে গত বছরই দলের শীর্ষপর্যায় থেকে আমাকে সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে।’

মনোনয়ন পেলে দলকে ঐক্যবদ্ধ করে নির্বাচনী মাঠে নামাতে পারবেন কিনা, এমন প্রশ্নে কামরান বলেন, ‘আমরা যারা দলীয় আদর্শে বিশ^াসী, তারা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো। কে প্রার্থী হয়েছে, সেট বিষয় নয়; আমাদের প্রতীক নৌকা, এটা মাথায় রেখে নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে কাজ করতে হবে।’

কামরান দৃঢ়কণ্ঠে বলেন, ‘আমি মনোনয়ন না পেলে, অন্য কাউকেও যদি মনোনয়ন দেয়া হয়, তবে তার পক্ষেই আমি কাজ করে যাবো।’

মনোনয়ন পেলে নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে দারুণ আশাবাদী কামরান। তিনি বলছেন, ‘নগরবাসী স্বতঃস্ফূর্তভাবে সহযোগিতা করছেন। সিলেটের মানুষ শান্তিপ্রিয়; নিজের প্রাপ্য সম্মান চায় মানুষ। কিন্তু এখন যিনি মেয়র আছেন, তাঁর সময়ে এই জায়গায় ঘাটতি আছে। যার ফলে মানুষ পরিবর্তন চাইছে; আমার পক্ষে মানুষের যে প্রাণচাঞ্চল্য দেখতে পাচ্ছি, তাতে করে আশাবাদী নৌকা এবার বিজয়ী হবে।’

নির্বাচিত হতে পারলে সিলেট নগরীর উন্নয়নে কিভাবে কাজ করবেন, সেই পরিকল্পনাও এগিয়ে রেখেছেন সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ। তিনি বলেন, ‘সিলেট হচ্ছে আধ্যাত্মিক, পর্যটন ও প্রবাসী অধ্যুষিত নগরী। এই নগরীর উন্নয়নে সঠিক পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করবো। বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে মাস্টারপ্ল্যান করা হবে। সেই মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়ন করে সিলেট নগরীর চেহারা ঝকঝকে তকতকে করে গড়ে তোলা হবে। নগরীর চেহারাকে আধুনিকতায় পাল্টানোর ব্যবস্থা করা হবে। বর্তমানে নগরীতে যতো সমস্যা আছে, সেগুলোরও কার্যকর সমাধান করা হবে।’

বর্তমানে সিলেট নগরীর প্রধানতম সমস্যাগুলোর মধ্যে রয়েছে যানজট, ফুটপাত দখল ও জলাবদ্ধতা। এসব সমস্যা সমাধানে কি হবে কামরানের পদক্ষেপ?

উত্তর যেন প্রস্তুতই ছিল তাঁর, ‘ফুটপাত, রাস্তা জনগণের। এসব দখল করে রাখার অধিকার কারো নেই। বিজয়ী হতে পারলে ফুটপাত দখলমুক্ত করা হবে, সব পরিষ্কার থাকবে। আমি মেয়র থাকাকালে ছড়া-খাল উদ্ধার কাজ শুরু করেছিলাম। সেটিরই সুফল এখনও পাচ্ছেন নগরবাসী। ফের মেয়র হতে পারলে ছড়া-খাল উদ্ধারে লোকদেখানো নয়, কার্যকর পদক্ষেপ নেবো। যানজট নিয়ন্ত্রণে নেয়া হবে বিশেষজ্ঞদের মতামত।’

পৌরসভার চেয়ারম্যান থেকে মেয়র হওয়া বদর উদ্দিন আহমদ কামরান দলীয় মনোনয়ন পাবেন কিনা, পেলে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে পারবেন কিনা, সে উত্তর আপাতত সময়ের হাতেই থাকছে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১২ জুন ২০১৮/এএইচ/আরআই-কে

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   ছাতকে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের অবহেলায় প্রাণ গেলো মাদ্রাসা ছাত্রের
  •   সুনামগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ড্রেজার মেশিন জব্দ, জরিমানা, আটক ৫
  •   নয়াপল্টনের সংঘর্ষে আহত হলেন সাংবাদিক রুদ্র মিজান
  •   সিলেট-৫ আসনে আ.লীগের ৭, বিএনপি ও জাপার ১১ প্রার্থীর দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ
  •   'জানুয়ারিতে নির্বাচন আয়োজন কঠিন: ইসি সচিব
  •   হবিগঞ্জবাসীর স্বপ্নের জুডিসিয়াল ভবনে বিচার কাজ শুরু
  •   ঐক্যফ্রন্টের দাবি বিবেচনা করবে ইসি: ড. কামাল
  •   হবিগঞ্জে বোমা হামলায় নিহত সহকারি জজ সোহেল ও জগন্নাথ স্মরণসভা
  •   বড়লেখায় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত
  •   তালামীযের মীলাদুন্নবী (সা.) র‌্যালি সফলের লক্ষ্যে দাওয়াতী কর্মসূচি অব্যাহত
  •   সুনামগঞ্জে ৪ দিনব্যাপী আয়কর মেলা শুরু
  •   সাংস্কৃতিক জাগরণ ছাড়া সমাজ আলোকিত হয়না: নিতাই চন্দ্র চন্দ
  •   সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নিউজ২৪ ও চ্যানেল আই ইউরোপের মোকাবেলা বৃহস্পতিবার
  •   সুনামগঞ্জ-৩ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন শাহীদুর রহমান
  •   মানবতার কল্যাণে গরীব এন্ড এতিম ট্রাস্ট ফান্ড ইউকে
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   নয়াপল্টনের সংঘর্ষে আহত হলেন সাংবাদিক রুদ্র মিজান
  •   সিলেট-৫ আসনে আ.লীগের ৭, বিএনপি ও জাপার ১১ প্রার্থীর দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ
  •   তালামীযের মীলাদুন্নবী (সা.) র‌্যালি সফলের লক্ষ্যে দাওয়াতী কর্মসূচি অব্যাহত
  •   সাংস্কৃতিক জাগরণ ছাড়া সমাজ আলোকিত হয়না: নিতাই চন্দ্র চন্দ
  •   সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নিউজ২৪ ও চ্যানেল আই ইউরোপের মোকাবেলা বৃহস্পতিবার
  •   সুনামগঞ্জ-৩ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন শাহীদুর রহমান
  •   মানবতার কল্যাণে গরীব এন্ড এতিম ট্রাস্ট ফান্ড ইউকে
  •   মঈনুদ্দিন আদর্শ মহিলা কলেজে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি
  •   সুনামগঞ্জ- ৫ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন জমা দিলেন ওহিদ কনা মিয়া
  •   ফেঞ্চুগঞ্জে স্বেচ্ছাশ্রমে মহাসড়ক পাশের বনজঙ্গল পরিস্কার
  •   সিলেটে আয়কর মেলা: দুই দিনে আদায় ৬ কোটি ১৩ লাখ টাকা
  •   তাহিরপুর সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ’র পতাকা বৈঠক
  •   সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য ডা. মোর্শেদ
  •   সিলেটে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে আয়কর মেলা
  •   গ্রীন জেমস্ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে শিক্ষা বৃত্তির ফরম বিতরণ শুরু