আজ রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ ইং

৫০ বছর আগে মৃত সেনা সদস্যের দেহাবশেষ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৭-২২ ০১:২৫:০৫

ভূ-পৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২০ হাজার ফুট উপরে বরফের স্তরের ফাঁকে দেখা গেছে মানব দেহ। ভূ-পৃষ্ঠ থেকে প্রায় কুড়ি হাজার ফুট উপরে? কোথা থেকে এল? খুঁজতে খুঁজতে পাওয়া গেল বরফের তলায় চাপা পড়ে থাকা একটি বিমানের ধ্বংসাবশেষও। যা দেখে কার্যত হতবাক ভারত-চীন সীমান্তে হিমাচল প্রদেশের ঢাকা হিমবাহে পা রাখা পর্বতারোহী অভিযাত্রী দল।
‘নেহরু মাউন্টেনিয়ারিং ইনস্টিটিউটের’ পর্বতারোহী দলের তরফে তৎক্ষণাৎ যোগাযোগ করা হয় নিকটবর্তী সেনা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। সেনার বিশেষ উদ্ধারকারী দল ঘটনা স্থলে গিয়ে দেখতে পায় যে, বরফের খাঁজের মধ্যে থেকে যার ক্ষতবিক্ষত দেহ বেরিয়ে আছে, তিনিও সম্ভবত একজন সেনা জওয়ান। তখনই সেনা কর্তৃপক্ষ বুঝতে পারেন যে, এভাবেই বরফের খাঁজে শুয়ে আছেন আরও বহু হতভাগ্য সেনা জওয়ান, যাদের নিয়ে ১৯৬৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি চণ্ডীগড় থেকে লেহ যাত্রা করেছিল ভারতীয় বিমান বাহিনীর মালবাহী বিমান এএন-১২৷

হিমাচল প্রদেশের রোহতাং পাসের কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় ওই বিমান দুর্ঘটনাগ্রস্ত হয় খারাপ আবহাওয়ার কারণে। তারপরে তা ভেঙে পড়ে বরফের চাঁইয়ের মধ্যে, ঢাকা হিমবাহের বিভিন্ন অংশে। বিমানে তখন ছিলেন ৯৮ জন জওয়ান এবং চার জনের এক অভিজ্ঞ বিমান চালক দল। এবার তাদের মধ্যে কোনও একজন নাম না জানা হতভাগ্যর দেহ উদ্ধার করেছেন সেনা জওয়ানরা। এর আগে ২০০৩ সালে উদ্ধার কার্যের সময়ে তিনটি মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছিল। ২০১২ সালে পাওয়া গিয়েছিল এক সেনা জওয়ানের পরিচয় পত্র। পরের বছর ২০১৩ সালে উদ্ধার হয়েছিল আর এক সেনা জওয়ানের দেহ, পকেটে থাকা পরিচয় পত্র দেখে যাকে হরিয়ানা নিবাসী হাবিলদার জার্ণেল সিং বলে চিহ্নিত করা হয়। পাঁচ বছর পরে আরও একবার উদ্ধার হল একটি দেহ।

উল্লেখ্য, ১৯৬৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে বিমান বাহিনীর মালবাহী বিমানটি দুর্ঘটনাগ্রস্ত হওয়ার পরে অত্যন্ত দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় বেশ কয়েক মাস উদ্ধারপর্ব তেমন ভাবে চালানোই সম্ভব হয়নি। এর পরে বহুবার ওই বিমানের যাত্রী সেনা জওয়ানদের সন্ধানে উদ্ধারকার্য চালানো হয়েছে, কিন্তু দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে তা সাফল্য পায়নি। তা ছাড়া অত উঁচুতে বরফের চাঁইয়ের মধ্যে থেকে একটা আস্ত বিমানকে টেনে তোলা কার্যত অসম্ভব বুঝেও কিছুটা পিছিয়ে এসেছিলেন সেনা কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : এই সময়

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   আগুনের সাথে দীর্ঘ যুদ্ধ শেষে ক্লান্ত হয়ে গাড়ির ওপরেই ঘুমিয়ে পড়ে দমকল সদস্যরা
  •   সিলেটের ৬ প্রকল্পের পরিচালক তিনি একাই!
  •   প্রথম জীবনে অভিনয় শিল্পী হতে চেয়েছিলেন তথ্যমন্ত্রী
  •   নৌকায় ভোট দিন, ছাতক হবে মডেল উপজেলা: ফজলুর রহমান
  •   ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্যানেলে ভিপি প্রার্থী শোভন জিএস রাব্বানী টিবিটি
  •   কাতারে বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী যুব পরিবারের মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
  •   অবশেষে ফেঞ্চুগঞ্জ-সিলেট মহাসড়কের গাছ কাটায় মামলা দায়ের
  •   সিলেটভিউর সংবাদ: স্কলারশিপ পেলো রিক্সাচালক শিক্ষার্থী আশরাফুল
  •   শাবিতে জামালপুর স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন
  •   বিয়ের দাওয়াত না পেয়ে হামলা!
  •   প্রবাসীদের হয়রানী বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে : ড. মোমেন
  •   ইলিয়াসপত্নী লুনার সুস্থতা কামনায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের দোয়া মাহফিল
  •   আওয়ামী সরকার নিজেদের ধ্বংস ডেকে আনবে: ডা. জাহিদ হোসেন
  •   সিলেটের অভিজাত হাউজিং এস্টেটের একাল-সেকাল
  •   হিরের আংটি ফেরত দিয়ে আমেরিকায় প্রশংসিত সিলেটের যুবক
  • সাম্প্রতিক বিচিত্র খবর

  •   প্রমোদতরীর ‘নোংরা বিলাসিতা’
  •   হোটেল আর মোটেলের মধ্যে মৌলিক পার্থক্যগুলো কী?
  •   ১০ টাকায় শাড়ি! শপিংমলে উপচেপড়া ভিড়
  •   রোগী ফেলে ওটি’তেই নীরবতা পালন!
  •   কোমা থেকে জেগে দেখে সে নিজেই মেয়ের মা!
  •   অস্ত্রোপচার ছাড়াই একসঙ্গে ৭ সন্তানের জন্ম!
  •   পৃথিবীর যে স্থানগুলো গুগল ম্যাপে খুঁজে পাবেন না!
  •   সুন্দরী নারী দেখলে পুরুষদের শরীরে কী হয়, জানালো গবেষণা!
  •   বরফে দাঁড়িয়ে আছে প্যান্ট!
  •   'রহস্যময়' দ্বীপ, বিভ্রান্তিতে বিজ্ঞানীরা!
  •   বালিকার সঙ্গে অভব্য আচরণ মোরগের, মালিকসহ থানায় ‘আটক’
  •   জাপানে দৈত্যাকার মাছ, ভূমিকম্প-সুনামি নিয়ে আতঙ্ক
  •   শিশুদের আইকিউ বাড়ানোর কয়েকটি সহজ উপায়
  •   মাঝ আকাশে 'এয়ার হোস্টেস'কে বিয়ের প্রস্তাব, তারপর...(ভিডিও)
  •   মাটি খুঁড়তেই ৩ হাজার বছর পুরনো স্বর্ণের ব্রেসলেট!