আজ সোমবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৯ ইং

আমেরিকায় বাঙালির অর্থ কেলেঙ্কারি

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৯-০২ ০০:৪২:৪২

ভুয়া চিকিৎসা ও থেরাপি প্রদানের বিল করে ২০০ মিলিয়ন ডলার হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় মিশিগানের বাংলাদেশি মাশিয়াত রশিদ, আবদুল হক, মোহাম্মদ জহুরসহ বেশ কয়েকজনের বিচার শুরু হয়েছে। এরা সংঘবদ্ধভাবে মিশিগান ও ওহাইয়ো এলাকায় সাইনবোর্ডসর্বস্ব ক্লিনিক, ল্যাবরেটরি, থেরাপি সেন্টার, হোমকেয়ার ইত্যাদি চালু করে ভুয়া বিল সাবমিট করেন মেডিকেয়ারের কাছে।

এমন অনৈতিক ও প্রতারণামূলক কাজে বেশকিছু দালাল/এজেন্ট নিয়োগ করা হয় মক্কেল আনার জন্য। এই সংঘবদ্ধ প্রকল্পে লোভী চিকিৎসকরাও অংশ নেন। অর্থাৎ সুপরিকল্পিতভাবে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবার প্রেসক্রিপশন তৈরি ও চিহ্নিত ফার্মেসি থেকে ওষুধ প্রদানের মহড়া, থেরাপি সেন্টারের নামে স্বাস্থ্যসেবা, হোমকেয়ারের বিলও করা হয়। মামলার বিবরণে আরও প্রকাশ, ‘ট্রাই-কাউন্টি ওয়েলনেস’ নামক একটি প্রতিষ্ঠানের নামে ভুয়া বিল করা হয়েছে। আর এই প্রতিষ্ঠানের সিইও, মালিক, পরিচালক হচ্ছেন মাশিয়াত রশিদ (৩৭)। তিন বছর বয়সে মা-বাবার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে আসা মাশিয়াত উচ্চশিক্ষা গ্রহণের পর এই প্রতারণার ফাঁদ পাতেন স্বাস্থ্যসেবার নামে।

মামলার তদন্তে আরও উদ্ঘাটিত হয়েছে, মাশিয়াত লোভে এতটাই বেপরোয়া হয়ে পড়েন যে, দালালদের নগদ অর্থ প্রদানের জন্য একইসঙ্গে ৫ লাখ ডলার ড্র করেন ব্যাংক থেকে। এ অর্থের বস্তাও তার বাসার ক্লোজেট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় তারা মাশিয়াতের এমন কয়েকটি বাড়ি ও গাড়ির হদিস পান, যা চমকে দেওয়ার মতো। কয়েক বছর আগে যিনি ব্যাংক্রাপসি করেছিলেন, সেই যুবক কীভাবে এত বিপুল অর্থসম্পদের মালিক হলেন, তাও কর্তৃপক্ষের কৌতূহলের অন্যতম বিষয় ছিল। গত বছর তিনি অবশ্য ৪ মিলিয়ন ডলারের ট্যাক্স রিটার্নও দিয়েছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে মাশিয়াত তার বিভিন্ন ল্যাবরেটরি, ক্লিনিক, হোমকেয়ার সার্ভিস স্টেশন পরিদর্শন করতেন নিজস্ব বিমানে। আলাউদ্দিনের চেরাগ হাতে পাওয়া মাশিয়াত খুব কম সময়ই কমিউনিটির লোকজনের সঙ্গে কথা বলতেন। চলাফেরায় অতি মডার্ন ভাব ছিল। দামি ঘড়ি পরতেন পোশাক আর অনুষ্ঠানের মেজাজের সঙ্গে সংগতি রেখে। মামলার বিবরণে আরও জানা গেছে, ৩১ জুলাই বিচার শুরুর পর আদালত জানতে পেরেছে, ৪২ লাখ ভুয়া প্রেসক্রিপশন ইস্যু করা হয় মিশিগানের ওয়েস্ট ব্লুমফিল্ডের বাসিন্দা মাশিয়াতের প্রতারণার ফাঁদে।

তার সহযোগীদের অন্যতম হচ্ছেন একই এলাকার তারেক ওমর (৬১), নভির মোহাম্মদ জহুর (৫১), ওহাইয়োর মনক্লোভার স্পিলিয়স পাপাস (৬১), নভির জোসেফ ব্রেট্রো (৫৭), ওকল্যান্ড কাউন্টির ইয়াসির মজিব (৩৫), ইপসিলেন্টির আবদুল হক (৭২), তোসাদ্দেক আলী আহমেদ। মামলার তদন্ত করেছেন এফবিআই, আইআরএস, স্বাস্থ্য বিভাগীয় কমিশনার। মিশিগানের ইস্টার্ন ডিস্ট্রিক্ট কোর্টের জজ ডেনিস পেইজ হুডের এজলাসে চলছে এ মামলা।

চাঞ্চল্যকর এবং এযাবৎকালের বৃহত্তম এই হেলথকেয়ার প্রতারণা মামলা প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেছেন, আমেরিকার ইতিহাসে যখন ওষুধ সংকট ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে, ঠিক তেমনি সময়ে কিছু চিকিৎসক ও করপোরেশনের মালিক আমাদের স্বাস্থ্যসেবার প্রকল্পের সঙ্গে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছিল। তারা অসহায় আমেরিকানদের চিকিৎসাসেবার সঙ্গে বড় ধরনের ধাপ্পাবাজি করেছে, যা কঠোর শাস্তির যোগ্য। আমেরিকার ট্যাক্স প্রদানকারীদের সঙ্গে এমন জঘন্য আচরণের সমুচিত শাস্তি সংশ্লিষ্টদের পাওয়াই উচিত।

২০০৮ সাল থেকে গত বছর ৬ জুলাই পর্যন্ত সময়ে মিশিগান ও ওহাইয়ো অঙ্গরাজ্যব্যাপী এমন তৎপরতা পরিচালনা করা হয় নিজেদের আখের গুছিয়ে নেওয়ার অভিপ্রায়ে। মাশিয়াতের এই চক্রের চিকিৎসকরা মোটা ভাগা পেয়েছেন। তদন্তে আরও উদ্ঘাটিত হয় যে, ইস্যুকৃত প্রেসক্রিপশনের ১০০% ছিল সংশ্লিষ্ট রোগীর জন্য একেবারেই অপ্রয়োজনীয় অর্থাৎ উদ্দেশ্যমূলকভাবে সেসব ইস্যু করা হয় কালোবাজারে পাচার অথবা ফার্মেসির সঙ্গে অর্থ ভাগাভাগির মতলবে। আরও জানা গেছে, এর আগেও মাশিয়াতসহ এই চক্রের কয়েকজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। কিন্তু সে সময় যথাযথভাবে তদন্ত করতে না পারায় অথবা আইনের ফাঁক দিয়ে সবাই মুক্তিলাভ করেছিলেন।

পরে সরেজমিনে ব্যাপক উদ্যোগে তদন্তের পর সবকিছু প্রকাশ পায়। মাশিয়াতের প্রতারণা নেটওয়ার্কে ছিল দ্য ট্রাই-কাউন্টি নেটওয়ার্ক ফিজিশিয়ান বিজনেস, গ্লোবাল কোয়ালিটি ইনক, আকুয়া থেরাপি এবং পেইন ম্যানেজমেন্ট ইনক, ট্রাই-কাউন্টি ফিজিশিয়ান গ্রুপ, ট্রাই-স্টেট ফিজিশিয়ান গ্রুপ, নিউ সেন্টার মেডিকেল, ট্রাই-কাউন্টি নেটওয়ার্ক ল্যাবরেটরিজ, ট্রাই-কাউন্টি নেটওয়ার্ক ম্যানেজমেন্ট থেরাপি অ্যান্ড হেল্থকেয়ার ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ইত্যাদি।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   মঙ্গলবার হবিগঞ্জে আসছেন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব
  •   কানাইঘাটে অভিযানে বিজিবির গুলি, কিশোর নিহত
  •   শেখ হাসিনার সরকার, কৃষক বান্ধব সরকার: আশফাক আহমদ
  •   বালিংগা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হলেন মাসুদ খান
  •   শাবিতে ছাত্র ফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
  •   শাবিতে ইসকনের ইয়ুথ ফেস্টিভ্যাল ৩১ জানুয়ারি
  •   গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদকে সিকৃবি সাংবাদিক সমিতির শুভেচ্ছা
  •   তিন দিনের সফরে সিলেটে আসছেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী
  •   সুনামগঞ্জে কাজ দেয়ার কথা বলে নারীকে গণধর্ষণ!
  •   আমি বিএনপির সৃষ্টি: আব্দুল হাকিম চৌধুরী
  •   দেখা মিলল ‘লাল নেকড়ে চাঁদ’
  •   সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা
  •   বিশ্বনাথে দশঘর ইউনিয়ন প্রগতি ট্রাস্ট ইউকের বৃত্তি বিতরণ
  •   আশুগঞ্জ আদর্শ স্কুলে নতুন ভবনের উদ্বোধন করলেন শফিক চৌধুরী
  •   'বিএনপির এমন শোচনীয় পরাজয় আমরাও আশা করিনি'
  • সাম্প্রতিক যুক্তরাষ্ট্র খবর

  •   মিশিগান স্টেট ছাত্রলীগের প্রতিস্টাতা যুগ্ম আহবায়ক মামুনকে সংবর্ধনা
  •   যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি-আমেরিকান সিনেটর শেখ রহমানকে সংবর্ধনা
  •   নিউজার্সিতে ড্রিউ ও ফারুক সংবর্ধিত
  •   নিউইয়র্কে সৈয়দ আশরাফ স্মরণে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী পরিবারের দোয়া
  •   ড. মোমেনকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করায় নিউইয়র্কে আনন্দ-উল্লাস
  •   কুরআন মজিদে হাত রেখে যুক্তরাষ্ট্রে ২ মুসলিম এমপি শপথ
  •   মহাজোটের নিরঙ্কুশ বিজয়ে নিউইয়র্ক স্টেট আ.লীগের উৎসব
  •   শেখ হাসিনাকে মিশিগান আ.লীগের অভিনন্দন
  •   মৌলভীবাজারের ৪টি আসনে মহাজোট মনোনীত প্রার্থীদের সমর্থনে নিউইয়র্কে সভা
  •   নিউইয়র্কে সিলেট-৬ আসনের ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীর সমর্থনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
  •   ড. রেজা কিবরিয়ার সমর্থনে নিউইয়র্কে মতবিনিময় সভা
  •   নিউইয়র্কে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থীদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা
  •   যুক্তরাষ্ট্রে এম সাইফুর রহমান স্মৃতি সংসদ গঠিত
  •   মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি: বাংলাদেশের নির্বাচন পরিস্থিতি নিয়ে কংগ্রেসম্যান উইলসনের উদ্বেগ
  •   যুক্তরাষ্ট্রে সিলেট-৩ আসনের আ.লীগ প্রার্থী কয়েসের সমর্থনে সভা অনুষ্ঠিত