আজ সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০ ইং

আদার বেপারীর জাহাজের খবর (শেষ পর্ব)!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১২-৩১ ১৩:৫৯:১৩

"ছোটো সে তরী
আমারি সোনার ধানে গিয়েছে ভরি"

ফারজানা ইসলাম লিনু :: ২০১৯ সালের আর মাত্র কিছু ঘন্টা বাকি। এতো বড় দুনিয়ার সব খবর আমি আদার বেপারীর ছোট জাহাজে জায়গা হবে না। দেশের খবরের পাশে দুনিয়ার অল্প কিছু খবর কিছু রাখতে হয়েছে নিতান্তই নিজেদের প্রয়োজনে।

বৃটেনের সাথে সিলেটিদের নাড়ীর সম্পর্ক প্রায় চার প্রজন্মের। বৃটেনের ব্যবসা, রাজনীতি, সমাজনীতি, সংস্কৃতি সবকিছুতে সিলেটি বংশদ্ভূত বৃটিশদের রয়েছে সরব উপস্থিতি।

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সাথে ব্রেক্সিট নামের বিচ্ছেদ নিয়ে বৃটেন তথা সারা বিশ্বে তোলপাড় শুরু হয়। এই তোলপাড় আমরাও উপেক্ষা করতে পারিনা। নিত্য কান পেতে থাকি, ব্রেক্সিটের খবর আর কতো দূর।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ফাটা বাঁশের চিপায় পড়া নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে পুরা বিশ্বে সমালোচনার ঝড় উঠে।
নিজ দলীয় এম পি দের বহিষ্কার হুমকি ও আগাম নির্বাচনের ভয় দেখিয়ে বাগে আনা যায়নি। চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিটের পক্ষে দেশে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই, বিরোধীদের এই যুক্তির সাথে হাত মেলালেন নিজের দলের এম পি ও সাবেক কতিপয় মন্ত্রী।

পার্লামেন্টে প্রণীত আইন উপেক্ষা করে নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে বরিস চুক্তি বিহীন ব্রেক্সিট কার্যকরে অবিচল।
এই বিতিকিচ্ছিরি অবস্থার মধ্যে বরিস গেলেন ছুটি কাটাতে স্কটল্যান্ডের এক গরুর খামারে। গাবদা গোবদা সাইজের বেয়াড়া গরুর দড়ি টানাটানি করে বাগে আনতে নাস্তানাবুদ অবস্থা বেচারা বরিসের। পিছু নেয়া বেরসিক মিডিয়ার ব্যঙ্গবিদ্রূপ, "গরুর কাছে হেরে গিয়ে পার্লামেন্ট সামাল দিবে কেমনে"?

রাজনীতির দাবার চাল বড়ই অদ্ভুত। সব ব্যঙ্গবিদ্রূপের অবসান ঘটিয়ে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফিরে এসেছে বরিসের কনজারভেটিভ দল। ব্রেক্সিট কার্যকর এখন সময়ের দাবি মাত্র।

বিশ্বের চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদের মাটিতে পা রাখার ধৃষ্টতা দেখিয়েছে ভারত। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে ইতিহাস সৃষ্টির দ্বারপ্রান্তে গিয়ে ভারতের চন্দ্রাভিযান মিশন ব্যর্থ হয়। চন্দ্রযান-২ এর ব্যর্থতাকে খাটো করে দেখার কোন কারণ নেই। ব্যর্থতাই সফলতার চাবিকাঠি, একবার না পারিলে দেখো শত বার।

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিখণ্ডিত হিমালয়ান রাজ্য কাশ্মীর নিয়ে দুই দেশের কামড়া কামড়ি সেই দেশ বিভাগের পর থেকে। মোদি সরকারের নির্বাচনী ওয়াদা পূরণের বলি অসহায় কাশ্মীরিরা। কাশ্মীরের সত্তর বছরের বিশেষ মর্যাদা বা স্বায়ত্তশাসন বাতিল করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের জারিকৃত এমন অন্যায় সিদ্ধান্তে কাশ্মীর নামক ভুস্বর্গ আজ মৃত্যু উপত্যাকা।

ভারতের উগ্র হিন্দুবাদী বিজেপি সরকারের একের পর এক স্বেচ্ছাচারী সিদ্ধান্তে ধর্ম নিরপেক্ষ ভারতের ঐতিহ্য নিশ্চিত হুমকির মুখে। বাবরি মসজিদ নিয়ে বিতর্কিত রায়, এন আর সি র তালিকা প্রকাশ ও নতুন নাগরিকত্ব বিল পার্লামেন্টে পাশ করে সরকার মুসলমানদের প্রতি তার হিংসাত্মক ফ্যাসিবাদী মনোভাবই প্রকাশ করেনি, পুরো ভারতে সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কে দিতেও পায়তারা করেছে।

কিন্তু মুসলমানদের স্বার্থ বিনষ্টকারী বৈষম্যমূলক নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে উত্তাল ভারতে সব ধর্মের মানুষ বেরিয়ে এসেছে রাস্তায়। বিক্ষোভে ইন্ধন যোগানোর অভিযোগে সোনিয়া গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী সহ হাজার হাজার মানুষের বিরুদ্ধে মামলা করেছে মোদি সরকার। পঁচিশ জনেরও বেশি প্রতিবাদকারীকে হত্যা করে আন্দোলন নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না।

স্বাধীনতার পর থেকেই পাকিস্তান নামক দেশটির রাষ্ট্রক্ষমতায় সেনাবাহিনী ছিলো বড় সময় জুড়ে।পাকিস্তানের সাবেক সেনাশাসক জেনারেল পারভেজ মোশাররফই প্রথম কোন সামরিক শাসক, যিনি সংবিধান অগ্রাহ্য করার দায়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়ালেন। সংবিধান স্থগিত ও জরুরি অবস্থা জারির পরের বছর অভিশংসিত হওয়ার ঝুঁকি এড়াতে পদত্যাগ করলেও বিচারের ঝুঁকি এড়াতে পারেন নি। একে একে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি করা হয় তাকে।
গুরুতর রাষ্ট্রদ্রোহের অপরাধে ক্ষমতা ছাড়ার নয় বছর পর দাপুটে এই সেনা শাসককে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে পাকিস্তানের আদালত।

আমেরিকার পঁয়তাল্লিশতম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসিত করেছে মার্কিন কংগ্রেস। আমেরিকার ইতিহাসে ট্রাম্প হলেন অভিশংসিত তৃতীয় প্রেসিডেন্ট। নতুন বছরের শুরুর দিকে তার বিচার শুরু হবে।

চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ে গনতন্ত্রকামীদের আন্দোলন ও বিক্ষোভ চলছে কয়েক মাস থেকে। বিতর্কিত প্রত্যর্পণ আইনের বিরোধিতায় এই বিক্ষোভ ক্রমশই সহিংস হয়ে উঠেছে। সহিংসতা আর হরতাল হংকংয়ের জনজীবনে বড় ধরনের ব্যাঘাত সৃষ্টি করলেও শান্তিপূর্ণ সমাধানের সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছেনা এখনো।

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে রিয়াদের একটি আদালত। সৌদি রাজ পরিবার ও যুবরাজ সালমানের সমালোচক খাসোগি ছিলেন ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক। ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলা হয়।
আন্তর্জাতিক মহল যদিও এই রায়কে বিচারের নামে উপহাস বলে আখ্যায়িত করেছে। কারণ প্রিন্স সালমানের ঘনিষ্ঠজন ও মূল হোতাদের বাইরে রেখে বিচার করা হয়েছে।

সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গি তৎপরতা দমনে সফলতা অব্যাহত ছিলো এই বছর। একে একে ইরাক ও সিরিয়ার ঘাটিগুলোতে নিয়ন্ত্রণ হারায় জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস। গত অক্টোবরে জঙ্গি গোষ্ঠীর শীর্ষ নেতা আবু বকর আল বাগদাদি মার্কিন অভিযানের সময় আত্মঘাতী হন।

নেতৃত্বের অভাবে কিছুদিন নিষ্ক্রিয় থাকলেও আবার নাকি গা ঝাড়া দিয়ে শক্তি সঞ্চয় করছে আইএস। এই খবরে ভীতসন্ত্রস্ত হওয়াই স্বাভাবিক। হলি আর্টিজান হত্যাকাণ্ডের মতো নির্মমতা কি এতো সহজে ভুলা যায়?

বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে বছরব্যাপী সন্ত্রাসীদের হামলা যেমন থেমে থাকেনি তেমনি জঙ্গী দমনের নামে সাধারণ মানুষ হত্যাও থেমে থাকেনি।

নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার নিরীহ নারী শিশু সহ মারা যায় অনেকেই।

বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে যথারীতি কোন অগ্রগতি নেই। সংখ্যালঘু মুসলিম নিধনের অভিযোগে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া আন্তর্জাতিক আদালতে সুচির বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপন করে। আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের প্রধান কার্যালয় দ্যা হেগে অং সান সুচি গলা বাজি করে সব দোষ অস্বীকার করে এসেছেন। "চোরের মায়ের বড় গলা", এই মিথ্যাচার বিশ্বে নিন্দা কুড়ালেও নোবেল শান্তি পুরষ্কার বিজয়ী নির্লজ্জ মহিলার কিছু যায় আসেনা।

যেখানে দেখিবে ছাই, উড়াইয়া দেখো তাই.............

হাজারো খারাপ খবরের ভীড়ে ভালো খবরগুলো চাপা পড়ে থাকে। আবর্জনার স্তুপ হাতড়ে আশাজাগানিয়া কিছু খবর তাইতো খুঁজে বের করতে হয়।

চিরহরিৎ সবুজ বৃক্ষের আমাজন বনে দাবানল ছড়িয়ে পড়ে একদিন। আগুনে আটকে পড়া অসহায় প্রাণীকূলকে উদ্ধারে ঝাপিয়ে পড়েন উদ্ধারকর্মীরা। নিজের জীবন বিপন্ন করে ভয়াল আগুনের ভেতর থেকে আহত, অক্ষত প্রাণীদের বের করে নিয়ে আসেন একে একে। প্রাণীর প্রতি এহেন মমতা দেখে মনে হয়েছে, মানবতা আজও শেষ হয়ে যায় নি।

ক্ষয়িষ্ণু মানবতাকে সঙ্গী করে নতুন বছরে আমরা এগিয়ে যাবো শান্তির পথে। যদিও প্রতিবছর আমাদের অনেক চাওয়া অপূর্ণ থেকে যায়, তবু বিশ্ব শান্তি রক্ষার ব্যর্থ আকুতি অব্যাহত থাকবে আমাদের।



শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   লিডিং ইউনিভার্সিটির দৃরশিক্ষণের অগ্রগতি নিয়ে উপাচার্যের সভা অনুষ্ঠিত
  •   দিরাইয়ে পাইকার দুধ নিতে না আসায় নিজেই দুধ বিক্রি করছেন সুরফ
  •   সিলেটে করোনা আতঙ্ক দূরীকরণ ও জনসচেতনতা তৈরিতে নিরলস কাজ করছে পুলিশ
  •   সুরমা নদী থেকে পায়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় লাশ উদ্ধার
  •   সিলেট শামসুদ্দিনে চিকিৎসাধিন ৩ জনের স্যাম্পল ঢাকায়
  •   নানা ছুতোয় বয়স্ক রোগীদের এড়াচ্ছে হাসপাতাল
  •   ছাতকে কর্মহীনদের বাড়িতে পাঠানো হচ্ছে খাদ্য সহায়তা
  •   মঙ্গলবার ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স প্রধানমন্ত্রীর
  •   সব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিনামূল্যে পিপিই দেবে ইউএস-বাংলা
  •   করোনা : ২ হাজার পরিবারকে সহায়তা দিলেন সাকিব
  •   করোনা : পেটে ভাত নেই, সিলেটে ঘরে থাকতে পারছেন না নিম্ন আয়ের মানুষ
  •   লকডাউনে বিশ্বের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি মানুষ
  •   করোনা : তাবলীগ জামাতে আক্রান্ত ২৭, পুলিশকে ছুরি মেরে পালালেন একজন
  •   বড়লেখায় গভীর রাতে কর্মহীনদের ঘরে খাবার নিয়ে গেলেন ওসি
  •   লন্ডনে করোনা কেড়ে নিলো দক্ষিণ সুরমার আরেকজনের প্রাণ
  • সাম্প্রতিক ফিচার খবর

  •   বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-চেতনা, কাজে ও জীবনে অসাম্প্রদায়িকতা
  •   অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু ইতিহাসের মহানায়ক
  •   ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে মণিপুরি মুসলিম তরুণদের ভাবনা
  •   আমার পরিবার, আমার ভালবাসা
  •   যে বইয়ের পাতা উল্টাতে হয় ৬ জন মিলে
  •   যে ভাইরাসের কারণে মৃত্যু হয়েছিল ১০ কোটি মানুষের
  •   করোনা থেকে বেঁচে থাকতে যে কাজগুলো জরুরি
  •   নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিন আজ
  •   সিলেটে সড়ক-মহাসড়কে মৃত্যুর মিছিল কেন থামছে না?
  •   গবেষণা বলছে, যাদের বোন আছে তারাই ভাগ্যবান
  •   ত্রিকালদর্শী রাজনীতিবিদ আবদুস সামাদ আজাদ
  •   তারুণ্যের চোখে ‘২০২০’
  •   ঈসা (আ.)-এর ভালোবাসা আমাকে মুসলিম হতে উদ্বুদ্ধ করেছে
  •   তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী: আলোকিত জীবন ও কর্ম
  •   বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তারুন্যের উচ্ছ্বাস ও সৃষ্টির মহানন্দ