আজ রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ইং

মাইল্ড স্ট্রোক সম্পর্কে যা জানা জরুরি

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৬-১১ ০০:৫২:৪৬

মাইল্ড স্ট্রোককে বলা হয় ট্রানজিয়েন্ট স্কিমিক অ্যাটাক বা টিআইএ। এটা দুই ধরনের হয়, একটা রক্তক্ষরণজনিত বা হেমোরেজিক স্ট্রোক এবং আরেকটি হলো স্কিমিক স্ট্রোক, এতে রক্তক্ষরণ হয় না।

এ ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক অসিত বরন অধিকারী জানিয়েছেন, স্ট্রোক বলতে সাধারণত মস্তিষ্কে রক্ত চলাচলে ব্যাঘাত ঘটাকে বুঝানো হয়। এটা দুই ধরনের হয়, একটা রক্তক্ষরণ জনিত বা হেমোরেজিক স্ট্রোক এবং আরেকটি হলো স্কিমিক স্ট্রোক, এতে রক্তক্ষরণ হয় না।

মাইল্ড স্ট্রোকের লক্ষণগুলো কী?
অধ্যাপক অধিকারী জানিয়েছেন, ট্রানজিয়েন্ট স্কিমিক অ্যাটাক বা মাইল্ড স্ট্রোকের প্রধান লক্ষণ হলো, অল্প সময়ের জন্য কেউ জ্ঞান হারিয়ে ফেলতে পারে। সেটি ১৫ সেকেন্ড থেকে কয়েক মিনিট স্থায়ী হতে পারে। এক্ষেত্রে প্রাথমিক অবস্থায় রোগীর হাটতে হাটতে মাথা ঘুরতে পারে। বসা থেকে হঠাৎ উঠে দাঁড়ালে মাথা ঘুরতে পারে।

আর পরের দিকে, যখন সেরিব্রাল ইনফ্লাক্স হয়ে যায়, তখন রোগী অচেতন হয়ে পড়তে পারে। অবস্থা আরো খারাপ হলে সেই সঙ্গে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়া এমনকি মৃত্যুও ঘটতে পারে।

অন্যদিকে, হেমোরেজিক স্ট্রোকের লক্ষণ নির্ভর করে মস্তিষ্কে কতটা রক্তক্ষরণ হয়েছে তার ওপর।

অধ্যাপক অসিত বরন অধিকারী, চেয়ারম্যান, কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগ, বিএসএমএমইউ
যদি অল্প রক্তক্ষরণ হয়, তাহলে মাথাব্যথা, ভার্টিগো বা মাথা ঘোরা থাকবে। রক্তক্ষরণের পরিমাণ একটু বেশি হলে শরীরের কোন একটি অংশ অবশ হয়ে যেতে পারে।

কিভাবে বোঝা যাবে মাইল্ড স্ট্রোক হয়েছে?
অধ্যাপক অধিকারী বলছেন, প্রাথমিকভাবে যদি দেখা যায় কোন আপাত সুস্থ মানুষ হঠাৎ হাঁটাচলায় ভারসাম্যহীনতা দেখা যায়, অথবা মাথা ঘুরে পড়ে যাচ্ছে, অথবা যদি দেখা যায় সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর শরীরের কোন অংশ হঠাৎ অবশ হয়ে গেছে, তাহলে বুঝতে হবে তার মাইল্ড স্ট্রোক হয়েছে। এছাড়া হয়ত দেখা যাবে কেউ হঠাৎ হাত বা পা নাড়াতে পারছে না, কিংবা মুখটা এক পাশে বাঁকা হয়ে গেছে।

করণীয় কী?
লক্ষণগুলো দেখা মাত্র দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। এরপর সিটি স্ক্যান বা এমআরআই করে দেখতে হবে এটা কি স্কিমিক স্ট্রোক না হেমোরেজিক স্ট্রোক।

অধ্যাপক অধিকারী জানিয়েছেন, এক্ষেত্রে ডায়াগনোসিস বা রোগ নির্ণয় খুব জরুরী। যত আগে চিকিৎসা শুরু হবে, রোগীর সুস্থ হবার সুযোগ তত বেশি থাকবে।

কিভাবে স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়ানো যাবে?
যে কোনো ব্যক্তি যদি চর্বি জাতীয় খাবার ও ধূমপান এড়িয়ে চলে, হাইপার টেনশন থাকলে সেটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন, তবে অনেকটাই এড়ানো যাবে মাইল্ড স্ট্রোকের ঝুঁকি। এছাড়া উচ্চ রক্তচাপ এবং ডায়াবেটিস থাকলে তা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখার চেষ্টা করতে হবে। শারীরিক কসরত করতে হবে।-বিবিসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ, দর্ষক গ্রেফতার
  •   খালেদার জামিন স্থগিত আবেদনের শুনানি চলছে
  •   বাহুবলে চা শ্রমিক নির্বাচনে ভোটগ্রহন চলছে
  •   নারায়ণগঞ্জে দুই পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থীর নাম ঘোষণা
  •   গুলশানে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন আজ বিকেলে
  •   সিরাজগঞ্জে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১৭
  •   কিশোরগঞ্জে বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ, ১১১৮ যাত্রীর জরিমানা
  •   কামরানের আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন জমা ২৮ জুন
  •   কামরানকে শুভকামনা, শুভাকাঙ্খীদের কৃতজ্ঞতা জানালেন আজাদ
  •   আর্জেন্টিনার হার নিয়ে বেরিয়ে আসছে বিম্ফোরক সব তথ্য
  •   সচেতনতা গড়ে তুলতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ৫ সমাজকর্মী
  •   মৃগী রোগীও খেলছেন রাশিয়া বিশ্বকাপ
  •   যে কারণে দাড়ি রাখছেন রোনালদো, জানালেন নিজেই!
  •   ৩০৮ নারীর সঙ্গে সঞ্জয়ের সম্পর্ক জেনেও চুপ ছিলেন স্ত্রী!
  •   আসাদ উদ্দিনের বাসায় নেতাকর্মীদের ঢল
  • সাম্প্রতিক জীবন ধারা খবর

  •   যেসব কারণে শহরের মেয়েরা বেশি মোটা হয়!
  •   বিয়েতে কমে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের সম্ভাবনা
  •   মধুর সম্পর্ক যে কারণে বিরক্তিকর হয়ে উঠে!
  •   ছেলেদের কাছে যে বিষয়গুলো গোপন করে মেয়েরা
  •   কাপড়ের রঙ দীর্ঘদিন উজ্জ্বল রাখার কৌশল
  •   সেমাই কীভাবে ঈদের অনুষঙ্গ হয়ে উঠলো?
  •   হেডফোনের মারাত্মক ক্ষতিকর দিক
  •   জিন্স প্যান্টের সামনে ক্ষুদ্র পকেট থাকে কেন?
  •   দেখা গেছে চাঁদ, বাংলাদেশে ঈদ শনিবার
  •   টিভির নেশা অকাল মৃত্যুর কারণ হতে পারে!
  •   সকালে ঘুম থেকে উঠেই মাথাব্যথা কেন?
  •   মশার উপদ্রবে থেকে বাঁচতে পারফিউম!
  •   ৩০ বছর পর কিভাবে যৌবন ধরে রাখবেন?
  •   নারীদের যে কাজে বেশি কষ্ট পায় পুরুষরা
  •   ফরমালিনমুক্ত আম চেনার উপায়